২০০ শিক্ষার্থীর সার্টিফিকেট নষ্ট!

প্রকাশিত: ০৪:৫৩, ০৪ জুলাই ২০২০

আপডেট: ০৯:৫৪, ০৪ জুলাই ২০২০

আশিক মাহমুদ: দুইশ’ শিক্ষার্থীর সার্টিফিকেট ও মূল্যবান জিনিসপত্র খোঁয়া গেছে। ছাত্রাবাসের মালিকরা মূল্যবান জিনিসপত্র বিক্রি করেছে এবং কাগজপত্র ফেলে দিয়েছে বলে থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীরা। 

শিক্ষার্থীদের সার্টিফিকেটসহ মূল্যবান মালামাল ফেলে দেয়ার অভিযোগে শিক্ষার্থীদের করা মামলায় দুই দিন পেরিয়ে গেলেও এখনও বাড়ির মালিক মুজিবুল হক ওরফে কাঞ্চন গ্রেফতার হয়নি। একই অভিযোগে গ্রেফতার আলিফ ছাত্রা বাসের মালিক খোরশেদ আলম রিমান্ডে রয়েছে। 

মামলার তদন্ত সংস্লিষ্টরা জানান, রিমান্ডে খোরশেদ অভিযোগ স্বীকার করেছে। আর অভিযুক্ত বাড়ির মালিক কাঞ্চনকে ধরতে অভিযান চালাচ্ছে তারা। 

থানায় খবর নিয়ে জানা গেছে, সার্টিফিকেট ও মূল্যবান জিনিসপত্র খোঁয়া যাওয়ার অভিযোগে রাজধানীর কলাবাগান থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছে প্রায় ২০০ শিক্ষার্থী। 

করোনার কারণে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণার পরপরই মূল্যবান জিনিসপত্র রেখে ঢাকা ছেড়েছিলো অধিকাংশ শিক্ষার্থী। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এখনো বন্ধ, তাই তারা আর ঢাকায় ফিরতে পারেনি। সেই সুযোগে বাড়ি ও ছাত্রাবাসের মালিকরা শিক্ষার্থীদের ল্যাপটপসহ মূল্যবান জিনিসপত্র বিক্রি ও কাগজপত্রসহ কাঁথা বালিশ আসবাবপত্র বাইরে ফেলে দেয়। এরমধ্যে অনেক শিক্ষার্থীর সার্টিফিকেটও ছিল। 

সাগর নামের এক শিক্ষার্থী জানান, গত তিন মাস ধরে সে ছাত্রাবাসের মালিককে ভাড়া নিয়ে আসছেন। কিন্তু জিনিসপত্র ফেলে দেয়ার আগে তিনি কিছুই জানাননি। এখন কিছুই খুঁজে পাচ্ছি না। 

রানা বলেন, আমার ট্যাংকে ল্যাপটপ ও বাইরে কাঁথা বালিসহ অনেক কিছু ছিলো। কিছুই পাচ্ছি না। ট্যাংক ভেঙ্গে ল্যাপটপ সহ সব বের করে ট্যাংক ফেলে রেখেছে। আমি এদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চায়।

ডিএমপির সিনিয়র সহকারী পুলিশ কশিশনার (নিউমার্কেট জোন)  আবুল হাসান বলেন, আমরা আসামিদের খুঁজছি। দূতই তাদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে। এছাড়াও বাড়িওয়ালাদের হয়রানির শিকার সকল শিক্ষার্থীকে থানায় অভিযোগ দেয়ার আহ্বানও জানিয়েছেন পুলিশ। 
 

এই বিভাগের আরো খবর

ক্যাম্পে যোগ দেয়া চার ফুটবলারের করোনা পজিটিভ

ক্রীড়া প্রতিবেদক: অক্টোবরে বিশ্বকাপ...

বিস্তারিত
দ্বিতীয় ধাপে ‘নামকরা’ অনলাইনগুলোর নিবন্ধন

নিজস্ব প্রতিবেদক: তথ্যমন্ত্রী ডক্টর...

বিস্তারিত
গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৩৩, শনাক্ত ২৬৫৪

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রাণঘাতী...

বিস্তারিত
তিন কারণে চামড়ার বাজারে বিপর্যয়

মেহের মণি: এ বছর তিন কারণে কাচা চামড়ার...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *