‘কেরানিগঞ্জে গার্মেন্টসের ৪৭ ভাগ শ্রমিকই শিশু’

প্রকাশিত: ০৫:০৫, ২৫ অক্টোবর ২০২০

আপডেট: ১০:২৭, ২৫ অক্টোবর ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকার কেরাণীগঞ্জের পোশাক কারখানাগুলোতে ৪৭ ভাগ শ্রমিকই শিশু। স্থানীয় বাজারে পোশাক সরবরাহকারী এসব কারখানায় ২ লাখ ৩০ হাজার শ্রমিকের মধ্যে এক লাখ ২০ হাজার শ্রমিকের বয়স ৫ থেকে ১৭ বছরের মধ্যে। বাংলাদেশ লেবার ফাউন্ডেশন-বিএলএফ পরিচালিত এক গবেষণায় উঠে এসেছে এসব তথ্য। এসব শিশু শ্রমিক কাজ করে অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ পরিবেশে। করোনা পরিস্থিতিতে যাদের সংখ্যা বাড়ছে।

স্থানীয় বাজারে পোশাক সরবরাহ করে এমন বেশিরভাগ কারখানা ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ, চট্টগ্রাম এবং সৈয়দপুরে অবস্থিত। এর মধ্যে  ঢাকার অদূরে কেরাণীগঞ্জে স্থানীয় পোশাক প্রস্তুতকারি কারখানাগুলোর শ্রমিক পরিস্থিতি নিয়ে গবেষণা করে বিএলএফ। আজ (রোববার) সকালে রাজধানীর একটি হোটেলে গবেষণা প্রতিবেদনটি প্রকাশ করা হয়।

প্রতিবেদনটিতে বলা হয়েছে, কেরাণীগঞ্জে সাড়ে নয় হাজার কারখানায় ২ লাখ ৩০ হাজার শ্রমিক রয়েছে। যার মধ্যে এক লাখ ২০ হাজার শ্রমিকের বয়স ৫ থেকে ১৭ বছরের মধ্যে। এসব শ্রমিকেরা বিভিন্ন জেলা থেকে এসেছে। আর করোনা পরিস্থিতিতে বেড়েছে তাদের সংখ্যা।

তবে আলোচনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত কারখানার মালিকপক্ষ এই গবেষণা প্রতিবেদনকে প্রত্যাখান করেন। কিন্তু শ্রমিক প্রতিনিধিরা বলেন, কারখানাগুলোয় শিশু শ্রম রয়েছে।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ছিলেন শ্রম সচিব কে এম আব্দুস সালাম। ২০২২ সালের মধ্যে শিশু শ্রমের অবসান ঘটাতে কলকারখানা পরিদর্শ অধিদপ্তরকে তিনি তাৎক্ষণিক নির্দেশনা দেন। এই কমিটি শ্রমিক, মালিক এবং স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে কাজ করবে।

কেন এসব শিশু শ্রমিক হিসেবে যুক্ত হচ্ছে তা খতিয়ে দেখে সমাধান খোঁজার পরামর্শ দেন আলোচনা সভার বক্তারা।

এই বিভাগের আরো খবর

বৌভাতের দিনেই বরের মৃত্যু

পটুয়াখালী সংবাদদাতা: পটুয়াখালীর...

বিস্তারিত
জেলা কারাগারে কয়েদীর মৃত্যু

জামালপুর সংবাদদাতা: জামালপুর জেলা...

বিস্তারিত
বড় ভাইয়ের হাতে ছোট ভাই খুন

নীলফামারী সংবাদদাতা: নীলফামারীর...

বিস্তারিত
ফতুল্লায় আগুনে একই পরিবারের ৩ জন দগ্ধ

নারায়ণগঞ্জ সংবাদদাতা: নারায়ণগঞ্জের...

বিস্তারিত
মৌলভীবাজারে কৃষকদের মাঝে ধানের বীজ বিতরণ

মৌলভীবাজার সংবাদদাতা: মৌলভীবাজারের...

বিস্তারিত
১৭ ভারতীয় জেলেকে কারাগারে প্রেরণ

মোংলা সংবাদদাতা: বঙ্গোপসাগরের...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *