করোনার প্রভাবে ঝুঁকিতে বিশ্ব খাদ্য নিরাপত্তা 

প্রকাশিত: ১০:০৫, ২৯ মার্চ ২০২০

আপডেট: ০২:১৬, ২৯ মার্চ ২০২০

ফারুক হোসাইন: করোনা ভাইরাসের মহামারীর কারণে বিশ্ব খাদ্য নিরাপত্তা ঝুঁকিতে। করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করতে বিশ্বের প্রায় এক-পঞ্চমাংশ মানুষ এখন বন্দী জীবন-যাপন করছে।

বিভিন্ন দেশে লকডাউন জারি করায় মানুষ আতঙ্কে খাদ্য-সামগ্রী মজুদ করা শুরু করে। রাতারাতি বাজারের উধাও হয়ে যায় পণ্য। বাজারে দেখা দেয় কৃত্রিম খাদ্য সঙ্কট।

অনেক দেশের সরকার এই কৃত্রিম সঙ্কট মোকাবেলা যথেষ্ট পরিমাণ খাদ্য সরবরাহ করলেও নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের সঙ্কট দেখা দেয়। এতে স্বাভাবিক খাদ্য সরবরাহ বাঁধাগ্রস্ত হয়।

ন্যাশনাল অস্ট্রেলিয়ান ব্যাংকের অর্থনীতিবিদ ফিন জিয়াবেল বলেন, এই পরিস্থিতিতে স্থানীয় রপ্তানীকারকরা সুযোগের সদ্ব্যবহার করার চেষ্টা করে। এতে ভোক্তাদের চিন্তিত হওয়ারই কথা। যা কখনই যুক্তিসঙ্গত নয়। প্রকৃতপক্ষে বিশ্বে খাদ্য সরবরাহ স্বাভাবিক রয়েছে। 

বিশ্বের তৃতীয় চাল রপ্তানীকারক দেশ ভিয়েতনাম এবং গম রপ্তানীতে নবম কাজাখাস্তান স্থানীয় বাজারে খাদ্যের চাহিদা দেখা দেয়ায় রপ্তানীতে কড়াকড়ি আরোপ করেছে।

চাল রপ্তানীতে বিশ্বের প্রথম স্থান দখলকারী ভারতে তিন সপ্তাহের লকডাউন চলছে। এই পরিস্থিতিতে রপ্তানী বন্ধের যথেষ্ট কারণও রয়েছে।

এছাড়া মালয়েশিয়া রাশিয়ায় ভোজ্য তেল উৎপাদনের কাঁচামাল সূর্যমূখী বীজ পাম রপ্তানী বন্ধ করে দেয়ায় সেখানেও উৎপাদন ব্যহত হচ্ছে।  

অন্যদিকে ইরাক দশ লক্ষ টন গম আড়াই লক্ষ টন চালের জন্য আবেদন করেছে। সবকিছু মিলিয়ে কৃষিজাত পণ্য ব্যবসায়ীদের চিন্তায় ফেলে দিয়েছে।  

যুক্তরাষ্ট্রের ডিপার্টমেন্ট অব এগ্রিকালচারের তথ্যানুযায়ী, বিশ্বে সবচেয়ে বেশি পরিমানে রপ্তানি খাদ্য পণ্য হলো চাল গম। এবছর যার উৎপাদন ধরা হয়েছে ১২৬ কোটি টন। 

ইউএসডিএ-এর তথ্যানুযায়ী, বিশ্বেও উৎপাদিত খাদ্য শষ্য দিয়ে পুরো মানবজাতির খাদ্যের চাহিদা পূরণ করা সম্ভব। এখান থেকে আগামীতে ৪৬৯. মিলিয়ন টন উদ্বৃত্ত থাকবে। 

এই পরিসংখ্যানটি স্বাভাবিক খাদ্য চক্রের মাধ্যমে কোথা থেকে তা উৎপাদিত হবে এবং কোথায় ভোগ হবে তার ওপর ভিত্তি করে করা হয়েছে। একই সাথে বিকল্প খাদ্যের সহজলভ্যতার উপরও এই তথ্য একইভাবে প্রযোজ্য।

তবে চালের রপ্তানী কমে যাওয়ায় বাজারে এর প্রভাব পড়তে শুরু করেছে। স্থানীয় বাজারে বেড়ে গেছে চালের দাম।

এই বিভাগের আরো খবর

দেশে করোনা সংক্রমণ দীর্ঘমেয়াদী হওয়ার আশংকা

শাহনাজ ইয়াসমিন: প্রতিরোধ ব্যবস্থা বা...

বিস্তারিত
ফুটপাতে বিক্রি হচ্ছে পিপিই

শেখ হারুন: করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *