ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০১৯, ১০ বৈশাখ ১৪২৬

2019-04-22

, ১৬ শাবান ১৪৪০

গাজীপুর মেয়রের বহিষ্কারাদেশ তিনমাসের জন্যে স্থগিত

প্রকাশিত: ০৭:০২ , ০৯ জুলাই ২০১৭ আপডেট: ০৭:০২ , ০৯ জুলাই ২০১৭

নিজস্ব সংবাদদাতা: গাজীপুর সিটি কপোরেশন মেয়র এম. এ. মান্নানের বহিষ্কারের আদেশে তিনমাসের জন্য স্থগিত করেছে হাইকোট। একই সঙ্গে তাঁকে বরখাস্ত করা কেন বেআইনি হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করা হয়েছে।

আজ রোববার বিকেলে বিচারপতি সৈয়দ মোহাম্মদ দস্তগীর হোসেন ও বিচারপতি মো. আতাউর রহমান খানের সমন্বয়ে বেঞ্চ এ আদেশ দেয়।

আদালতে এম. এ. মান্নানের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন।

এর আগে তৃতীয়বারের মতো সাময়িকভাবে বরখাস্ত করায় সরকারের এই আদেশের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে আজ সকালে রিট আবেদন করেন গাজীপুর সিটি কর্পোরশেনের মেয়র। তাঁর পক্ষে আবেদনটি দায়ের করেন আ্যাডভোকেট আবু হানিফ।

আবু হানিফ বলেন, আবেদনে সাময়িক বরখাস্তের আদেশের ওপর স্থগিতাদেশ এবং তাঁর (এম. এ. মান্নানের) দায়িত্ব পালনের ওপর স্থিতাবস্থার আবেদন করা হয়েছে।

আদালতের আদেশ পাওয়ার পর দায়িত্ব গ্রহণের পর ১৯ দিন পর ৬ জুলাই সরকার মেয়র মান্নানকে আবারও সাময়িক বরখাস্ত করে।
ক্ষমতার অপব্যবহার ও রাষ্ট্রের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশন মেয়র মান্নানের বিরুদ্ধে নিু আদালতে একটি মামলা দায়ের করার পরই স্থানীয় সরকার বিভাগ এ বিষয়ে একটি প্রজ্ঞাপন জারি করে।

২৮ মাস সাময়িক বরখাস্ত থাকার পর সুপ্রীম কোর্টের এক আদেশে গত ১৮ জুন মেয়রের দায়িত্ব গ্রহণ করেন এম. এ. মান্নান। ২০১৫ সালের ১৯ আগষ্ট প্রথম বার ও ২০১৬ সালের ১৮ এপ্রিল দ্বিতীয় বার মান্নানকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

২০১৩ সালে প্রথমবারের মতো নির্বোচনে গাজীপুর সিটি মেয়র নির্বাচিত হন বিএনপির এই নেতা। পরবর্তীতে নাশকতার এক মামলায় আদালতে অভিযোগপত্র গ্রহণের  পর ২০১৫ সালের ১৯ আগস্ট অধ্যাপক মান্নানকে প্রথম বরখাস্ত করেছিল স্থানীয় সরকার বিভাগ। এর বিরুদ্ধে আইনি লড়াইয়ের ২৮ মাস পর মেয়র পদ ফিরে পান এম. এ. মান্নান।।

কিন্তু এর পরপরই আরো একটি মামলার অভিযোগপত্র গ্রহণ করা হলে ২০১৬ সালের ১৮ এপ্রিল দ্বিতীয়বারের মতো তাঁকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

ওই আদেশের বিরুদ্ধেও আইনি লড়াই করেন মান্নান।  গত ১৮ জুন পুনরায় পদ ফিরে পান তিনি। কিন্তু এর কয়েকদিনের মধ্যে দুর্নীতির মামলায় অভিযোগপত্র গ্রহণের পর ফের তাকে বরখাস্ত করে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়।

মেয়র নির্বাচিত হওয়ার পর বিভিন্ন মামলায় বিএনপির এ নেতাকে বেশিরভাগ সময় কারাগারেই কাটাতে হয়েছে।

এই বিভাগের আরো খবর

জেল হাজতে নুসরাতের সহপাঠী পপি

নিজস্ব প্রতিবেদক: মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত হত্যায় সরাসরি জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছে সহপাঠী উম্মে সুলতানা পপি।...

তারেকের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট জব্দের আদেশ যাবে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও তাঁর স্ত্রী জোবাইদা রহমানের নামে ইংল্যান্ডে থাকা তিনটি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট...

বৈশাখী টেলিভিশনের শেয়ার হস্তান্তর সংক্রান্ত মামলায় বুলু’র রিভিউ খারিজ

নিজস্ব প্রতিবেদক : বৈশাখী টেলিভিশনের মালিকানা দাবি করে এমএনএইচ বুলুর করা রিভিউ আবেদন খারিজ করে দিয়েছে আপিল বিভাগ। প্রধান বিচারপতি সৈয়দ...

কয়েকদফা সভা করে নুসরাত হত্যার পরিকল্পনা চূড়ান্ত হয়: আদালতে শরীফের জবানবন্দি

ফেনী প্রতিনিধি: ফেনীর সোনাগাজীতে আগুনে পুড়িয়ে মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে হত্যার ঘটনায় সরাসরি জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে আদালতে...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is