তৈরি পোশাক শিল্পে দেড়শ’ কোটি ডলারের ক্রয়াদেশ বাতিল

প্রকাশিত: ১০:৫৭, ২৪ মার্চ ২০২০

আপডেট: ১২:৫১, ২৪ মার্চ ২০২০

মেহের মণি: নভেল করোনাভাইরাস মানুষের জীবন-সংশয় সৃষ্টির পাশাপাশি দেশের তৈরি পোশাক শিল্পকে গভীর অনিশ্চয়তায় ফেলেছে। গত এক সপ্তাহে প্রায় দেড়শো কোটি ডলারের ক্রয়াদেশ বাতিল করেছে বিদেশি ক্রেতারা, যা টাকায় প্রায় প্রায় ১৩ হাজার কোটির কাছাকাছি। 

বিশ্বব্যাপী মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাসে সবচেয়ে বিপর্যয়ের মধ্যে ইউরোপ ও আমেরিকা, যা বাংলাদেশের তৈরি পোশাক শিল্পের বড় রপ্তানি বাজার। সেসব দেশের খুচরা বিক্রয়কেন্দ্রসহ বিপনী বিতান বন্ধ হয়ে যাওয়ায় বাংলাদেশে দেয়া ক্রয়াদেশগুলো বাতিল করছে সেসব দেশের ক্রেতারা। 

এমন পরিস্থিতিতে তৈরি পোশাক শিল্পের মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ সভাপতি রুবানা হক গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে ভিডিও বার্তায় জানিয়েছেন, এক সপ্তাহে ১ হাজার ৮৯টি কারখানায় প্রায় দেড়শো কোটি ডলার ক্রয়াদেশ বাতিল করেছেন বিদেশি ক্রেতারা। যা প্রায় ১৩ হাজার কোটি টাকার সমান। ক্রয়াদেশ বাতিল এসব কারখানায় কাজ করে ১২ লাখ শ্রমিক।

দেশের তৈরি পোশাক কারখানায় কাজ করা চল্লিশ লাখেরও বেশি শ্রমিকদের মজুরী, ভাতা পরিশোধ নিয়ে এখন শঙ্কায় পড়েছেন শিল্প উদ্যোক্তারা। 

তাঁরা বলছেন, এই করোনার প্রার্দুভাব কতদিন থাকবে এবং শিল্প খাতের কতটা ক্ষতি করবে তা এখনই স্পষ্ট করে বলা মুশকিল।

তাই আন্তর্জাতিক স¤প্রদায়কে বাংলাদেশের শ্রমিকদের কথা বিবেচনা করে নতুন সহায়তার অঙ্গিকার নিয়ে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন তৈরি পোশাক শিল্পের উদ্যোক্তারা।

এই বিভাগের আরো খবর

পোষা প্রাণীর প্রতি নিষ্ঠুর আচরণ নয়

শেখ হারুনঃ করোনা পরিস্থিতিতে চলমান...

বিস্তারিত
দুঃসময়ে মানুষের পাশে নেই রাজনৈতিক দলগুলো

জয়দেব দাশ: করোনা পরিস্থিতির শিকার...

বিস্তারিত
করোনা দুর্যোগে মানুষের পাশে হামদর্দ

শেখ হারুন: করোনা দুর্যোগে মানুষের...

বিস্তারিত
বিএসএমএমইউতে মাত্র ৪ ঘন্টায় করোনা পরীক্ষা

ইমদাদুল্লাহ বাবু: বিশেষায়িত ফিভার...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *