বর্ষায় পানিতে তলিয়ে যায় জোয়ানশাহীর বোরো ধান

প্রকাশিত: ১০:৩৪, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০

আপডেট: ১০:৫৯, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০

ভৈরব সংবাদদাতা: ভৈরবের ওরারখালে সুইচ গেইট না থাকায় প্রতি বর্ষায় পানি ঢুকে জোয়ানশাহী হাওরের বোরো ধান তলিয়ে যায়। ক্ষতি হয় ফসলের। তাই ফসল রক্ষায় খালে সুইচ গেইট নির্মাণের দাবি এলাকাবাসীর। পাশাপাশি পাকা সড়ক ও স্থায়ী বাঁধ নির্মাণেরও দাবি তাদের।

ভৈরব উপজেলার আগানগর, শ্রীনগর ও সাদেকপুর ইউনিয়নের চার হাজার হেক্টর আয়তনের  জোয়ানশাহী হাওর। যার প্রায় পুরোটাতে আবাদ হয় বোরো ধান। কিন্তু ধান কাটার সময় এলেই  দুঃশ্চিন্তার ভাঁজ পড়ে কৃষকদের কপালে। কারণ প্রতিবছর উজান থেকে নেমে আসা পানি ওরার খাল দিয়ে হাওরে ঢুকে পড়ে, তলিয়ে যায় কৃষকের ধান । 

কৃষকদের অভিযোগ, প্রতি বছরই পানি ঢুকে বোরো ধানের জমি তলিয়ে কয়েক কোটি টাকার ফসলের ক্ষতি হচ্ছে। হাওরের ফসল রক্ষায় দীর্ঘদিন ধরে একটি সুইচ গেট নির্মাণের দাবি করে আসছেন তারা। 

এদিকে, ওরারখালে একটি অস্থায়ী বাঁধ নির্মাণের কাজ চলছে বলে জানান ভৈরব উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লুবনা ফারজানা।

ওরারখালে সুইচ গেইট ও রাস্তাসহ একটি স্থায়ী বাঁধ নির্মাণে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল মন্ত্রণালয়ে চিঠি পাঠানো হয়েছে বলেও জানান এই কর্মকর্তা।

এই বিভাগের আরো খবর

রংপুরে খোলা জায়গায় বর্জ্য, অতিষ্ঠ এলাকাবাসী

রংপুর সংবাদদাতা: আবারো খোলা জায়গায়...

বিস্তারিত
ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে তীব্র যানজট

টাঙ্গাইল সংবাদদাতা: ঢাকা-টাঙ্গাইল...

বিস্তারিত
রংপুর সিটির বর্ধিত এলাকার সড়ক ও সেতুর বেহাল দশা

রংপুর সংবাদদাতা: দীর্ঘদিন সংস্কার না...

বিস্তারিত
মাস্কের দাম বেশি নিলে যেখানে অভিযোগ জানাবেন

নিজস্ব প্রতিবেদক: চীন থেকে শুরু হয়ে...

বিস্তারিত
রেলসেবা পেতে ফেনীবাসীর ভোগান্তি

ফেনী সংবাদদাতা: রেলের কাঙ্খিত সেবা...

বিস্তারিত
দখল আর দূষণে অস্তিত্ব সংকটে কর্ণপাড়া খাল

সাভার সংবাদদাতা: দুষণ আর দখলের কবলে...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *