কংগ্রেস নেতা রাহুল ও প্রিয়াঙ্কা আটক

প্রকাশিত: ০৫:০৯, ০১ অক্টোবর ২০২০

আপডেট: ০৬:২৭, ০১ অক্টোবর ২০২০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতের কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী ও প্রিয়াঙ্কা গান্ধী ভদ্রাকে আটক করেছে উত্তর প্রদেশ পুলিশ। আজ (বৃহস্পতিবার) উত্তর প্রদেশের হাথ্রাসে যাওয়ার পথে তাদের আটক করা হয়। সরকারি বিধি-নিষেধ লঙ্ঘন করে বিশাল জনসমাবেশ করায় তাদের আটক করা হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার (০১ অক্টোবর) ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি এ তথ্য জানায়।

হাথরসে গণধর্ষণের শিকার মৃত নির্যাতিতার পরিবারের সাথে দেখা করতে যাচ্ছিলেন ভারতীয় কংগ্রেস পার্টির সাধারণ সম্পাদক প্রিয়াঙ্কা গান্ধীসহ দলীয় নেতাকর্মীরা। রাজ্যের গ্রেটার নয়ডায় তাদের গাড়িবহর আটকে দিলে রাহুল ও কংগ্রেস নেতারা পুলিশি বাধা উপেক্ষা করে হাথরসের দিকে পদযাত্রা শুরু করেন। তারপরেই আটক করা হয় রাহুল ও প্রিয়াঙ্কাকে।

আটকের আগে রাহুল গান্ধী সাংবাদিকদের বলেন, পুলিশ আমাকে আঘাত করেছে। ধাক্কা দিয়েছে। আমার উপর লাঠিচার্জ করা হয়েছে। মাটিতে ফেলে দিয়েছে আমাকে। আমি জানাতে চাই, শুধু কি নরেন্দ্র মোদি দেশে হাঁটতে পারবেন? সাধারণ মানুষ কি দেশে চলাফেরা করতে পারবে না? আমাদের গাড়ি থামিয়ে দেয়া হয়েছে। তাই আমরা পায়ে হেঁটে হাথ্রাসের উদ্দেশে রওনা দিয়েছি।

এর আগে, উত্তরপ্রদেশের হাথরাসে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার এক তরুণী গত মঙ্গলবার রাজধানী নয়াদিল্লিতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। পরে উত্তরপ্রদেশ পুলিশ পরিবারের সদস্যদের বিনা উপস্থিতিতে রাতের আঁধারে ওই তরুণীর মরদেহ পুড়িয়ে দেয়। এ ঘটনায় দেশজুড়ে ব্যাপক ক্ষোভ তৈরি হয়। ওই পরিবারের সদস্যদের সাথেই দেখা করতে যাচ্ছিলেন রাহুল গান্ধী।

তবে উত্তরপ্রদেশে ১৪৪ ধারা জারি করে রেখেছিল রাজ্য প্রশাসন। কোভিড বিস্তার রোধে সেখানে বাহির হতে কারো রাজ্যে প্রবেশ ঠেকাতেই এমন ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে জানিয়েছে উত্তরপ্রদেশ পুলিশ। ফলে রাহুলকে ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করার কথা জানানো হলে রাহুল পাল্টা পুলিশের বিরুদ্ধে ১৪৪’র অপব্যবহারের অভিযোগ তুলে নেতাকর্মীদের নিয়ে ১৪৪ ভেঙ্গে হাথরসের দিকে রওয়ানা হন।

এই বিভাগের আরো খবর

আফগানিস্তানে পদদলিত হয়ে ১৫ জনের মৃত্যু

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: আফগানিস্তানে...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *