জনপ্রতিনিধিদের অনিয়ম অনুসন্ধান করবে দুদক

প্রকাশিত: ০২:০০, ২৭ জুন ২০২০

আপডেট: ০৬:৫১, ২৭ জুন ২০২০

নিজস্ব সংবাদদাতা: দেশের বিভিন্ন জেলার ৯৪ জনপ্রতিনিধিদের (ইউপি চেয়ারম্যান, মেম্বার) বিরুদ্ধে অনুসন্ধানের সিদ্ধান্ত নিয়েছে  দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের পর সরকারের  বিভিন্ন সামাজিক নিরাপত্তামূলক কর্মসূচির প্রকৃত উপকারভোগীদের বঞ্চিত করে সুবিধাদি আত্মসাতের অভিযোগ রয়েছে এসব জনপ্রতিনিধিদের বিরুদ্ধে।

কমিশনের অভিযোগ, ব্যবস্থাপনা কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত মহাপরিচালক এ কে এম সোহেলের নেতৃত্বাধীন যাচাই-বাছাই কমিটির সুপারিশের প্রেক্ষিতে কমিশন এই ৯৪ জনপ্রতিনিধির বিরুদ্ধে অনুসন্ধানের সিদ্ধান্ত নেয়। এসব জনপ্রতিনিধিদের  বিরুদ্ধে সরকারি ত্রাণ আত্মসাৎ, ভুয়া মাস্টাররোলের মাধ্যমে সরকারি চাল আত্মসাৎ, সরকারি ১০ টাকা কেজি দরের চাল বিতরণ না করে কালোবাজারে বিক্রি, জেলেদের  ভিজিএফ এর চাল আত্মসাৎ, মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে নগদ অর্থ সহায়তা কর্মসূচির  সুবিধাভোগীদের তালিকা প্রণয়নে স্বজনপ্রীতি ও অনিয়ম,  উপকারভোগীদের ভুয়া তালিকা প্রণয়ন করে খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির খাদ্যসামগ্রী আত্মসাৎ ইত্যাদি। 

এই ৯৪ জন প্রতিনিধিদের মধ্যে ৩০ জন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এবং ৬৪ জন ইউপি সদস্য রয়েছেন। এসব জনপ্রতিনিধিদের ইতোমধ্যে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় সাময়িকভাবে বরখাস্ত করেছে। এ বিষয়ে দুদক চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ গণমাধ্যমকে জানান, ইতোমধ্যে কমিশন সরকারের সামাজিক নিরাপত্তামূলক কর্মসূচির বিভিন্ন দুর্নীতির অভিযোগে ২১টি মামলা দায়ের করেছে।


 

এই বিভাগের আরো খবর

সাহেদের পাসপোর্ট জব্দ 

নিজস্ব সংবাদদাতা: দিন যত যাচ্ছে...

বিস্তারিত
বেরিয়ে আসছে সাহেদের আরো অপকর্ম

আশিক মাহমুদ: আলোচিত রিজেন্ট গ্র“পের...

বিস্তারিত
চাকরি দেয়ার নামে প্রতারণার ফাঁদ 

কাজী ফরিদ: করোনার কারণে বাড়ছে...

বিস্তারিত
১৪ ঠিকাদারের সঙ্গে কাজ না করার নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক: দুর্নীতি দমন...

বিস্তারিত
সাহেদের ব্যাংক হিসাব জব্দ

নিজস্ব প্রতিবেদক: রিজেন্ট হাসপাতাল...

বিস্তারিত
ঠিকাদার মিঠুর চিঠি গ্রহণ করেনি দুদক

নিজস্ব সংবাদদাতা: স্বাস্থ্যখাতের...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *