আমার কাছ থেকে মানুষের উপকারই যেন হয়: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত: ০৬:৫০, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০

আপডেট: ০৯:৫৮, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশের সবচে’ দীর্ঘ মেয়াদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মদিন আজ। নিজের সমান বয়সী রাজনৈতিক দল আওয়ামী লীগেরও নেতৃত্ব দিচ্ছেন প্রায় চার দশক ধরে। পঁচাত্তরের ১৫ই আগস্ট পিতা-মাতাসহ সব স্বজন হারানোর পর থেকে নিজের জন্মদিনে কোন আড়ম্বর নেই তাঁর। তবে আজ (সোমবার) মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানান মন্ত্রী সচিবরা। এ সময় দেশের মানুষের কল্যাণে আমৃত্যু কাজ করে যেতে দোয়া চান বঙ্গবন্ধু কন্যা।

জন্মদিনে দলীয় কর্মসূচি বাতিল করে দিলেও মন্ত্রিসভার বৈঠকে শুভেচ্ছা এড়িয়ে যেতে পারেননি শেখ হাসিনা। সোমবার মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকের শুরুতেই তাঁকে ৭৪তম জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানান মন্ত্রিপরিষদ সদস্যরা।

এ সময় শেখ হাসিনা বলেন, বাবা-মা, ভাই সবাইকে হারিয়ে দেশের মানুষের জন্য কিছু করাই এখন জীবনের একমাত্র স্বপ্ন। যতদিন বেঁচে আছি সম্মানের সঙ্গে যেন বাঁচতে পারি। আমার কাছ থেকে বাংলাদেশের মানুষের যেন উপকারই হয়, মানুষ যেন ভালো থাকে, সেই কাজটুকু যেন করে যেতে পারি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা আপ্রাণ চেষ্টা করে যাচ্ছি। এই দেশটাকে যেন জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ গড়তে পারি। বাংলাদেশের মানুষ যেন বিশ্বদরবারে মাথা উঁচু করে চলতে পারে, ওইটুকুই আমার প্রচেষ্টা আর কিছু না। নইলে বাবা-মা সব হারিয়ে রিক্ত নিঃস্ব হয়ে এই দেশে এসে কাজ করা, এটা খুবই কঠিন কাজ। তারপরও শুধু একটা কথা চিন্তা করেছি, যে দেশটাকে আমার বাবা এত ভালোবেসেছেন, যে দেশের মানুষকে। তাদের জন্য কিছু করে আমাকে যেতে হবে। তার স্বপ্নটা যেন অপূর্ণ না থাকে সেটি যেন পূর্ণ করতে পারি।

দেশকে এগিয়ে নেয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করে সরকারপ্রধান বলেন, করোনা না আসলে দেশের আরো উন্নয়ন করা যেতো। তারপরও মানুষের অদম্য ইচ্ছা শক্তির কাছে সব কিছু পরাজিত হবে। এজন্য বাংলাদেশের মানুষের প্রতি আমার কৃতজ্ঞতা জানাই।

রাষ্ট্রের প্রধান আইন কর্মকর্তা মাহবুবে আলমের মৃত্যুতে প্রাধনমন্ত্রী গভীর শোক প্রকাশ করে বলেন, এটা আমাদের জন্য একটি বিরাট ক্ষতি, রাষ্ট্রের জন্য ক্ষতি। কারণ প্রজ্ঞা, জ্ঞান মেধা আমাদের দেশের জন্য রাষ্ট্রের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ছিল। অনেক কঠিন পরিস্থিতিও মাহবুবে আলাম ঠান্ডা মাথায় কাজ করেছেন।

অ্যার্টনি জেনারেলের মৃতুতে শোক প্রস্তাব গ্রহণসহ মন্ত্রিসভার বৈঠকে বেসরকারি মেডিকেল কলেজ ডেন্টাল কলেজ আইন ২০২০ এর খসড়া এবং ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মসূচির  সম্প্রসারণ প্রকল্পের নীতিগত অনুমোদন দেয়া হয়।

এই বিভাগের আরো খবর

সংসদ সদস্য হিসেবে শপথ নিলেন মনিরুল ও আনোয়ার

নিজস্ব প্রতিবেদক: একাদশ জাতীয় সংসদের...

বিস্তারিত
অটোপাশে মেধা যাচাই হয় না: নজরুল ইসলাম খান

নিজস্ব প্রতিবেদক: অটোপাশ বা বিনা...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *