রাজধানীতে বেড়েছে ছিনতাই, জড়িয়ে পড়ছেন উবার-পাঠাও চালকরা

প্রকাশিত: ১০:২০, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০

আপডেট: ০৬:৪৩, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০

আশিক মাহমুদ: রাজধানীর অন্তত অর্ধশত স্থানে নিয়মিত ছিনতাইয়ের শিকার হচ্ছে নগরবাসী। তিন চারজন দল বেঁধে মানুষকে টার্গেট করে চলে ছিনতাই। উবার-পাঠাও চালানোর আড়ালেও ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে। নারীরাই তাদের প্রধান টার্গেট। ঝামেলা এড়াতে বেশির ভাগ ভুক্তভোগী মামলা করেনা। ফলে এদের ধরা কষ্টসাধ্য বলে জানিয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।

রাজধানীর উত্তরায় স¤প্রতি একটি ছিনতাইয়ের ঘটনা ধরা পড়ে সেখানকার সিসি ক্যামেরায়। এই ছিনতাইয়ের পেছনে কাজ করেছে তিনজন। দুজন বাইক নিয়ে রাস্তা আটকে এই নারীর কাছে থাকা সব নিয়ে পালিয়ে যায়। আর অন্যজন দূর থেকে তাদের অনুসরণ করে। সুবিধা অসুবিধা ইশারায় জানান দেয়।

কয়েকদিন আগে এই চক্রের তিনজনকেই গ্রেফতার করে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। ছিনতাইয়ের কথা স্বীকারও করে তারা। রাজধানীর বিভিন্ন এলকায় এমন অন্তত ৫০টি ছিনতাইয়ের স্পট রয়েছে। সেখানে দুই তিন জন গ্র“প বেধে ছিনতাই করে। নিরিবিলি জায়গায় ভোর বেলা একা মানুষ পেলেই অস্ত্র ঠেকিয়ে সর্বস্ব কেড়ে নেয় এরা। আর যারা নেশাখোর তারা বেশির ভাগই মোবাইল ফোন ছিনতাই করে।

এছাড়াও রাজধানীতে ছিনতাইয়ের নতুন একটি চক্র গড়ে উঠেছে উবার, পাঠাও চালানোর আড়ালে।

পুলিশ বলছে, সপ্তাহে দুই তিনদিন তারা নতুন নতুন স্পটে ছিনতাই করে। নারীরা তাদের প্রধান টার্গেট। অন্য একটি গ্র“প উবার, পাঠাওয়ের যাত্রী সেজে ছিনতাই, এমনকি হত্যাকাণ্ডের ঘটনাও ঘটাচ্ছে।

ঢাকা মহানগরের (উত্তর বিভাগ) অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার বদরুজ্জামান জিল¬ু বলছেন, ছিনতাইয়ের শিকার হয়ে বেশির ভাগ ভুক্তভোগী মামলা করতে আসে না। এদের সম্পর্কে পুলিশকে তথ্য দেয়ার আহŸান জানিয়েছেন গোয়েন্দা পুলিশেরই এই কর্মকর্তা।

 

এই বিভাগের আরো খবর

বাজারের সব মাস্ক করোনা প্রতিরোধী নয়

লাবণী গুহঃ শ্বাস-প্রশ্বাসের সাথে...

বিস্তারিত
করোনা নিয়ে গুজব, সতর্ক করলো পুলিশ 

নাঈম আল জিকো: নভেল করোনাভাইরাসকে...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *