হারিয়ে যাচ্ছে ত্রিপুরাদের নিজস্ব ভাষা

প্রকাশিত: ১০:৫৩, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০

আপডেট: ১০:৫৩, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০

কুমিল্লা সংবাদদাতা: চর্চার অভাবে দিন দিন হারিয়ে যাচ্ছে কুমিল্লার লালমাই পাহাড়ের পাদদেশে বাস করা ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী ত্রিপুরাদের নিজস্ব ভাষা। এই জনগোষ্ঠীর মানুষেরা বলছেন, বিদ্যালয়গুলোতে তাদের ভাষার পাঠ্য বই ও শিক্ষক সংকট রয়েছে। এ কারণে শিক্ষার্থীরা ভুলে যাচ্ছে তাদের নিজস্ব ভাষা।

লাইমাই পাহাড়ের পাদদেশের গ্রাম জামমুড়া, হাতিগাড়া, সালমানপুর ও বিনবিহার। দীর্ঘদিন ধরে এই গ্রামগুলোতে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর প্রায় দুই শতাধিক ত্রিপুরা পরিবার বসবাস করে আসছে। ত্রিপুরাদের নিজস্ব ভাষা থাকলেও চর্চার অভাবে দিন দিন হারিয়ে যেতে বসেছে তাদের ভাষা।

মাতৃভাষা রক্ষার জন্য সরকারি-বেসরকারি কোনো পৃষ্ঠপোষকতা না থাকায় এ অবস্থা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর মানুষ। তারা বলছেন, বড়রা নিজস্ব ভাষায় কিছু কথা বলতে পারলেও শিশুরা ভাষাটি শিখতে পারছেনা। আশাপাশের বিদ্যালয়গুলোতে তাদের জন্য নেই এই ভাষার বই ও শিক্ষক।

এ বিষয়ে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ আবদুল মান্নান জানান, প্রতিটি জাতির নিজস্ব ভাষায় কথা বলা তাদের অধিকার। এখানকার ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর মাতৃভাষা রক্ষার ব্যবস্থা নেয়া হবে। তবে এ ভাষায় পড়ানোর জন্য শিক্ষকের স্বল্পতা রয়েছে বলেও জানান তিনি। 

এই বিভাগের আরো খবর

বস্তিবাসীরা বেশি করোনা ঝুঁকিতে 

মাবুদ আজমী: ছিন্নমূল নিম্ন আয়ের...

বিস্তারিত
বিশ্ববাসীর নজরে কুষ্টিয়ার ইউটিউব গ্রাম

বিউটি সমাদ্দার : গ্রামের নাম ইউটিউব।...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *