করোনা পরীক্ষায় পদে পদে ভোগান্তি 

প্রকাশিত: ০৯:৪৪, ১০ জুলাই ২০২০

আপডেট: ০২:৪৯, ১০ জুলাই ২০২০

আশিক মাহমুদ: করোনার পরীক্ষা করাতে পদে পদে ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে মানুষকে। সরকারি-বেসরকারি ল্যাবরেটরির সংখ্যা বাড়লেও কমছে নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষার সংখ্যা। কিটের স্বল্পতায় বিভিন্ন বুথে সপ্তাহে দুই বা তিনদিন নমুনা নেয়া হচ্ছে। রাজধানীর বিভিন্ন হাসপাতালেও করোনা পরীক্ষা করাতে আসা রোগীদের দীর্ঘ সারি। 

রাজধানীর মুগদা জেনারেল হাসপাতালের করোনা টেস্ট করাতে আসা রোগীদের এই দীর্ঘ লাইন নিত্য দিনের। কেউ এসেছেন মধ্যরাতে কেউ বা ভোরো। অনেকেই ঘুরছেন এক সপ্তাহ ধরে।

জানা গেছে, কিছুদিন আগেও এখানে প্রতিদিন নমুনা সংগ্রহ হতো প্রায় ২’শ জনের। গত কয়েকদিন তা নেমেছে মাত্র ৭৫ জনে। অনেকেই ভোর থেকে লাইনে দাঁড়িয়েও নমুনা দেয়ার সুযোগ পাচ্ছেনা না। এ নিয়ে হাসপাতালের স্টাফদের সাথে রোগীদের বাকবিতন্ডাও হচ্ছে প্রতিদিন। 

রোগীদের ভোগান্তির এই চিত্র রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন করোনা পরীক্ষা কেন্দ্রে। হাসপাতালের বাইরে বুথে নমুনা সংগ্রহও কমে গেছে। খোঁজ নিয়ে জানা যায়। কিছুদিন আগেও এসব বুথে সপ্তাহে ৬ দিন নমুনা সংগ্রহ করা হতো। কিন্তু এখন নমুনা সংগ্রহ হয় কোন বুথে তিন দিন কোন বুথে মাত্র দু’দিন। 

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হিসেবে, দেশে করোনা পরীক্ষার ল্যাব এখন ৭৩টি। কিন্তু বন্যা, টেস্টের ফি  নির্ধারণ এবং কিট সংকটের কারণে পরীক্ষা কম হচ্ছে বলে জানান, স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক ডা. আবু ইউসুফ ফকির। 

তিনি বলেন, জটিলতা কাটিয়ে প্রতিদিন ২০ হাজারে টেস্ট করার চেষ্টা করা হচ্ছে।
 

এই বিভাগের আরো খবর

শতভাগ অনলাইন করেও কালোবাজারে ট্রেনের টিকিট

তারেক সিকদার: শতভাগ অনলাইন করার পরেও...

বিস্তারিত
দুদকের সুপারিশ মানেনি স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

নিজস্ব প্রতিবেদক : স্বাস্থ্যখাতের...

বিস্তারিত
বাস টার্মিনালে নেই ঈদযাত্রার ব্যস্ততা

নিজস্ব প্রতিবেদক : এবার ঈদে ঘরমুখী...

বিস্তারিত
দেশে করোনা ভ্যাকসিন পরীক্ষার অপেক্ষা

নিজস্ব প্রতিবেদক : চীনের সিনোভেক...

বিস্তারিত
পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়েও অনলাইন ক্লাস শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক : করোনা পরিস্থিতিতে...

বিস্তারিত
কুষ্টিয়ায় হরিজন সম্প্রদায়ের জমি দখল! 

কুষ্টিয়া সংবাদদাতা: কুষ্টিয়ায় হরিজন...

বিস্তারিত
বিশ্বনেতৃত্বে আমেরিকার আসন নড়বড়ে!

ফারহীন ইসলাম টুম্পাঃ করোনাভাইরাস...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *