নকল হ্যান্ড স্যানিটাইজারে সয়লাব বাজার

প্রকাশিত: ১০:১৭, ২২ জুন ২০২০

আপডেট: ০৬:৪৯, ২২ জুন ২০২০

ফররুখ বাবু: নকল হ্যান্ড স্যানিটাইজারে বাজার সয়লাব। প্রকাশ্যে উৎপাদন ও বিক্রি হচ্ছে এসব নকল পণ্য। রাজধানীর মিটফোর্ড রোডের বিভিন্ন মার্কেটে পানি, রং আর স্পিরিট দিয়ে  তৈরি স্যানিটাইজার। ক্ষতিকর রাসায়নিক থাকায় এগুলো ব্যবহারে মানুষের স্বাস্থ্য ঝুঁকি আরো বাড়ছে।

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে বাঁচতে জীবানুনাশক বিভিন্ন পণ্যের চাহিদা বেড়েছে। এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে নকল হ্যান্ড স্যানিটাইজার  তৈরি ও বিক্রি করছে এক শ্রেণীর অসাধু ব্যবসায়ী। আর এই কাজ চলছে দিনের আলোতে প্রকাশ্য রাস্তায়।

রাজধানীর মিটর্ফোড রোডে স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজের সামনে খালি বোতলে রং, পানি আর স্পিরিট মিশিয়ে  স্যানিটাইজার তৈরি হচ্ছে। আর তা বিক্রি হচ্ছে ফুটপাতে পসরা সাজিয়ে। 

স্যানিটাইজার  তৈরির সাথে জড়িত এই ব্যবসায়ী নিজেই স্বীকার করলেন নকল স্যানিটাইজার উৎপাদনের কথা। আর নকল পণ্যের কথা জেনে ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে ক্রেতা ও পথচারিরা। 

মিটফোর্ড রোডের রেজা মার্কেটের ভেতরেও দেখা মেলে এমন নকল স্যানিটাইজার উৎপাদন ও বিক্রির দৃশ্য। যা ছড়িয়ে পড়েছে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায়। 

এসব পণ্য মানবদেহের জন্য ক্ষতিকর বলে জানিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসী বিভাগের ডীন ড. এস এম আবদুর রহমান।

স্বাস্থ্য সুরক্ষার নামে প্রকাশ্যে স্বাস্থ হানকির নকল পণ্য  তৈরি ও বিক্রি হলেও সংশ্লিষ্টদের কোন তৎপরতা দেখা যায়না।

নকল পণ্যের বিরুদ্ধে অভিযান জোরদার করার কথা জানিয়েছেন, এআইজি  সোহেল রানা (মিডিয়া) এবং জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের পরিচালক শামীম আল মামুন।

এই বিভাগের আরো খবর

সাহেদের পাসপোর্ট জব্দ 

নিজস্ব সংবাদদাতা: দিন যত যাচ্ছে...

বিস্তারিত
বেরিয়ে আসছে সাহেদের আরো অপকর্ম

আশিক মাহমুদ: আলোচিত রিজেন্ট গ্র“পের...

বিস্তারিত
চাকরি দেয়ার নামে প্রতারণার ফাঁদ 

কাজী ফরিদ: করোনার কারণে বাড়ছে...

বিস্তারিত
১৪ ঠিকাদারের সঙ্গে কাজ না করার নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক: দুর্নীতি দমন...

বিস্তারিত
সাহেদের ব্যাংক হিসাব জব্দ

নিজস্ব প্রতিবেদক: রিজেন্ট হাসপাতাল...

বিস্তারিত
ঠিকাদার মিঠুর চিঠি গ্রহণ করেনি দুদক

নিজস্ব সংবাদদাতা: স্বাস্থ্যখাতের...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *