আলোকচিত্রশিল্পী আনোয়ার হোসেনের মৃত্যুবার্ষিকী আজ

প্রকাশিত: ০১:২০, ০১ ডিসেম্বর ২০২০

আপডেট: ০৯:৩০, ০১ ডিসেম্বর ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক: খ্যাতিমান আলোকচিত্রী ও জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারজয়ী চিত্রগ্রাহক আনোয়ার হোসেনের তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকী আজ। ২০১৮ সালে রাজধানীর একটি আবাসিক হোটেলের দরজা ভেঙ্গে আনোয়ার হোসেনের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। তার মৃত্যু রহস্য আজো জানা যায়নি।

আনোয়ার হোসেন ১৫টি চলচ্চিত্র এবং ৩০ প্রামাণ্যচিত্রের চিত্রগ্রাহক ছিলেন। আলোকচিত্র সংক্রান্ত তার বইয়ের সংখ্যা ৮টি। প্রায় ৪০ বছর তিনি আলোকচিত্র ও চিত্রগ্রহক হিসেবে শিক্ষকতা করেছেন। তার ছাত্রদের মধ্যে রয়েছেন আলোচিত চলচ্চিত্রকার তারেক মাসুদ, তানভীর মোকাম্মেল ও মিশুক মুনির।

কালজয়ী চলচ্চিত্র সূর্য দীঘল বাড়ী, এমিলির গোয়েন্দা বাহিনী, লালসালু, অন্যজীবন, নদীর নাম মধুমতী, চিত্রা নদীর পারে এবং শ্যামল ছায়ার চিত্রগ্রাহক আনোয়ার হোসেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন পাঁচবার। বাংলাদেশের আলোকচিত্রীদের পুরো একটি প্রজন্মকে নতুন পথের দিশা দিয়েছে তার কাজ।

মুক্তিযুদ্ধের সময় জাপানের আশাহি পেইন্টিং প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে প্রথম আন্তর্জাতিক  পুরস্কার পাওয়া আনোয়ার হোসেন ১৯৭৮ সালে কানাডায় কমনওলেথ আলোকচিত্র প্রতিযোগিতায় ছয়টি মেডেল জয় করেন। এরপর চার দশকে ৬০টির মত আন্তর্জাতিক পুরস্কার জমে এই আলোকচিত্রীর ঝুলিতে।

১৯৪৮ সালের ৬ অক্টোবর পুরান ঢাকার আগানবাব দেউড়িতে আনোয়ার হোসেনের জন্ম। বাবা সিনেমার অফিসে কাজ করতেন বলে শৈশবেই রুপালি জগতের সঙ্গে তার পরিচয়।

নটরডেম কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পাস করে আনোয়ার হোসেন ভর্তি হন বুয়েটের স্থাপত্য বিভাগে। ১৯৭৪ সালে স্কলারশিপ নিয়ে সিনেমাটোগ্রাফির ওপর ডিপ্লোমা করতে যান ভারতের পুনে ফিল্ম ইনস্টিটিউটে। সেখানে বিখ্যাত জাপানি নির্মাতা আকিরা কুরোসাওয়ার সঙ্গে তার আলাপ হয়।

পুনে থেকে ফিরে মসিউদ্দিন শাকেরের 'সূর্য দীঘল বাড়ী' আর বাদল রহমানের 'এমিলের গোয়েন্দা বাহিনী' চলচ্চিত্রে কাজ শুরু করেন আনোয়ার হোসেন। সেসময় তার পরিচয় হয় প্রখ্যাত নারী নেত্রী ড. নীলিমা ইব্রাহীমের কন্যা অভিনেত্রী ডলি ইব্রাহীমের সংগে। ১৯৭৯ সালে ডলি ইব্রাহীম বিয়ে করেন আনোয়ার হোসেনকে।

১৯৯১ সালের পহেলা জুলাই ডলি আনোয়ার আত্মহত্যা করার পর আনোয়ার হোসেন প্রায় পাঁচ বছর নিভৃতচারী ছিলেন। এই দীর্ঘ সময় যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, ইংল্যান্ড ঘুরে প্যারিসে বসবাস শুরু করেন আনোয়ার। ১৯৯৬ সালে ফরাসি নাগরিক মরিয়মকে বিয়ে করে স্বাভাবিক জীবনে ফিরেন তিনি। কিন্ত ২০১৮ সালের এই দিনে বীর মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেন অস্বাভাবিকভাবে চির বিদায় নেন।

এই বিভাগের আরো খবর

শেষ হলো ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজধানীর জাতীয়...

বিস্তারিত
‘উদয়াচল পার্ক’ সবার জন্য উন্মুক্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক: খেলাধূলা ও...

বিস্তারিত
ভয়কে জয় করা এক মেয়ের গল্প ‘ন ডরাই’

নিজস্ব প্রতিবেদক: বাংলাদেশে...

বিস্তারিত
সুশান্তের ৩৫তম জন্মদিন আজ

বিনোদন ডেস্ক:  বলিউডের প্রয়াত...

বিস্তারিত
‘নারী জীবন’: নিরন্তর লড়াইয়ের গল্প

নিজস্ব প্রতিবেদক : জীবনের বিভিন্ন...

বিস্তারিত
সড়ক দুর্ঘটনায় চিত্রগ্রাহক রাহাতের মৃত্যু

বিনোদন ডেস্ক: আজ বুধবার ভোর ৬টার দিকে...

বিস্তারিত
অভিনেতা মজিবুর রহমান দিলু'র ইন্তেকাল

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিশিষ্ট অভিনেতা,...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *