ঢাকা, শুক্রবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৭, ১ পৌষ ১৪২৪, ২৬ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯
শিরোনামঃ
শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস আজ  রায়েরবাজার বধ্যভূমিতে সকল যুদ্ধাপরাধীদের বিচার দাবি ওয়ান প্লানেট সম্মেলন শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী জলবায়ু খাতে ৭ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগের পরিকল্পনা সরকারের সৌদি আরবে জিয়া পরিবারের বিপুল অর্থ, তদন্ত করবে দুদক পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র সংসদ নির্বাচন দাবিতে সোচ্চার হোন থার্টিফার্স্ট নাইটে উন্মুক্ত স্থানে কোনো অনুষ্ঠান নয়: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শিক্ষা অধিদপ্তর-বোর্ড ও বিজি প্রেস থেকে প্রশ্ন ফাঁস হয়: দুদক বিএনপি নির্বাচনে না আসলে গণতন্ত্র বাধাগ্রস্ত হবে না পল্লী বিদ্যুতে অতিরিক্ত ইলেকট্রিশিয়ান নিয়োগ দেওয়ায় মানববন্ধন রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনের প্রচার-প্রচারণা তুঙ্গে হাইকোর্টে লক্ষ্মীপুরের ইউএনওর ক্ষমা প্রার্থনা খাগড়াছড়িতে ৬ সশস্ত্র যুবক আটক চট্টগ্রামের সেবা সমূহ ডিজিটালাইজড হওয়ার তাগিদ দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে সারা দেশে বিএনপির বিক্ষোভ আকায়েদের বিরুদ্ধে মার্কিন পুলিশের তিন অভিযোগ আশুগঞ্জে আমন চাল সংগ্রহ অভিযান শুরু ভূমিমন্ত্রীর ছেলে তমালকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ গাইবান্ধায় যুবলীগ নেতার ও বরগুনায় জেলের মরদেহ উদ্ধার ঢামেক হাসপাতাল দিচ্ছে ডিজিটাল ডেথ সার্টিফিকেট

৭ মার্চ মনে করিয়ে দেয় জনকের ডাক : 'এবারের সংগ্রাম মুক্তির সংগ্রাম'

প্রকাশিত: ০৪:১২ , ০৭ মার্চ ২০১৭ আপডেট: ০৪:১২ , ০৭ মার্চ ২০১৭

ঐতিহাসিক ৭ মার্চ আজ। বাঙালির স্বাধীনতার আন্দোলন ও মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসের এক স্বর্ণোজ্জ্বল দিন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ভাষণের কারনে সাতই মার্চ বাঙালির ইতিহাসে এক মাইলফলক দিবস হিসেবে স্থায়ী আসন করে নেয়।

এদিন তিনি সেসময়কার রেসকোর্স ময়দান, বর্তনান সোহরাওয়ার্দি উদ্যানের উদার প্রাঙ্গণে লক্ষ লক্ষ বাঙালির সামনে দাঁড়িয়ে স্বাধীনতার ডাক দেন। ঘোষণা দেন পাকিস্তানি শাসকদের বিরুদ্ধে অসহযোগ আন্দোলনের। ঘরে ঘরে যুদ্ধের প্রস্তুতির নির্দেশও দেন তিনি।

একাত্তরে বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বলতে যে-চিরচেনা কণ্ঠ এবং ঐতিহাসিক নির্দেশনা প্রজন্ম থেকে প্রজন্মের কানে বার বার বেজে ওঠে, সেটাই বাঙালির স্বাধীনতা সংগ্রামের এক মোড় ঘোরানো পর্ব।

সেসময়কার বাঙালির স্বাধীনতার আকাঙ্ক্ষার বারুদস্তূপে বঙ্গবন্ধুর এই ডাক যে আগুনের স্ফুলিঙ্গের মতো দেশের সব কোণায় ছড়িয়ে পড়েছিল, ইতিহাসের পরবর্তী অগ্রগতির ধারাবাহিকতা তারই সাক্ষ্য দেয়।

৭ মার্চের সেই ভাষণকে পশ্চিম পাকিস্তানের শাসকরা এতটাই ভয় পেয়েছিল যে, ঢাকার বেতার থেকে তা সরাসরি সম্প্রচারের পূর্বঘোষণা দেয়া হলেও শেষ পর্যন্ত প্রচার করতে দেয়া হয় নি।

এর প্রতিবাদে বিক্ষুব্ধ বাঙালি বেতারকর্মীরা শাহবাগ বেতার কেন্দ্র ত্যাগ করে রেসকোর্সে বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক জনসভায় যোগ দেন।

রেসকোর্সে বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ ছিল ২২ মিনিট দীর্ঘ। এদিন সকালে ঢাকায় মার্কিন রাষ্ট্রদূত বঙ্গবন্ধুর সাথে সাক্ষাত করে স্বাধীনতার ঘোষণা দেয়া থেকে তাঁকে বিরত থাকতে বলেন, এবং দেয়া হলে যুক্তরাষ্ট্র এর বিরুদ্ধে থাকবে বলে জানিয়ে দেন।

এদিন জেনারেল টিক্কা খান পূর্ব পাকিস্তানের গভর্নর ও সামরিক আইন প্রশাসক হিসেবে ঢাকায় পৌছে, যার নেতৃত্বে শুরু হয় মার্চের শেষে গণহত্যা ও বাঙালি নিধনযজ্ঞ।

কিন্তু কোনো হুমকির তোয়াক্কা না করে বঙ্গবন্ধু স্পষ্টতই স্বাধীনতার জন্য লড়াইয়ের ডাক দেন। পাকিস্তানি শাসকদের সকল সহযোগিতা বন্ধ করে দিতে তিনি বাঙালিকে অসহযোগ আন্দোলন শুরুর আহ্বান জানান।

 

এই বিভাগের আরো খবর

হত্যায় জড়িতদের নির্মূলের দাবি

শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস আজ 

নিজস্ব প্রতিবেদক: আজ শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস। নয় মাসের মুক্তিযুদ্ধের একেবারে শেষ মুহূর্তে, বিজয়ের সূর্য্য যখন উঁকি দিচ্ছিলো তখনই একাত্তরের...

বিএনপি নির্বাচনে না আসলে গণতন্ত্র বাধাগ্রস্ত হবে না

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিএনপি নির্বাচনে না আসলেও গণতন্ত্রের পথে কোনো বাধার সৃষ্টি হবে না বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক...

দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে সারা দেশে বিএনপির বিক্ষোভ

ডেস্ক প্রতিবেদন: গ্যাস ও বিদ্যুৎসহ দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে সারা দেশে বিএনপির জেলা শাখার বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার...

ক্ষমতা ধরে রাখতেই একতরফা নির্বাচনের ষড়যন্ত্র হচ্ছে: রিজভী

নিজস্ব প্রতিবেদক: ক্ষমতা ধরে রাখতে আওয়ামী লীগ আবারও একতরফা নির্বাচনের ষড়যন্ত্র করছে বলে অভিযোগ করেছে বিএনপি। সম্প্রতি আওয়ামী লীগই...

লালমনিরহাটে দ্রব্য মূল্য কমানোর দাবিতে সিপিবি’র কর্মসূচি

লালমনিরহাট প্রতিনিধি: বিদ্যুৎ, চাল, ডালসহ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম কমানোর দাবিতে লালমনিরহাটে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে বাংলাদেশ...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is