করোনায় শিশুদের টিকাদান কমেছে

প্রকাশিত: ০৭:৩৮, ১৬ জুলাই ২০২০

আপডেট: ০৩:০৯, ১৬ জুলাই ২০২০

ইমদাদুল্লাহ বাবু: করোনার কারণে ব্যাহত হচ্ছে শিশুদের টিকা দান কর্মসূচি। সংক্রমণের ভয়ে অনেক অভিভাবকই সন্তানদের টিকা কেন্দ্রে না নেয়ায় গেলো তিন মাসে অনেক শিশুর টিকা দেয়া হয়নি। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হিসেব মতে করোনার কারণে প্রায় ৪৮ শতাংশ শিশু সময়মত টিকা পায়নি। সময়মত টিকা না দিলে শিশুদের স্বাস্থ্যঝুঁকি সৃষ্টি হবে বলে আশংকা- বিশেষজ্ঞদের। তবে বাদপড়া শিশুদের টিকা দিতে বিশেষ কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে, স্বাস্থ্য বিভাগ। 

রাজধানীর মোহাম্মদপুর টিকা কেন্দ্র। স্বাভাবিক সময়ে এখানে প্রতিদিন গড়ে দেড়শো’ শিশু টিকা নিতো, সেখানে এখন মাত্র ৪০ থেকে ৮০ জন শিশু টিকা নিচ্ছে। 

একই চিত্র দেশের প্রায় সবগুলো টিকা কেন্দ্রের। অভিভাবকরা বলছেন, করোনা ভাইরাসের কারণে টিকা কেন্দ্রে আসতে তারা স্বাচ্ছন্দ বোধ করেন না।

মোহাম্মদপুর ফার্টিলিটি সার্ভিসেস অ্যান্ড ট্রেনিং সেন্টারের শিশু বিভাগের প্রধান ডা. মহিউদ্দিন আহমেদ বলেন, করোনা ভাইরাস সংক্রমণ আতঙ্কে টিকা কেন্দ্রে আসা শিশুর সংখ্যা কমেছে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের তথ্যমতে, ধনুষ্টংকার, ডিপথেরিয়া, হুপিং কাশি, পোলিও, যক্ষ্মা, হাম ও রুবেলা, হেপাটাইটিস-বি ও ইনফ্লুয়েঞ্জা ৮ ধরনের রোগ প্রতিরোধের জন্য শিশু জন্মের পর থেকে ১৫ মাসেরে মধ্যে ৬টি টিকা দেয়া হয়। চলতি বছর ৩৭ লাখেরও বেশি শিশুকে টিকা দেয়ার লক্ষ্য ছিল। কিন্তু করোনা সংক্রমণের কারণে মার্চ মাস থেকে গেলো তিন মাস টিকাদান অস্বাভাবিক হারে কমে যায়।   

বারডেম হাসপাতালের শিশু বিভাগের প্রধান ডা. আবিদ হোসেন মোল্লা বলেন, সময়মত টিকা না দিলে শিশুদের স্বাস্থ্য ঝুঁকি তৈরি হবে।

স্বাস্থ্য বিভাগের সম্প্রসারিত টিকাদান কর্মসূচির পরিচালক শামসুল হক জানিয়েছেন, পর্যাপ্ত টিকা মজুদ রয়েছে। আগামী কয়েক মাসের মধ্যে বাদপড়া সব শিশুকে টিকা দেয়ার কাজ শেষ হবে। শিশুদের টিকা কেন্দ্রে নিয়ে যেত অভিভাবকদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

টিকা কর্মসূচির অবস্থা

টিকার আওতাধীন শিশু             : প্রায় সাড়ে ৩৭ লাখ

করোনার আগে টিকার কভারেজ   : ৯৪.২০ % (বিসিজি)
                                        ৯১.৩০ % (এমআর প্রথম ডোজ)
                                        ৯৬.৭০ % (এমআর দ্বিতীয় ডোজ)

করোনাকালীন টিকার কভারেজ    : ৫২.০০ % (বিসিজি)
                                       ৫৪.৯০ % (এমআর প্রথম ডোজ)
                      ৬০.২০ % (এমআর দ্বিতীয় ডোজ)


সূত্র: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

এই বিভাগের আরো খবর

দেশে যক্ষায় প্রতিদিন ১০৭ জনের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশে এখনো প্রতিদিন...

বিস্তারিত
কলা যখন খাওয়া ঠিক নয়

অনলাইন ডেস্ক: বার মাস পাওয়া যায় এমন...

বিস্তারিত
ডায়াবেটিস ও কোলেস্টরল নিয়ন্ত্রণে ‘করলা’

অনলাইন ডেস্ক: করলা তিতা স্বাদযুক্ত...

বিস্তারিত
ক্যান্সার  প্রতিরোধে পেঁয়াজের চা

নিজস্ব প্রতিবেদক: শরীর সুস্থ রাখতে...

বিস্তারিত
অতিরিক্ত দুশ্চিন্তায় যে ক্ষতি হতে পারে

অনলাইন ডেস্ক: দুশ্চিন্তা কম বেশি আমরা...

বিস্তারিত
রক্তে কোলেস্টরল কমায় ভুট্টা

অনলাইন ডেস্ক: ভুট্টা একটি দানাদার...

বিস্তারিত
রক্তে অতিরিক্ত চর্বি জমলে করণীয়

অনলাইন ডেস্ক: কোলেস্টেরল হলো রক্তের...

বিস্তারিত
‘বাদাম’ যেসব রোগ দূর করে

অনলাইন ডেস্ক: পুষ্টিগুণের দিক থেকে...

বিস্তারিত
অনিদ্রা দূর করতে যা যা খাবেন

অনলাইন ডেস্ক: সারাদিন পরিশ্রম শেষে...

বিস্তারিত
স্ট্রোকের ঝুঁকি কমায় রুই মাছ

অনলাইন ডেস্ক: আমাদের দেশের গ্রাম ও...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *