জনপ্রিয় অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের মহাপ্রয়াণ

প্রকাশিত: ০১:০৭, ১৫ নভেম্বর ২০২০

আপডেট: ০৯:৩৯, ১৫ নভেম্বর ২০২০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: চোখের জল আর রাষ্ট্রীয় সম্মানে বিদায় জানানো হলো বাংলা চলচ্চিত্রের কিংবদন্তী অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়কে। আজ (রোববার) সন্ধ্যায় কেওড়াতলা মহাশ্মশানে হয় শেষকৃত্য।  এর আগে দুপুরে চিকিৎসকদের সব চেষ্টা ব্যর্থ করে না ফেরার দেশে পাড়ি জমান এই গুণী।  প্রিয় অভিনেতার মৃত্যুতে বিশ্বজুড়ে বাঙালি ভক্তদের মধ্যে নেমে এসেছে শোকের ছায়া।

শেষ পর্যন্ত তিনি ছুটি নিয়েই নিলেন। প্রায় দেড় মাস মৃত্যুর সঙ্গে লড়ে জীবনাবসান হলো বাংলা চলচ্চিত্রের মহিরুহ, প্রবাদপ্রতীম অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের। সেইসঙ্গে অবসান হলো বাংলা চলচ্চিত্রের এক বর্ণময় অধ্যায়েরও।

করোনা আক্রান্ত হয়ে কলকাতার বেলভিউ হসাপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। প্লাজমা থেরাপি, শ্বাসনালিতে অস্ত্রোপচার-সহ নানাভাবে অভিনেতাকে বাঁচানোর চেষ্টা করেন চিকিৎসকরা। 

সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের মৃত্যুর খবর পেয়ে হাসপাতালে ছুটে যান পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। শোক জানানোর পাশাপাশি অভিনেতার পরিবারের সদস্যদের সান্ত্বনা দেন তিনি।

হাসপাতাল থেকে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয় গল্ফগ্রিনে নিজ বাড়িতে। এরপর নেয়া হয় টেকনিশিয়ান স্টুডিওতে। পরে সর্বস্তরের মানুষের শেষ শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য দেহ রাখা হয় রবীন্দ্রসদনে। 

সাবলীল আর স্বকীয় ভঙ্গিমায় অভিনয় দিয়ে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় শুধু নিজেকে নয়, ভারতীয় বাংলা চলচ্চিত্রকেই অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছেন। প্রায় ৮৬ বছরের জীবনের ৬০ বছরই চলচ্চিত্রকে দিয়েছেন। এমনকি শেষ সময়েও দূর্দান্ত প্রাণশক্তি নিয়ে কাজ করেছেন। 

ছয় দশক ধরে দাপটের সঙ্গে ভারতের চলচ্চিত্র ও মঞ্চে অভিনয় করেছেন এই কিংবদন্তী। কর্মজীবনের শুরুটা হয়েছিল রেডিও’র ঘোষক হিসেবে। এরপর রূপালি পর্দায় পথচলা শুরু খ্যাতিমান নির্মাতা সত্যজিৎ রায়ের ‘অপুর সংসার’ দিয়ে। তাঁর অভিনীত চরিত্রগুলোর মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয়তা পায় সত্যজিৎ রায়েরই সৃষ্ট ‘ফেলুদা’। 

সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের মধ্যে নানামুখী প্রতিভার সম্মিলন ঘটেছিলো। চলচ্চিত্রের পাশাপাশি মঞ্চেও দাপুটে অভিনয় করেছেন। লেখালিখিতেও ছিলেন দারুণ! কবিতা লেখার পাশাপাশি আবৃত্তিকার হিসেবেও খ্যাতি কুঁড়িয়েছেন।

দীর্ঘ কর্মজীবনে স্বীকৃতি হিসেবে পেয়েছেন ভারত সরকারের অনেক সম্মানজনক উপাধি। মৃত্যুকালে তিনি দুই সন্তানসহ অসংখ্য গুনমুগ্ধ ভক্ত রেখে গেছেন। সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় না থাকলেও তাঁর অনবদ্য অভিনয় আর রেখে যাওয়া পঙক্তিমালা রয়ে যাবে চিরকাল; বাঙালির মননে, স্মরণে, ধ্যানে।

এদিকে, বরেণ্য এই অভিনেতার মৃত্যুতে শোকস্তব্ধ বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে থাকা বাঙালি ভক্তরা। শোক জানিয়েছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, ভারতের রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ ও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিসহ বিশিষ্টজনরা।

এই বিভাগের আরো খবর

বাবার ছবিতে জাহ্নবী কাপুর

অনলাইন ‍ডেস্ক: শ্রীদেবী ও বনি কাপুর...

বিস্তারিত
‘দেশীয় সংস্কৃতি বিশ্বে তুলে ধরতে হবে’

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশের সংস্কৃতি ও...

বিস্তারিত
বলিউডে নতুন মুখ নূপুর স্যানন

বিনোদন ডেস্ক: এবার বলিউডে অভিষেক...

বিস্তারিত
মডেলিং ছাড়লেন হালিমা আদেন

অনলাইন ডেস্ক: ধর্মীয় দৃষ্টিভঙ্গির...

বিস্তারিত
শোক ও শ্রদ্ধায় আলী যাকেরকে চিরবিদায়

নিজস্ব প্রতিবেদক: চিরবিদায়ের কালে...

বিস্তারিত
ম্যারাডোনাকে নিয়ে যেসব সিনেমা

অনলাইন ডেস্ক: আর্জেন্টাইন লিজেন্ড,...

বিস্তারিত
হাসপাতালে অভিনেত্রী সুজাতা

বিনোদন ডেস্ক: হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ায়...

বিস্তারিত
টানা তৃতীয়বার বর্ষসেরা শিল্পী টেইলর সুইফট

অনলাইন ডেস্ক: গত দুইবারের মতো এবারও...

বিস্তারিত
মাদক মামলায় কমেডিয়ান ভারতী সিংহের জামিন

অনলাইন ডেস্ক: ভারতীয় কমেডিয়ান ভারতী...

বিস্তারিত
উন্মুক্ত হলো নাটোরের উত্তরা গণভবন

নাটোর সংবাদদাতা: দর্শনার্থীদের জন্য...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *