ঢাকা, শনিবার, ২০ জানুয়ারী ২০১৮, ৭ মাঘ ১৪২৪, ৩ জুমাদিউল আউয়াল ১৪৩৯
শিরোনামঃ
ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব, জুমার নামাজে লাখো মুসল্লি ৭৫ উর্ধ্ব প্রবীণ কারাবন্দিদের মুক্ত করার উদ্যোগ সংস্কার হয়নি চট্টগ্রাম মহানগরীর ক্ষতিগ্রস্ত সড়ক সরকারের কারণেই ডিএনসিসি নির্বাচন ভণ্ডুল: বিএনপি এক জঙ্গি চট্টগ্রামের নাফিস তরুণদের অগ্রণী ভূমিকা পালনের আহ্বান স্পিকারের ফরিদপুরে কাভার্ডভ্যানের সাথে সংঘর্ষে মোটরসাইকেলের দু’আরোহী নিহত  ‘ফ্রিডারিকে’ তাণ্ডবে বিপর্যস্ত উত্তর ইউরোপ রংপুরে দগ্ধ আরো দু’জনের মৃত্যু  অস্থির সবজির বাজার, ঝাঁঝ কমেছে পেঁয়াজের স্প্যানিশ কোপা ডেল’রে ফুটবলে রিয়াল মাদ্রিদের জয়  খালেদা মামলার কার্যক্রম ব্যাহত করেছেন: হাছান মাহমুদ শ্রীলংকাকে রেকর্ড ব্যবধানে হারিয়ে ফাইনালে বাংলাদেশ ঢাকা আঞ্চলিক গণিত উৎসব অনুষ্ঠিত উখিয়া ক্যাম্পে বন্য হাতির আক্রমণে রোহিঙ্গার মৃত্যু মজুরি বোর্ড গঠনকে ইতিবাচক দেখছেন পোশাক শ্রমিকরা টঙ্গীতে জোড়া খুনের ঘটনায় ৫ জন গ্রেফতার ডিসেম্বরের মধ্যে পদ্মা সেতু নির্মাণের চেষ্টা চলছে অসুস্থ আইভী ল্যাব এইডে ভর্তি অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হলেন ১৫৫ জন

ইউনেস্কোর শর্ত মেনেই রামপালে বিদ্যুৎ কেন্দ্র বানাবে সরকার

প্রকাশিত: ০৪:৫৩ , ০৯ জুলাই ২০১৭ আপডেট: ০৪:৫৩ , ০৯ জুলাই ২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক: রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্র নিয়ে সরকারের বৈজ্ঞানিক যুক্তি মেনে নিয়েছে ইউনেস্কো। তবে তাদের দেয়া ভারি কলকারখানা ও অবকাঠামো নির্মাণ না করার শর্ত মেনেই রামপালে এই বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ করবে সরকার।

আজ রোববার রাজধানীতে বিদ্যুৎ ভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান প্রধানমন্ত্রীর জ্বালানি বিষয়ক উপদেষ্টা তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী। এতে রামপাল কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণে কোনো বাধা রইলো বলেও জানান তিনি। নাজমুল সাঈদকে সাথে নিয়ে আরো জানাচ্ছেন কামরান করিম।

বাগেরহাটের রামপালে বাংলাদেশ-ভারত যৌথ উদ্যোগে ১৩২০ মেগাওয়াটের কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ প্রকল্প গ্রহণের পর থেকে বিভিন্ন মহল থেকে এর বিরোধিতা করা হয়। তাদের আশংকা-- এতে বিশ্ব ঐতিহ্য সুন্দরবনের ক্ষতি হবে।

জাতিসংঘের শিক্ষা বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি বিষয়ক সংস্থা ইউনেস্কোর পক্ষ থেকেও আসে আপত্তি। তবে সরকার বরাবরই বলে এসেছে-- এই বিদ্যুৎ কেন্দ্র হবে সুপার ক্রিটিক্যাল প্রযুক্তি ব্যবহার করে, যার ফলে এতে সুন্দরবনের কোনো ক্ষতি হবে না।

সরকারের বৈজ্ঞানিক যুক্তি মেনে নিয়ে গেলো বৃহস্পতিবার আপত্তি প্রত্যাহার করে নেয় ইউনেস্কো। বিদ্যুৎ ভবনে সংবাদ সম্মেলনে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানান প্রধানমন্ত্রীর জ্বালানি বিষয়ক উপদেষ্টা তৌফিক ই-ইলাহী চৌধুরী।

তিনি আরো বলেন, পোল্যান্ডে ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ কমিটির ৪১তম অধিবেশনে বিশ্বের ২১টি দেশের মধ্যে ১২টি দেশই রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণের পক্ষে মত দিয়েছে। ফলে এই বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণে আরে কোন বাধা নেই।

২০১৯ সাল নাগাদ রামপাল কয়লা ভিত্তিক তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র থেকে দেশবাসী বিদ্যুৎ পাবে বলে জানান প্রধানমন্ত্রীর জ্বালানি উপদেষ্টা। এ সময় বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ ও বিদ্যুৎ সচিবও উপস্থিত ছিলেন।
 

এই বিভাগের আরো খবর

সহায়তা ছাড়াই এমডিজি অর্জন করবে বাংলাদেশ- অর্থমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক : উন্নয়ন সহযোগীদের সহায়তা ছাড়াই বাংলাদেশ টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্য অর্জন করতে পারবে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল...

ডিসেম্বরের মধ্যে পদ্মা সেতু নির্মাণের চেষ্টা চলছে

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, পদ্মা নদীর মাটির লেয়ারের ভিন্নতার কারণে ১৪টি পিয়ার লোকেশনে পাইলের নকশা...

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হলেন ১৫৫ জন

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ সহকারী পুলিশ সুপার থেকে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার পদে পদোন্নতি পেলেন ১৫৫ জন। আজ বৃহস্পতিবার ঢাকায় সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্র...

অসুস্থ আইভী ল্যাব এইডে ভর্তি

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি: নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভীকে ঢাকার ল্যাব এইড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে তার শারীরিক...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is