পদ্মা সেতুর নির্মাণ কাজে ধীরগতি

প্রকাশিত: ১০:৩৯, ১৪ আগস্ট ২০২০

আপডেট: ১১:১৮, ১৪ আগস্ট ২০২০

পার্থ রহমান: একদিকে করোনা, অন্যদিকে তীব্র খরস্রোত, এই দুই কারণে গতি কমেছে পদ্মা সেতুর নির্মাণ কাজে। এইসময় কাজ থেমে না থাকলেও জনবল কমেছে অর্ধেক। জুলাইয়ের মধ্যে পদ্মার ৪১টি স্প্যান বসানোর পুরো কাজ শেষ হওয়ার কথা থাকলেও নদীর তীব্র স্রোতের কারণে তাও সম্ভব হয়নি। ফলে আগামি বছরের জুনে সেতু উদ্বোধন করার পরিকল্পনা থাকলেও তা সম্ভব হবে না বলে জানিয়েছেন পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্প পরিচালক মো: শফিকুল ইসলাম । 

ছয় কিলোমিটার দীর্ঘ পদ্মা সেতু এখন দৃশ্যমান সাড়ে চার কিলোমিটারেরও বেশী। তবে করোনা মধ্যে দেশের অন্যান্য বড় প্রকল্পের মতো পদ্মা সেতুর নির্মাণ কাজেও ব্যাঘাত ঘটে। এই প্রকল্পে পাঁচ হাজার শ্রমিক কাজ করলেও এখন কাজ করছে মাত্র দুই হাজার। করোনার কারনে অনেক বিদেশী বিশেষজ্ঞ কাজে যোগ দিতে পারেনি। করোনাকালীন সময়ে পাঁচটি স্প্যান বসেছে পদ্মা সেতুতে। এ পর্যন্ত ৩১টি স্প্যান বসানো হয়েছে, আর বাকি দশটি। এরমধ্যে কাজে বাধ সেধেছে পদ্মার তীব্র স্রোত।

শরীয়তপুরের জাজিরা প্রান্তে স্প্যানের ওপর যানবাহন চলাচলের জন্য রোডওয়ে ডেক তৈরির কাজ চলছে। যা দৃশ্যমান হয়েছে প্রায় এক কিলোমিটার। করোনার কারণে এই কাজেও ধীরগতি। পরিকল্পনা অনুযায়ী আগামী জুনে পুরো সেতুর নির্মাণ কাজ শেষ করা নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে। মোট ৩০ হাজার ১৯৩ কোটি টাকার পদ্মা সেতু প্রকল্পের মাওয়া ও জাজিরা অংশের সংযোগ সড়ক, টোল ঘরসহ অন্যান্য কাজ এরই মধ্যে শেষ হয়েছে।


 

এই বিভাগের আরো খবর

পেঁয়াজ আমদানিতে ৫ শতাংশ শুল্ক প্রত্যাহার

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রধানমন্ত্রীর...

বিস্তারিত
এবার অনলাইনে মিলবে টিসিবির পেঁয়াজ

নিজস্ব প্রতিবেদক: এখন থেকে অনলাইনে...

বিস্তারিত
সিঙ্গাপুরেই ফিরে গেলেন ড. বিজন শীল

নিজস্ব সংবাদদাতা: বাংলাদেশ ছেড়ে...

বিস্তারিত
আবার ওয়াসার এমডি হতে যাচ্ছেন তাকসিম!

নিজস্ব প্রতিবেদক: আবারও ঢাকা ওয়াসার...

বিস্তারিত
‘ভবন নির্মাণ আইন আছে, প্রয়োগ নেই’

নিজস্ব প্রতিবেদক: বৃহত্তর ঢাকার...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *