করোনার ভুয়া রিপোর্ট: জেকেজির ৪ জন কারাগারে

প্রকাশিত: ১০:২৯, ২৮ জুন ২০২০

আপডেট: ০৫:৫০, ২৮ জুন ২০২০

সুমন তানভীর: করোনার পরীক্ষার ভূয়া রিপোর্ট দেয়ার জন্য অভিযুক্ত প্রতিষ্ঠান জেকেজি’র প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আরিফুল চৌধুরীসহ চারজনকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত। এর আগে, তেজগাও থানায় করা একটি মামলার রিমান্ড শেষে, পুলিশ আরিফুল ও তার সহযোগী সাঈদ চৌধুরিকে আদালতে হাজির করে নতুন দুটি মামলায় আরো তিনদিনের রিমান্ড আবেদন করেন। তবে, আবেদন নামঞ্জুর করে তাদের জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেয় আদালত। এদিকে, প্রতিষ্ঠানটি গড়ে তোলার পেছনে মূল উদ্যেক্তা হিসেবে পরিচিত আরিফুল চৌধুরির স্ত্রী ডাক্তার সাবরিনা চৌধুরির বিরুদ্ধে এখনো কোন অভিযোগ আনা হয়নি। 

জোবেদা খাতুন সর্বজনীন স্বাস্থ্যসেবার মূল উদ্যেক্তা হিসেবে পরিচিত ডাক্তার সাবরিনা আরিফ চৌধুরী। গত ৩ জুন তিতুমীর কলেজ স্টাফদের বিরুদ্ধে হামলার অভিযোগ এনে করোনাকালে কিভাবে তার প্রতিষ্ঠান কাজ করছে তার বর্ণনা দেন একভাবে,  তবে প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ ওঠার পর সুর পাল্টেছেন তিনি।

পুলিশ জানায় গত ২২জুন করোনা পরীক্ষার ভূয়া সার্টিফিকেট দেওয়ার অভিযোগে হুমায়ুন কবির ও তানজীনা নামের দুই জনের বিরুদ্ধে মিরপুরের এক বাসিন্দা মামলা করেন।  তারা উভয়েই স্বামী-স্ত্রী এবং জেকেজির সাবেক কর্মচারী বলে পুলিশ জানায়। এই দুইজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ তদন্ত করতে গিয়ে জেকেজির অপকর্মটিও সামনে চলে আসে।  

জেকেজির প্রতারণার শিকার হওয়া কয়েকজন জানান পরীক্ষার জন্য প্রতিষ্ঠানটির সরকারি অনুমতি থাকায় সার্টিফিকেটের খুদ খুজে বের করা কঠিন ছিল। 

পুলিশ বলছে নমুনা সংগ্রহ করে ল্যাবে না পাঠিয়ে অফিসের কম্পিউটারে বসে নেভেটিভ-পজেটিভ নির্ধারণ করার মতো গুরুতর অভিযোগ রয়েছে প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে। গ্রেফতার হওয়ার পর হুমায়ুন ও তানজীনা এ বিষয়ে আদালতে ১৪৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন। 

জেকেজির বিরুদ্ধ প্রমান পাওয়ার পর পুলিশ প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী ও সাবরিনা চৌধুরির স্বামী আরিফুল চৌধুরীসহ আরো চারজনকে গ্রেপ্তার করে। তবে, সাবরিনা চৌধুরির বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ আনা হয়নি। এদিকে, গ্রেপ্তারের পরপরই থানায় হামলা করে আরিফুল চৌধুরীর অনুগতরা। অন্যদিকে, থানা হাজতে থাকাকালীন আরিফুল চৌধুরীর বিরুদ্ধে বেপরোয়া আচরণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। 

শনিবার দুইদিনের রিমান্ড শেষে আরিফুল চৌধুরিসহ অন্য আসামীদের আদালতে হাজির করে আবারো রিমান্ডের আবেদন করা হলে, সবাইকে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেয় আদালত।  

এই বিভাগের আরো খবর

সাহেদের পাসপোর্ট জব্দ 

নিজস্ব সংবাদদাতা: দিন যত যাচ্ছে...

বিস্তারিত
বেরিয়ে আসছে সাহেদের আরো অপকর্ম

আশিক মাহমুদ: আলোচিত রিজেন্ট গ্র“পের...

বিস্তারিত
চাকরি দেয়ার নামে প্রতারণার ফাঁদ 

কাজী ফরিদ: করোনার কারণে বাড়ছে...

বিস্তারিত
১৪ ঠিকাদারের সঙ্গে কাজ না করার নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক: দুর্নীতি দমন...

বিস্তারিত
সাহেদের ব্যাংক হিসাব জব্দ

নিজস্ব প্রতিবেদক: রিজেন্ট হাসপাতাল...

বিস্তারিত
ঠিকাদার মিঠুর চিঠি গ্রহণ করেনি দুদক

নিজস্ব সংবাদদাতা: স্বাস্থ্যখাতের...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *