মাদারীপুরে পদ্মায় বিলীন স্কুল, সংকটে শিক্ষার্থীরা

প্রকাশিত: ১০:২৯, ০১ সেপ্টেম্বর ২০২০

আপডেট: ০৬:৪৭, ০১ সেপ্টেম্বর ২০২০

মাদারীপুর সংবাদদাতা: মাদারীপুরে পদ্মার ভাঙ্গনে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বিলীন হওয়ায় চরাঞ্চলের আটশতাধিক শিক্ষার্থীর ভবিষ্যত অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। এদিকে, নদী তীরবর্তী এলাকার শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানগুলোতে বহুতল ভবন নির্মাণ ভুল সিদ্ধান্ত বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। বন্যা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে অস্থায়ী ঘর নির্মাণ করে শিক্ষার্থীদের পাঠদান চালিয়ে নেয়ার কথা জানালেন তারা। 

মাদারীপুরের শিবচরে গত ২৩ জুলাই চোখের পলকেই পদ্মায় বিলীয় হয়ে যায় চরাঞ্চলের বাতিঘরখ্যাত নূরুদ্দিন মাদবরেরকান্দি উচ্চ বিদ্যালয়ের বহুতল ভবনটি। এর কিছুদিন পর কাঁঠালবাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও কাজীসূরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। 

বিদ্যালয় তিনটি বিলীন হওয়ায় লেখাপড়া অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে চরাঞ্চলের ৮০২জন শিক্ষার্থীর। এ নিয়ে চিন্তিত শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা। 

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো রক্ষায় আগে কোন উদ্যোগ নেয়া হয়নি বলে দাবি করেছেন স্থানীয়রা। আগেই ভাঙন রোধের ব্যবস্থা নিলে বিদ্যালয়গুলোকে রক্ষা করা যেত বলেও জানালেন তারা। 

শিক্ষার্থীদের ঝড়ে পড়া রোধে অস্থায়ী ঘর নির্মাণ করে পাঠদান কার্যক্রম শুরু করার চেষ্টা করা হচ্ছে বলে জানালেন জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা। 

নদী তীরবর্তী এলাকায় শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানগুলোর জন্য বহুতল ভবন নির্মাণ উচিত নয় বলে জানালেন জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা।

পদ্মা ও আড়িয়াল খাঁর অব্যাহত ভাঙনে মাদারীপুরের আরো বেশ কয়েকটি শিক্ষ প্রতিষ্ঠান ঝুঁকিতে রয়েছে বলেও জানালেন সংশ্লিষ্টরা। 
 

এই বিভাগের আরো খবর

উত্তরে পানি কমেছে, বেড়েছে ভাঙন

ডেস্ক প্রতিবেদন : দেশের উত্তরাঞ্চলের...

বিস্তারিত
মাগুরার গড়াই নদী ভাঙনে আতঙ্কে এলাকাবাসী

মাগুরা সংবাদদাতা: মাগুরার শ্রীপুর...

বিস্তারিত
বন্যায় প্রায় ৫৭৭২ কোটি টাকার ক্ষতি

নিজস্ব প্রতিবেদক: এ বছরের বন্যায় এখন...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *