ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৭, ৪ কার্তিক ১৪২৪, ২৮ মহাররম ১৪৩৯
শিরোনামঃ
বিচার বিভাগ স্বাধীনভাবে কাজ করতে পারছে না: খালেদা জিয়া তথ্য প্রযুক্তি খাতে দেশে নিরব বিপ্লব হচ্ছে: জয় রোহিঙ্গা সংকটের জন্য মিয়ানমার সেনাবাহিনীই দায়ী: যুক্তরাষ্ট্র সরকার বিচারকে কোনোভাবেই প্রভাবিত করছে না: সেতুমন্ত্রী সীমান্তে ফের বেড়েছে রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ সীমান্ত থেকে কুতুপালং ক্যাম্পে আনা হলো ৩০ হাজার রোহিঙ্গা 'রাজধানীর পরিবেশ উন্নয়নে কিছু শিল্প বিসিক এলাকায় সরানো হবে' উড়িষ্যায় আতশবাজি কারখানায় বিস্ফোরণে নিহত ৮, আহত ২০ মুক্তিযোদ্ধা ফারুক হত্যা মামলা সংসদ সদস্য রানার জামিন স্থগিত নিখোঁজের ৫ দিন পর এনজিও কর্মী সাবিনার মরদেহ উদ্ধার বরিশালে ঐতিহ্যবাহী শ্মশান দীপালি উৎসব অনুষ্ঠিত জিম্মি রাজনৈতিক ও স্থানীয় পেশিশক্তির কাছে ঝুট বাণিজ্য ঘরে ঘরে বিস্তৃত ক্যাবল ব্যবসা আমলাতান্ত্রিক জটিলতার কবলে ইন্টারনেট এখন বিলাস সামগ্রী নয় অতি প্রয়োজনীয় সেবাখাত লঘুচাপের প্রভাবে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টি এশিয়া কাপ হকিতে আজ চীনের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ পটিয়ায় নির্মিত হয়েছে ‘বীরকন্যা প্রীতিলতা সাংস্কৃতিক ভবন’

উত্তরবঙ্গে অস্থির চালের বাজার, বিপাকে মানুষ

প্রকাশিত: ০৫:৪৪ , ১৯ জুন ২০১৭ আপডেট: ০৫:৪৪ , ১৯ জুন ২০১৭

ডেস্ক রিপোর্ট: উত্তরবঙ্গে অস্থির চালের বাজার। ধানের জেলা দিনাজপুরে নতুন ধান বাজারে উঠলেও কমেনি চালের দাম। সাতদিনের ব্যবধানে কেজি প্রতি দাম বেড়েছে ১ থেকে দেড় টাকা। ব্যবসায়ীদের অভিযোগ, মিল মালিকদের মজুতের কারণেই এমনটি হচ্ছে। এদিকে, রংপুরেও উর্ধ্বমুখী চালের দাম। জাতভেদে বেড়েছে কেজি প্রতি ১০ টাকা পর্যন্ত। দাম না কমায় বিপাকে পড়েছেন এই দুই জেলার স্বল্প ও সীমিত আয়ের মানুষেরা। 
 
ধানের জেলা হিসেবে সুপরিচিত দিনাজপুর। কিন্তু নতুন বোরো মৌসুমের ধান বাজারে উঠলেও কমেনি চালের দাম। দিনাজপুরে হাইব্রিড চাল প্রতি কেজি ৪২ টাকা, গুটি স্বর্ণা ৪৫-৪৬ টাকা, সুমন স্বর্ণা ৪৮ টাকা, মিনিকেট ৫৩ টাকা আর প্রতি কেজি বিআর আটাশ বিক্রি হচ্ছে ৫০ টাকায়। গত এক সপ্তাহের ব্যবধানে প্রতিকেজি চালের দাম বেড়েছে ১ থেকে দেড় টাকা।

চালের দামের উর্দ্ধমুখী হওয়ায় বিপাকে পড়েছেন স্বল্প আয়ের মানুষ। ব্যবসায়ীরা বলছেন, কিছু কিছু মিল মালিক ধান মজুত করার কারণেই বেড়েছে চালের দাম।

যদিও ধান মজুতের অভিযোগ অস্বীকার করে মিল মালিকদের বলছেন, বোরো মৌসুমে ফলন কম হওয়ায় ধানের বাজারে সংকট সৃষ্টি হয়েছে।

এদিকে, রংপুরেও অস্থিতিশীল চালের বাজার। বোরোর পর আউশের ভরা মৌসুমেও মোটা চাল প্রতি কেজি ৩২ টাকা থেকে বেড়ে ৪২ টাকা এবং চিকন চাল ৪২ টাকা থেকে বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ৫৫ থেকে ৬০ টাকায়। ফলে বিপাকে পড়েছেন ক্রেতারা। 
 
বিক্রেতারা বলছেন, ধানের সরবরাহ কম থাকায় বাজারে চালের দাম বাড়ছে। এদিকে, সাধারণ মানুষের দুর্ভোগ কমাতে দ্রুত সরকারের হস্তক্ষেপের মাধ্যমে চালের দামের এই উর্ধ্বমুখী প্রবণতা কমানো ও বাজার স্থিতিশীল করার দাবি জানায় স্থানীয়রা। 
 

এই সম্পর্কিত আরো খবর

খানাখন্দে ভরা বরিশাল-ঢাকা মহাসড়ক

উজিরপুরে প্রতিনিয়তই ঘটছে দুর্ঘটনা

বরিশাল প্রতিনিধি: খানাখন্দে ভরা বরিশাল-ঢাকা মহাসড়কের উজিরপুর উপজেলার ২৩ কিলোমিটার অংশে  প্রতিনিয়তই ঘটছে দুর্ঘটনা। প্রতিদিন ঝুঁকি নিয়ে...

গত ৩ দিনে ঢুকেছে ৩০ হাজারের বেশি

রাখাইনে সহিংসতা অব্যাহত থাকায় আবারো বেড়েছে রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ

কক্সবাজার প্রতিনিধি: মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে চলমান সহিংসতা অব্যাহত থাকায় আবারো সীমান্তে রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ বেড়েছে। গত তিন দিনে...

বিভিন্ন সীমান্ত দিয়ে নতুন করে ১০ হাজার রোহিঙ্গার অনুপ্রবেশ

কক্সবাজার প্রতিনিধি: মিয়ানমারে নির্যাতনের শিকার রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ আবারো বেড়েছে। সোমবার রাতে টেকনাফ ও উখিয়ার বিভিন্ন...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is