লেবাননে বিস্ফােরণে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর ২১ সদস্য আহত

প্রকাশিত: ১০:১৩, ০৫ আগস্ট ২০২০

আপডেট: ০১:১৪, ০৫ আগস্ট ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক: লেবাননের রাজধানী বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনায় বাংলাদেশ নৌবাহিনীর ২১ সদস্য আহত হয়েছে। তারা শান্তি রক্ষা মিশনে দায়িত্ব পালন করছিলেন। আহতদের হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর আইএসপিআর এ তথ্য জানিয়েছে।

নৌবাহিনী জানিয়েছে, জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে মেরিটাইম টাস্কফোর্সের অধীনে বাংলাদেশ নৌবাহিনী জাহাজ ‘বিজয়’ এ ছিলেন তারা। আহত অন্যদের ইউনিফিলের তত্ত্বাবধানে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে হেলিকপ্টার বা অ্যাম্বুলেন্সে করে হামুদ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বর্তমানে তারা শঙ্কামুক্ত। শান্তিরক্ষা মিশন ইউনিফিলের সার্বিক তত্ত্বাবধানে আহত নৌসদস্যদের চিকিৎসা চলছে।

নৌবাহিনী জানিয়েছে, এ দুর্ঘটনায় নৌবাহিনী জাহাজ বিজয়ের বিস্তারিত ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নিরূপণ করা হচ্ছে। এ বিষয়ে নৌবাহিনী জাহাজ, ইউনিফিল সদর দপ্তর ও বৈরুতে বাংলাদেশি দূতাবাসের সঙ্গে নৌবাহিনী সদর দপ্তরের সার্বক্ষণিক যোগাযোগ অব্যাহত রয়েছে। ইউনিফিল হেড অব মিশন এবং ফোর্স কমান্ডার ও মেরিটাইম টাস্কফোর্স কমান্ডার সার্বিক পরিস্থিতি নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছেন।

বিস্ফোরণের অব্যবহিত পরই বৈরুতে নিযুক্ত বাংলাদেশি রাষ্ট্রদূত মেজর জেনারেল জাহাঙ্গীর আল মোস্তাহিদুর রহমান সরেজমিনে বানৌজা বিজয় পরিদর্শন করেন এবং আহত ব্যক্তিদের হাসপাতালে স্থানান্তর ও যথাযথ চিকিৎসা প্রদানে প্রয়োজনীয় সকল প্রকার সহযোগিতা করেন।

২০১০ সাল থেকে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর যুদ্ধজাহাজ লেবাননে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে অংশগ্রহণ করে আসছে। ভূ-মধ্যসাগরে মাল্টিন্যাশনাল মেরিটাইম টাস্কফোর্সের সদস্য হিসেবে বর্তমানে নৌবাহিনীর যুদ্ধজাহাজ ‘বিজয়’ ইউনিফিলে বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠায় নিয়োজিত রয়েছে। জাহাজটি লেবাননের ভূ-খণ্ডে অবৈধ অস্ত্র এবং গোলাবারুদ অনুপ্রবেশ প্রতিহত করতে দক্ষতার সঙ্গে কাজ করে চলেছে। পাশাপাশি লেবাননি জলসীমায় মেরিটাইম ইন্টারডিকশন অপারেশন, সন্দেহজনক জাহাজ ও এয়ারক্রাফটের ওপর গোয়েন্দা নজরদারি, দুর্ঘটনা কবলিত জাহাজে উদ্ধার তৎপরতা এবং লেবানিজ নৌসদস্যদের প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ প্রদানের কাজ করে যাচ্ছে বাংলাদেশ নৌবাহিনী।

মঙ্গলবার বিকেলে বন্দরের কাছে একটি গুদামে স্মরণকালের ভয়াবহ এই বিস্ফোরণ ঘটে। প্রথম বিস্ফোরণের কয়েক মিনিট পরই দ্বিতীয় বিস্ফোরণ হয়।

গুদামটিতে সাড়ে ২৭শ’ টন এমোনিয়াম নাইট্রেড ৬ বছর ধরে মজুদ ছিলো। দেশটির ন্যাশনাল নিউজ এজেন্সি বন্দরের গুদামে প্রথমে আগুন লাগার কথা জানায়। লেবাননের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, মজুদ করা অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট থেকেই বিস্ফোরণ ঘটে। ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা তাৎক্ষনিকভাবে আগুন নেভানোর কাজ শুরু করে।

বিস্ফোরণে কেঁপে উঠে রাজধানীর বেশ কিছু এলাকা। সাবেক প্রধানমন্ত্রী সাদ হরিরির সদর দপ্তরসহ অনেক ভবন এতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বাড়ির ছাউনি, জানালার কাঁচ ও বেলকনি ভেঙে আহত হয়েছে অন্তত চার হাজার মানুষ। এপর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৭৮ জনের। ধ্বংসস্তূপের নিচে আটাকা পড়েছেন অনেকে।  

এই বিভাগের আরো খবর

আবার ওয়াসার এমডি হতে যাচ্ছেন তাকসিম!

নিজস্ব প্রতিবেদক: আবারও ঢাকা ওয়াসার...

বিস্তারিত
‘ভবন নির্মাণ আইন আছে, প্রয়োগ নেই’

নিজস্ব প্রতিবেদক: বৃহত্তর ঢাকার...

বিস্তারিত
কমতে শুরু করছে পেঁয়াজের দাম 

নিজস্ব প্রতিবেদক: পেঁয়াজের দাম কমতে...

বিস্তারিত
সীমান্তে আটকে থাকা ভারতীয় পেঁয়াজ ঢুকছে

অনলাইন ডেস্ক: অবশেষে স্থলবন্দগুলোতে...

বিস্তারিত
আজ চট্টগ্রামে আহমদ শফীর দাফন

নিজস্ব প্রতিবেদক: হেফাজতে ইসলামের...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *