স্বাভাবিক হয়নি অনেক জেলার বিদ্যুৎ সরবরাহ

প্রকাশিত: ০২:৩২, ২৩ মে ২০২০

আপডেট: ০৯:২৯, ২৩ মে ২০২০

ডেস্ক প্রতিবেদন: ঘূর্ণিঝড় আমফান আঘাত হানার চারদিন পরও অনেক জেলার বিদ্যুত সরবরাহ সড়ক যোগাযোগ স্বাভাবিক হয়নি।ক্ষতিগ্রস্ত বেশিরভাগ জেলায় এখনো মেরামত করা হয়নি বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইন। ফলে চারদিন ধরে অন্ধকারে অনেক এলাকা। বিভিন্ন জায়গায় সড়কে ভেঙ্গেপড়া গাছও সরানো হয়নি। এতে সচল হয়নি সড়ক যোগাযোগ। বিচ্ছিন্ন মোবাইল এবং ইন্টারনেট পরিসেবাও। বন্ধ রয়েছে বিশুদ্ধ খাবার পানির সরবরাহ।

সুপার সাইক্লোন আম্ফানের তান্ডবের পর বিভিন্ন জেলায় রয়ে গেছে এর ধ্বংসের চিহ্ন। এখনো গাছপালা ভেঙ্গে পড়ে আছে সড়কে, উপড়ে আছে বিদ্যুতের খুঁটি, মেরামত হয়নি ভাঙা বেড়িবাঁধ। আম্ফান আঘাত হানার চারদিন পরও বিধ্বস্ত এমন চিত্র দেখা গেছে ক্ষতিগ্রস্ত জেলাগুলোতে।

বাংলাদেশে আম্ফান প্রথম আঘাত হানে সাতক্ষীরায়। তাই সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত এই জেলা। গত তিনদিন ধরে এখানকার ৭৫ ভাগ বিদ্যুৎগ্রাহক এখনো অন্ধকারে। জেলায় ৭৪৫টি বৈদ্যুতিক খুঁটি ভেঙে গেছে। হেলে পড়েছে ৭৫৫টি। তার ছিড়ে গেছে প্রায় ১০ হাজার কিলোমিটার। তবে বিদ্যুৎ বিভাগের দাবি, সব গ্রাহকের সংযোগ পূনস্থাপনে লাগবে আরো তিনদিন।

ঝিনাইদহের ছ’টি উপজেলায় গত তিনদিন ধরে নেই বিদ্যুৎ। নেটওয়ার্ক ক্যাবল ছিড়ে যাওয়ায় বিচ্ছিন্ন ইন্টারনেট সংযোগ। জেলার বিভিন্ন অঞ্চলে দেখা দিয়েছে বিশুদ্ধ পানির অভাব। বিদ্যুৎ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী পরিতোষ চন্দ্র সরকার জানালেন, লোকবলের অভাবে মেরামতে সময় লাগছে। গ্রাহকের কাছে সময় চান আরো চারদিন।

খুলনার কয়রায় ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত সড়ক মেরামত, ভেঙ্গে পড়া গাছপালা সরিয়ে ফেলা বিদ্যুতের লাইন সচলের কাজ চলছে এখনো। সেনাবাহিনীর সহায়তায় ভেঙে যাওয়া বাঁধ মেরামত পুর্নবাসনের কাজ দ্রুত শুরু হবে বলে জানা গেছে।

মাগুরায় পল্লী বিদ্যুতের ৭০ হাজার গ্রাহক এখনো অন্ধকারে। জেলা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির দাবি, তাদের তিন থেকে চার কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে।

বাগেরহাটের কিছু এলাকা এখনো বিদ্যুৎ বিহীন। রামপাল শরণখোলাসহ বেশ কয়েকটি এলাকায় বাঁধ ভেঙে লবনপানি ঢুকে পড়েছে ফসলি জমিতে। এতে বিশুদ্ধ খাবার পানিরও সংকট দেখা দিয়েছে।

একই অবস্থা বরগুনা সদর উপজেলায়। তিন দিন ধরে বিদ্যুৎ নেই এই উপজেলার মাইঠা এলাকায়। এলাকাবাসীর অভিযোগ, বিদ্যুৎ অফিসে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও তারা কোন সমাধান পাননি।

এই বিভাগের আরো খবর

আরও ১১ জনপ্রতিনিধি বরখাস্ত

বরগুনা সংবাদদাতা: কর্মস্থলে...

বিস্তারিত
বেশি ভাড়া নেয়ায় শ্যামলী পরিবহণকে অর্থদন্ড

বগুড়া সংবাদদাতা: ৬০ ভাগ ভাড়া বৃদ্ধির...

বিস্তারিত
মৌসুমি ফল পরিবহন করবে ডাকঘর

অনলাইন ডেস্ক: ডাকঘরের বিশাল পরিবহন...

বিস্তারিত
করোনায় বগুড়ায় পোল্ট্রি শিল্পে ধস

বগুড়া সংবাদদাতা: করোনা ভাইরাসের...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *