তিন কারণে চামড়ার বাজারে বিপর্যয়

প্রকাশিত: ০২:২০, ০৫ আগস্ট ২০২০

আপডেট: ০৫:০১, ০৫ আগস্ট ২০২০

মেহের মণি: এ বছর তিন কারণে কাচা চামড়ার বাজারে বিপর্যয় দেখা দেয় বলে মনে করছেন এ খাতের বিশ্লেষকরা। এগুলো হলো- চাহিদা কম, সরবরাহ বেশি এবং আড়ৎদাররা পূর্বের বকেয়া টাকা না পাওয়া। এ বছর কত পশু কোরবানী হয়েছে তা নিয়ে সরকারি ভাষ্য ও ট্যানারি মালিকদের রয়েছে ভিন্ন মত।

ঈদের ছুটি শেষে সরকারের প্রাণি সম্পদমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম জানিয়েছিলেন, করোনা এবং বন্যার মধ্যেও এবছর প্রায় এক কোটি পশু কোরবানি হয়েছে। তবে এই হিসাবের সাথে ট্যানারি এসোসিয়েশনের দ্বিমত রয়েছে। এসোসিয়েশন বলছে, এবার ৭০ থেকে ৭৫ লাখ পশু কোরবানি হয়েছে। মন্ত্রণালয় ও ট্যানারি এসোসিয়েশনের হিসাবের মধ্যে পার্থক্য প্রায় ৩০ লাখের। ফলে চামড়ার বাজারে প্রকৃতপক্ষে সরবরাহ কত তা নিয়ে রয়েছে ধোঁয়াশা।

কাঁচা চামড়ার আড়তদারদের অভিযোগ, ট্যানারিগুলো বকেয়া পরিশোধ না করায় অর্থ সংকটে এবার চামড়া কম কেনা হয়েছে।

ট্যানারি এসোসিয়েশনের দাবি, আড়তদারদের বকেয়া ছিল একশ ২০ কোটি টাকা। এর অর্ধেকের বেশি পরিশোধ হয়েছে। ব্যাংক ঋণ না পাওয়া বাকীটা পরিশোধ করতে পারেনি ২২টি ট্যানারি।

কাঁচা চামড়া ও চামড়াজাত পণ্য নিয়ে কাজ করা গবেষকরা বলছে, পুরোনো চামড়া জমে থাকায় কাঁচা চামড়ার চাহিদা কম। আর সরবরাহ বেড়ে যাওয়ায় বিপর্যয় হয়েছে।

আর ট্যানারিগুলোতে উৎপাদন সক্ষমতা থাকলেও আর্থিক সংকটসহ নানা সমস্যায়  উৎপাদন করা যাচ্ছে না  মনে করেন শিল্প উদ্যোক্তরা।
 

এই বিভাগের আরো খবর

আবার ওয়াসার এমডি হতে যাচ্ছেন তাকসিম!

নিজস্ব প্রতিবেদক: আবারও ঢাকা ওয়াসার...

বিস্তারিত
‘ভবন নির্মাণ আইন আছে, প্রয়োগ নেই’

নিজস্ব প্রতিবেদক: বৃহত্তর ঢাকার...

বিস্তারিত
কমতে শুরু করছে পেঁয়াজের দাম 

নিজস্ব প্রতিবেদক: পেঁয়াজের দাম কমতে...

বিস্তারিত
সীমান্তে আটকে থাকা ভারতীয় পেঁয়াজ ঢুকছে

অনলাইন ডেস্ক: অবশেষে স্থলবন্দগুলোতে...

বিস্তারিত
আজ চট্টগ্রামে আহমদ শফীর দাফন

নিজস্ব প্রতিবেদক: হেফাজতে ইসলামের...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *