নির্জন চিড়িয়াখানায় প্রাণিকূলের সরব বিচরণ

প্রকাশিত: ১০:০৯, ১৮ মে ২০২০

আপডেট: ০৫:১৪, ১৮ মে ২০২০

বিউটি সমাদ্দার: খাঁচার বন্দি দশা ঘুচেনি, তবে গত দু'মাস ধরে বণ্য প্রাণীগুলো অন্তত মানুষের চিড়িয়া নয়। নিজেদের জন্য এমন নির্জন সময় এর আগে আসেনি ঢাকা চিড়িয়াখারায় খাঁচাবন্দি প্রাণীদের জীবনে। করোনার দুর্যোগে বন্ধ চিড়িয়াখানায় প্রাণীগুলো যেন বেশি সতেজ ও প্রাণবন্ত। এরই মধ্যে সন্তান প্রসব করেছে জিরাফ। ঘোর সংকটে হওয়ায় কর্তৃপক্ষ জিরাফ শাবকের নাম রেখেছে দুর্জয়।

করোনার দীর্ঘ ছুটিতে বুনো সৌন্দর্যের চেহারা পেয়েছে যেন ঢাকা চিড়িয়াখানা।

দর্শনার্থী শূণ্য দু'মাস ধরে; কারণ, করোনার বিপদে ঘরে মানুষ, বন্ধ চিড়িয়াখানা।

মানুষের কোলাহলহীন সময়টা যেন প্রাণীগুলোকে খানিকটা হলেও কাংখিত বণ্য পরিবেশের স্বাদ এনে দিয়েছে।  

জনমানব শূণ্য চিড়িয়াখানায় সন্তান প্রসব করেছে জিরাফ। ভাল আছে মা জিরাফ আর তার শাবক যার নাম রাখা হয়েছে দুর্জয়।  

দু'মাসে কোন দুষণ না হওয়ায় স্বচ্ছ চিড়িয়াখানার লেকের পানি। পাখি, কুমির, ঘড়িয়াল যেন মুক্ত জীবনের স্বাদ নিচ্ছে।    

ওদের জীবনে এখন মানুষের বিরক্তিকর হাক, ডাক নেই। তাই আয়েশী সময় কাটছে যেন রাশভারী সিংহ আর ক্ষিপ্র বাঘের। হরিণ আছে প্রাশান্তির জীবনে। ময়ুর তার শোভা ছড়াচ্ছে প্রকৃতির কোলে।

নির্জন চিড়িয়াখানায় দেশীয় প্রজাতির শত সহস্র পাখির সরব বিচরণ মনমুগ্ধকর। অনেক পাখির এখন নীড়ে  ডিম পারার সময়।

প্রাণীগুলো ভাল থাকলেও মন ভাল নেই চিড়িয়াখানার কর্তাদের, তাদের মাথায় কেবল কোটি টাকা আয় বন্ধের চিন্তা।

অন্যদিকে চিড়িয়াখানাও চিরতরে বন্ধের চিন্তা ও পরামর্শ আছে অনেকের। করোনায় মানুষের অনাকাংখিত ঘরবন্দি দশা অনুধাবন করে খাচায় বন্দি বণ্য প্রাণীদের বনে ছেড়ে দিয়ে চিড়িয়াখানাগুলোর বিলুপ্তি চেয়ে কেউ কেউ লিখেছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

 

এই বিভাগের আরো খবর

কুষ্টিয়ায় হরিজন সম্প্রদায়ের জমি দখল! 

কুষ্টিয়া সংবাদদাতা: কুষ্টিয়ায় হরিজন...

বিস্তারিত
বিশ্বনেতৃত্বে আমেরিকার আসন নড়বড়ে!

ফারহীন ইসলাম টুম্পাঃ করোনাভাইরাস...

বিস্তারিত
সুরের ভুবনের একটি নক্ষত্রের বিদায়

বিউটি সমাদ্দার: এন্ড্রু কিশোরের...

বিস্তারিত
লাফিয়ে বাড়ছে কাঁচামরিচের দাম

সুমন তানভীর: রাজধানীর বাজারে লাফিয়ে...

বিস্তারিত
দুর্দিনে পত্রিকার হকাররা, ফিরছেন গ্রামে

পার্থ রহমান: করোনার দুর্যোগকালে...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *