নিয়োগে প্রতারণা; শিক্ষা অধিদপ্তরের মোশারফকে শোকজ

প্রকাশিত: ০১:১৭, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০

আপডেট: ০৩:৪৩, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগের নামে শতাধিক মানুষের কাছ থেকে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের সহকারি কর্মকর্তা মোশারফ হোসেনের বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর। তার বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ অনুসন্ধানে গঠন করা হয়েছে তদন্ত কমিটি। শোকজ করা হয়েছে অভিযুক্ত ওই সরকারি কর্মকর্তাকে।

গত (১৭ সেপ্টেম্বর) 'শিক্ষক নিয়োগের নামে শিক্ষা কর্মকর্তার ভয়াবহ প্রতারণার ফাঁদ' এই শিরোনামে বৈশাখী টেলিভিশেনে অনুসন্ধানী প্রতিবেদন প্রকাশের পর ওই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে এসব ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের পরিচালক (প্রশাসন) মিজানুর রহমান বৈশাখী টেলিভিশনকে জানিয়েছেন, অভিযোগ প্রমাণিত হলে  মোশারফ হোসেনের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

বৈশাখী টেলিভিশনের অনুসন্ধানে ওই কর্মকর্তার  দুর্নীতির নানা অনিয়ম তথ্য বেরিয়ে আসে। প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগের নামে কারো কাছ থেকে তিন লাখ, কারো কাছ থেকে লাখ, কারো কাছ থেকে নিয়েছেন ১০ লাখ টাকা নিয়েছেন  মোশারফ হোসেন। এভাবে শতাধিক মানুষের কাছ থেকে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন তিনি।

চাকরি দয়োর নামে মানুষের কাছ থেকে টাকা নিয়ে নিজে গড়েছেন গাড়ি-বাড়ি-সম্পদ। কুমিল্লায় নিজ গ্রামে তৈরি করেছেন বিলাসবহুল বাগানবাড়ি, মিরপুরের জনতা হাউজিং এর হেনা গার্ডেনে আছে ফ্লাট। মিরপুরের লাভ রোডে লাভ বার্ড নামে একটি রেস্টুরেন্টও চালান তিনি। এসব অভিযোগ অকপটে স্বীকারও করেছেন মোশারফ।

এই বিভাগের আরো খবর

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *