মাস্ক কেলেঙ্কারি; জেএমআই চেয়ারম্যান ৫ দিনের রিমান্ডে

প্রকাশিত: ০৫:২১, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০

আপডেট: ১০:৪৫, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০

নিজস্ব সংবাদদাতা: নকলএন নাইনটি ফাইভ মাস্ক নিম্নমানের স্বাস্থ্যসেবা সামগ্রী সরবরাহের অভিযোগে দুদকের করা মামলায় জেএমআই গ্রুপের চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাকের পাঁচদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

আজ (মঙ্গলবার) বিকেলে রিমান্ড আবেদন সংক্রান্ত শুনানি শেষে ঢাকার মহানগর সিনিয়র স্পেশাল জজ কে এম ইমরুল কায়েশ আদেশ দেন।

আজ দুপুরেই দুদকের পরিচালক মীর জয়নুল আবেদীন শিবলীর নেতৃত্বে একটি টিম রাজধানীর সেগুনবাগিচা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে। এরপর আদালতে হাজির করে আব্দুর রাজ্জাকের পাঁচদিনের রিমান্ড আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) সমন্বিত জেলা কার্যালয় ঢাকা- এর উপ-পরিচালক মো. নূরুল হুদা।

এর আগে আব্দুর রাজ্জাকসহ মোট সাতজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন দুদকের উপ-পরিচালক নুরুল হুদা। মামলার অন্য আসামিরা হলেন, কেন্দ্রীয় ওষুধাগারের উপপরিচালক জাকির হোসেন, সহকারী পরিচালক শাহজাহান সরকার, চিফ কো-অর্ডিনেটর জিয়াউল হক, ডেস্ক অফিসার সাব্বির আহমেদ, স্টোর অফিসার কবির আহমেদ সিনিয়র স্টোর কিপার ইউসুফ ফকির। অভিযুক্তদের সম্পদের খোঁজ নেয়া হচ্ছে বলেও জানিয়েছে দুদক।

দুদকের উপ-পরিচালক (জনসংযোগ) প্রণব কুমার ভট্টাচার্য গণমাধ্যমকে জানায়, দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে সেগুনবাগিচা এলাকা থেকে আব্দুর রাজ্জাককে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারের পর তাকে দুদক কার্যালয়ে নেয়া হয়।

করোনা শুরুর পর মার্চের শেষ ভাগে কেন্দ্রীয় ঔষধাগার থেকে বিভিন্ন হাসপাতালে যেসব মাস্ক পাঠানো হয়, তার প্যাকেটেএন-৯৫লেখা থাকলেও ভেতরে ছিল সাধারণ সার্জিক্যাল মাস্ক।

রাজধানীর মুগদা জেনারেল হাসপাতাল, মহানগর জেনারেল হাসপাতালে এন-৯৫ মাস্কের মোড়কে সাধারণ মাস্ক দেওয়ার ঘটনায় তোপের মুখে পড়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর কেন্দ্রীয় ঔষধাগার।

রাজধানীর হাসপাতালগুলোতেও ভুল মাস্ক সরবরাহে নাম আসে জেএমআই হসপিটাল রিক্যুইজিট ম্যানুফ্যাকচারিংয়ের। ঘটনায় জেএমআই হসপিটাল রিক্যুইজিট ম্যানুফ্যাকচারিং লিমিটেডের চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাককে তলব করে জিজ্ঞাসাবাদ করেছিল দুদক। গত জুলাই সংশ্লিষ্ট নথিপত্রসহ তাকে দুদকের প্রধান কার্যালয়ে আসতে নোটিস দিয়েছিল দুদকের এই অনুসন্ধান দল।

অনুসন্ধান দলের প্রধান দুদক পরিচালক মীর মো. জয়নুল আবেদীন শিবলীর নেতৃত্বে চার সদস্যের একটি দল জুলাই জেএমআই হাসপাতাল রিক্যুইজিট ম্যানুফ্যাকচারিং লিমেটেডের চেয়ারম্যানকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছিল।

করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের মধ্যে এন-৯৫ মাস্ক পিপিইসহ অন্যান্য স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী কেনাকাটায় দুর্নীতির অভিযোগ অনুসন্ধানে গত ১৫ জুন জয়নুল আবেদীন শিবলীকে প্রধান করে চার সদস্যের এই অনুসন্ধান টিম গঠন করে দুদক।

এই বিভাগের আরো খবর

ফুডপান্ডার সাড়ে ৩ কোটি টাকা ভ্যাট ফাঁকি

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রায় সাড়ে তিন কোটি...

বিস্তারিত
এনামুল-রুপনের জামিন আবেদন খারিজ

নিজস্ব প্রতিবেদক: জ্ঞাত আয়বহির্ভূত...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *