এমপি ডিলুর মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক

প্রকাশিত: ০৩:৪২, ০২ এপ্রিল ২০২০

আপডেট: ০৩:৪২, ০২ এপ্রিল ২০২০

অনলাইন ডেস্ক: বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ, পাবনা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, বর্তমান একাদশ জাতীয় সংসদের নির্বাচিত সংসদ সদস্য, সাবেক ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা।

আজ বৃহস্পতিবার (০২ এপ্রিল) প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে পাঠানো এক বার্তায় শেখ হাসিনা শোক প্রকাশ করেন। শোকবার্তায় প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘৫ম বারের মতো নির্বাচিত সংসদ সদস্য, বীর মুক্তিযোদ্ধা শামসুর রহমান শরীফ আজীবন সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শের সৈনিক হিসেবে দেশ ও জাতির সেবা করে গেছেন।’

শেখ হাসিনা তার রাজনৈতিক আদর্শের কথা স্মরণ করে বলেন, ‘১৯৮১ সালে ৬ বছরের নির্বাসন শেষে দেশে ফিরে আসার পর থেকে আমি শামসুর রহমান শরীফকে দেখেছি তিনি বৃহত্তর পাবনা অঞ্চলে আওয়ামী লীগের ঝান্ডা উড্ডীন রেখেছেন। সকল গণতান্ত্রিক আন্দোলন-সংগ্রামে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন। এজন্য তাকে ও তার পবিারের সদস্যদের অমানুষিক নির্যাতন, জুলুমের স্বীকার হতে হয়েছে। কিন্তু তিনি কখনই বঙ্গবন্ধুর আদর্শ থেকে, আওয়ামী লীগের আদর্শ থেকে বিচ্যূত হননি।’

তিনি বলেন, ‘তৃণমূলের নেতা হিসেবে তিনি সব সময় এলাকার সাধারণ মানুষের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের জন্য কাজ করে গেছেন। তিনি ছিলেন গণমানুষের নেতা। শামসুর রহমান শরীফের মৃত্যুতে দেশ ও জাতি এক মহান বীর মুক্তিযোদ্ধা এবং রাজনীতিবিদকে হারালো আর এলাকাবাসী হারালো তাদের প্রাণপ্রিয় নেতাকে।’

প্রধানমন্ত্রী মহান রাব্বুল আল-আমিনের কাছে তার রুহের মাগফিরাত কামনা করেন এবং তার শোকসন্তপ্ত পবিারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

পাবনা-৪ আসনের সংসদ সদস্য ভাষাসৈনিক শামসুর রহমান শরীফ ডিলু (৮০) চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃহস্পতিবার (০২ এপ্রিল) ভোর সাড়ে ৫টায় ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। কয়েক মাস ধরে তিনি লন্ডনে ও ভারতের মুম্বাইয়ের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে গত জানুয়ারির শেষে দেশে ফিরে আসেন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, চার ছেলে, পাঁচ মেয়ে, নাতি-নাতনিসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

শামসুর রহমান শরীফ ডিলু ১৯৪০ সালের ১০ মার্চ জন্মগ্রহণ করেন। শৈশবে ঈশ্বরদীর লক্ষীকুন্ডা ইউনিয়নে প্রাইমারি স্কুল ও পাকুড়িয়া মিলড ইংলিশ স্কুলে পড়াশোনা করে পাবনা জেলা স্কুলে ভর্তি হন। পাবনা জেলা স্কুল থেকে ১৯৫৭ সালে ম্যাট্রিক পাস করেন। ১৯৬০ সালে ইন্টারমিডিয়েট এবং ১৯৬২ সালে তিনি গ্রাজুয়েশন সম্পন্ন করেন।

পাবনা জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি শামসুর রহমান শরীফ ১৯৯৬ সাল থেকে টানা পাঁচ বার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী হলে ২০১৪ সালের ১২ জানুয়ারি বাংলাদেশ সরকারের ভূমি মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন। 
 

এই বিভাগের আরো খবর

শিগগিরই কলেজে ভর্তি শুরু; সংসদে শিক্ষামন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক: এক মাসের ও বেশি সময়...

বিস্তারিত
সংসদে ২০২০-২১ অর্থবছরের বাজেট পাস

মেহের মণি: নতুন অর্থবছরের জন্য পাঁচ...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *