ডিপিডিসি-ডেসকোর বিরুদ্ধে অস্বাভাবিক বিল করার অভিযোগ

প্রকাশিত: ১০:২০, ১০ জুন ২০২০

আপডেট: ০৫:৪৭, ১০ জুন ২০২০

মাবুদ আজমী: করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সাধারণ ছুটির সময় গ্রাহকদের কাছে অনুমাননির্ভর ও অস্বাভাবিক বিল পাঠিয়েছে বিদ্যুৎ বিভাগ। মিটার না দেখে যে বিল ধরিয়ে দেয়া হয়েছে তা স্বাভাবিক বিলের চেয়ে দশ থেকে বারো গুণ বেশি বলে গ্রাহকদের অভিযোগ। তবে বাড়তি বিল সমন্বয় করা হবে বলে জানালেন বিদ্যুত ও জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু। 

মিরপুরের বাসিন্দা গৃহিনী ফরিদা বেগম। বছরের প্রথম তিন মাসের বিদ্যুত বিল এসেছে ৫শ থেকে ৭শ টাকা। তবে এপ্রিল ও মে মাসে তাকে বিদ্যুৎ বিল  দেয়া হয়েঠে ৫ হাজার টাকা। 

গ্রাহকদের এমন অভিযোগ বেশি রাজধানীর দুই বিতরণ সংস্থা ঢাকা ইলেক্ট্রিক সাপ্লাই কোম্পানি-ডেসকো ও ঢাকা পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি-ডিপিডিসি’রি বিরুদ্ধে। যার মাসে গড়ে ৩শ’ টাকা বিল হয়, এপ্রিল মে মাসে তার আড়াই হাজার টাকা,  আর যার ৩ হাজার টাকা বিল হতো তাকে ধরিয়ে দেয়া হয়েছে ৫০ হাজার টাকার বিদ্যুত বিল। মিটার রিডিং না দেখেই ধারণার উপর এমন বিল ধরিয়ে দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ ভুক্তভোগীদের। 

গ্রাহকদের অভিযোগ সম্পর্কে বিদ্যুত ও জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী বললেন, করোনা সংক্রমনের কারণে বাড়ি বাড়ি গিয়ে মিটার রিডিং দেখতে পারা সম্ভব হয়নি। যাদের বেশি বিল এসেছে তা পরবর্তীতে সমন্বয় করা হবে বলে জানান তিনি।

এছাড়া করোনার কারণে জুন পর্যন্ত বিনা জরিমানায় বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করা যাবে বলে জানান বিদ্যুত প্রতিমন্ত্রী।
 

এই বিভাগের আরো খবর

স্বাস্থ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি বিএনপির

নিজস্ব প্রতিবেদক: স্বাস্থ্যখাতের...

বিস্তারিত
কলাবাগানে নারীর মরদেহ উদ্ধার, একজন আটক

নিজস্ব সংবাদদাতা: রাজধানীর কলাবাগান...

বিস্তারিত
৪৫ টাকার নীচে মিলছে না চাল

সুমন তানভীর: সর্বনিম্ন ৪৫ টাকা কেজির...

বিস্তারিত
একদিনে মৃত্যু আরো ৩৭, শনাক্ত ২৯৪৯

নিজস্ব প্রতিবেদক: গত ২৪ ঘন্টায় দেশে...

বিস্তারিত
নবরূপে সেজেছে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসগুলো

বিউটি সমাদ্দার: সারাক্ষণ সরগরম থাকতো...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *