ঢাকা, বুধবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৭, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ২৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯
শিরোনামঃ
রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ বাংলাদেশের পরিবেশে ক্ষতিকর প্রভাব ফেলছে নিউইয়র্কে গ্রেফতার আকায়েদের স্ত্রী ও শ্বশুর-শাশুড়ি ঢাকায় আটক গেইল নৈপুণ্যে বিপিএল'র শিরোপা রংপুরের জরুরি সেবা ‘৯৯৯’, উদ্বোধন করলেন জয় অস্তিত্ব রক্ষায় নির্বাচনে অংশ নেবে বিএনপি: ওবায়দুল কাদের ২০১৪ সালের নির্বাচনের পুনরাবৃত্তি জনগণ মানবে না: ফখরুল ডেমরায় রানা হত্যার দায়ে ৪ জনের মৃত্যুদণ্ড কুমিল্লা চিড়িয়াখানায় সিংহ ‘যুবরাজ’ মারা গেছে নিম্ন আদালতের বিচারকদের যে কোনো সিদ্ধান্ত সুপ্রিমকোর্টের পরামর্শে “স্টার্ট আপ অ্যাওয়ার্ড ২০১৭” পেলেন ৫৭ জন ব্যবসায়ী নওগাঁয় ২ জেএমবি সদস্য ও সাভারে ৩ মাদক ব্যবসায়ী আটক লালমনিরহাটে দ্রব্য মূল্য কমানোর দাবিতে সিপিবি’র কর্মসূচি হবিগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২ মাগুরায় বিরল রোগে বুড়িয়ে যাওয়া শিশুটি মারা গেছে সিনেমার ওপর নিষেধাজ্ঞা তুলে নিলো সৌদি আরব জেএসসি-জেডিসি’র ফল প্রকাশ ৩০ ডিসেম্বর বরিশালে আ. লীগ নেতা গুলিবিদ্ধ ঢাবি অধিভুক্ত সাত কলেজে ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ তৃণমূলে তৎপর সম্ভাব্য প্রার্থীরা, অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনের আশাবাদ নির্বাচনে অসাংবিধানিক পদক্ষেপ নিলে প্রতিহত করবে ১৪ দল

চট্টগ্রামের কুইন মেরী স্কুল ও কলেজের প্রতিষ্ঠাতা উধাও

প্রকাশিত: ০৫:৫১ , ২৩ জুন ২০১৭ আপডেট: ০৫:৫১ , ২৩ জুন ২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক: ছয় মাসের বাড়ি ভাড়া আর শিক্ষকদের বেতন ভাতা না দিয়ে উধাও হয়ে গেছেন চট্টগ্রামের একটি বেসরকারি স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা ও অধ্যক্ষ। কুইন মেরী স্কুল অ্যান্ড কলেজ নামের ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি চলছিল সরকারি কোন অনুমোদন ছাড়াই। সকল কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যাওয়ায় শিক্ষার্থী-অভিভাবকরাও রয়েছেন অনিশ্চয়তায়। অধ্যক্ষের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা  করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

চট্টগ্রাম মহানগরীর দুই নম্বর গেইট এলাকায় অবস্থিত ইংরেজি মাধ্যমের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান-  কুইন মেরী স্কুল অ্যান্ড কলেজ। প্রায় তিন বছর আগে স্কুলটি প্রতিষ্ঠা করেন মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন। তিনি নিজেই এর অধ্যক্ষ। শুরু থেকে জোড়াতালি দিয়ে চললেও এ বছরের জানুয়ারী থেকে এখন পর্যন্ত শিক্ষক ও স্কুল ঘরের ভাড়া না দিয়েই লাপাত্তা হয়ে যান এই অধ্যক্ষ।

বেতন না পাওয়ায় স্কুলের সব কার্যক্রম বন্ধ করে দিয়েছেন শিক্ষকরা। বাড়ির কেয়ারটেকার জানান, প্রতিষ্ঠানটির মালিক ছয় মাস ভাড়া দেননা। এদিকে শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যাওয়ায় অনিশ্চয়তায় রয়েছেন অর্ধশতাধিক ছাত্র-ছাত্রী ও তাদের অভিভাবক।

অভিভাবকদের একজন তাঁর উদ্বেগের কথা জানান এভাবে,‘বছরের মাঝামাঝি যদি স্কুল পরিবর্তন করতে হয়, তাহলে কোথায় যেতে পারি।’ অন্য একজন অভিভাবক বলেন,‘ছাত্রদের শিক্ষা নষ্ট হচ্ছে। আমরা চাই এই পরিস্থিতির জন্য দায়ীদের চিহ্নিত করে দ্রুত ব্যবস্থা নিবে প্রশাসন ।’

স্কুল ভবনটির কেয়ারটেকার জানান, ‘ঘর ভাড়া, বিদ্যুৎ বিল ও গ্যাস বিল বাকি আছে। ওরা জানুয়ারি থেকে এখানে আর আসে না।’

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, কোন ধরনের অনুমোদন ছাড়াই চলছিল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি। চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের বিদ্যালয় পরিদর্শক কাজী নাজিমুল ইসলাম বলেন, এই নামের কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের অনুমোদনপ্রাপ্ত কিংবা রেজিষ্ট্রেশনকৃত নয়।’


এ ধরনের ভুঁইফোড় প্রতিষ্ঠানের প্রতারণা থেকে সবাইকে সতর্ক থাকার আহবান জানান তিনি।

এই বিভাগের আরো খবর

সিলেটে স্কুলের সিঁড়ির নিচে শক্তিশালী বোমাসদৃশ বস্তু

বৈশাখ অনলাইন ডেস্ক: সিলেটের শাহী ঈদগায় একটি স্কুলে শক্তিশালী  বোমাসদৃশ বস্তুর সন্ধান মিলেছে। উদ্ধারে কাজ করছে র‌্যাবের বম্ব ডিসপোজাল...

গার্হস্থ্য অর্থনীতির আন্দোলনের বিরোধিতায় রাস্তায় ঢাবি শিক্ষার্থীরা

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে ইনস্টিটিউট করার দাবিতে গার্হস্থ্য অর্থনীতি কলেজের ছাত্রীদের আন্দোলনের বিরোধিতায় রাস্তায় নেমেছে ঢাকা...

গণতন্ত্র মজবুত করতে সৎ ও যোগ্য নেতৃত্ব গড়ে তুলুন: রাষ্ট্রপতি

গণতন্ত্রের ভিত মজবুত করতে দেশে সৎ ও যোগ্য নেতৃত্ব গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫০তম...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is