ঢাকা, শুক্রবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৭, ১ পৌষ ১৪২৪, ২৬ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯
শিরোনামঃ
শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস আজ  রায়েরবাজার বধ্যভূমিতে সকল যুদ্ধাপরাধীদের বিচার দাবি ওয়ান প্লানেট সম্মেলন শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী জলবায়ু খাতে ৭ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগের পরিকল্পনা সরকারের সৌদি আরবে জিয়া পরিবারের বিপুল অর্থ, তদন্ত করবে দুদক পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র সংসদ নির্বাচন দাবিতে সোচ্চার হোন থার্টিফার্স্ট নাইটে উন্মুক্ত স্থানে কোনো অনুষ্ঠান নয়: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শিক্ষা অধিদপ্তর-বোর্ড ও বিজি প্রেস থেকে প্রশ্ন ফাঁস হয়: দুদক বিএনপি নির্বাচনে না আসলে গণতন্ত্র বাধাগ্রস্ত হবে না পল্লী বিদ্যুতে অতিরিক্ত ইলেকট্রিশিয়ান নিয়োগ দেওয়ায় মানববন্ধন রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনের প্রচার-প্রচারণা তুঙ্গে হাইকোর্টে লক্ষ্মীপুরের ইউএনওর ক্ষমা প্রার্থনা খাগড়াছড়িতে ৬ সশস্ত্র যুবক আটক চট্টগ্রামের সেবা সমূহ ডিজিটালাইজড হওয়ার তাগিদ দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে সারা দেশে বিএনপির বিক্ষোভ আকায়েদের বিরুদ্ধে মার্কিন পুলিশের তিন অভিযোগ আশুগঞ্জে আমন চাল সংগ্রহ অভিযান শুরু ভূমিমন্ত্রীর ছেলে তমালকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ গাইবান্ধায় যুবলীগ নেতার ও বরগুনায় জেলের মরদেহ উদ্ধার ঢামেক হাসপাতাল দিচ্ছে ডিজিটাল ডেথ সার্টিফিকেট

দেশে বৌদ্ধ নিদর্শন অনেক, পর্যটনের সরকারি উদ্যোগ নেই

প্রকাশিত: ০৪:৫৯ , ১৯ জুলাই ২০১৭ আপডেট: ০৪:৫৯ , ১৯ জুলাই ২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক: দক্ষিণ ও পূর্ব এশিয়ায় বৌদ্ধ ধর্মের অনেক ঐতিহাসিক নিদর্শন রয়েছে। বাংলাদেশের পার্বত্য অঞ্চলেও রয়েছে অনেক পুরনো বৌদ্ধ ঐতিহ্য। এই নিদর্শন ও ঐতিহ্যকে কেন্দ্র করে পর্যটনের বিকাশে ঢাকায় আন্তর্জাতিক সম্মেলনের পর ৮ মাসেও তেমন কোনো উদ্যোগ নেয়নি সরকার। পর্যটন এলাকা চিহ্নিত করা ও প্রচার-প্রচারণার কাজেও তেমন অগ্রগতি নেই বলে জানান পর্যটন খাত সংশ্লিষ্টরা। 

গত বছর অক্টোবর মাসে ঢাকায় অনুষ্ঠিত ‘ইন্টারন্যাশনাল কনফারেন্স অন বুদ্ধিস্ট হেরিটেজ এন্ড পিলগ্রিম সার্কিট’-এর মধ্য দিয়ে দক্ষিণ এশীয় বৌদ্ধ ট্যুরিজম সার্কিটে যুক্ত হয় বাংলাদেশ। এ সার্কিটে রয়েছে ভারত, ভুটান, নেপাল ও শ্রীলঙ্কা। সেই সম্মেলনেই এক লাখ বৌদ্ধ পর্যটক আকর্ষণ করার লক্ষ্য নির্ধারণ করে বাংলাদেশ। তবে এক বছরেও লক্ষ্য অর্জনে সরকার তেমন কোনো পদক্ষেপ নেয়নি বলে অভিযোগ পর্যটন সংশ্লিষ্টদেরণ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্যুরিজম এন্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের পরিচালক ড. সৈয়দ রাশেদুল হাসান বলেন, “বৌদ্ধ পর্যটন বলতে কী বোঝায় আমাদের দেশের নীতি নির্ধারকরা বোধহয় জানেন না।”

বেসরকারি ট্যুর অপারেটর সৈয়দ গোলাম কাদের বলেন, “এই পর্যটনের জন্য গবেষণা করা, পণ্য তৈরি করা, বৌদ্ধ মার্কেটে নিয়ে গিয়ে তুলে ধরা এবং বাংলাদেশের সক্ষমতাগুলো দেখানোর কাজগুলো আমরা করিনি।”

ভারতের পরিসংখ্যান ব্যুরোর তথ্য অনুযায়ী, ২০১৪ সালে ২ লাখ ২৫ হাজার পর্যটক ভারতের গোয়া আর ১ লাখ ২৫ হাজার পর্যটক নেপালের লুম্বিনি ও সাড়ে তিন লাখ পর্যটক মিয়ানমার ভ্রমণ করেছেন। প্রতিবেশী এসব দেশ ঘুরতে আসা পর্যটকদের বাংলাদেশে আনতে সরকার উদ্যোগ নিচ্ছে বলে জানান বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন।

তিনি বলেন, “থাইল্যান্ডের সাথে একটা চুক্তি করছি আমরা এবং ভুটান, শ্রীলঙ্কা ও কম্বোডিয়ার সাথেও চুক্তির প্রক্রিয়া চলছে। চুক্তিটা মূলত পর্যটকদের আগমন নিয়ে হবে। সেখানে জোর দেয়া হবে বৌদ্ধ পর্যটনের ওপর।”

এ ধরনের বিশেষায়িত পর্যটন বিকাশে ভারত-নেপাল-ভুটানের সঙ্গে আন্তঃদেশীয় চুক্তির ব্যাপারেও ভাবছে সরকার।
 

এই বিভাগের আরো খবর

রোহিঙ্গা সংকটে নেপিদোর পাশে থাকবে বেইজিং

মিয়ানমারের সেনাপ্রধানের সাথে চীনের প্রেসিডেন্টের বৈঠক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: মিয়ানমারের সীমান্ত এলাকায় নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতা বজায় রাখতে গঠনমূলক অবদান রাখার আশ্বাস দিয়েছে চীন। শুক্রবার সফররত...

বিদেশী পর্যটক খুব কম

পর্যটন শিল্পের বিকাশে প্রয়োজন সুপরিকল্পিত উদ্যোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক : পর্যটন কেন্দ্র ও পর্যটকের সংখ্যা সিলেট অঞ্চলে বাড়লেও বিদেশী পর্যটক খুব কম। তবে পর্যবেক্ষকদের মতে, সকল সীমাবদ্ধতা দূর...

সিলেটের পর্যটন নিয়ে আগ্রহ বাড়ছে

প্রয়োজনীয় সুযোগ-সুবিধা তেমনটা বাড়েনি

নিজস্ব প্রতিবেদক : দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে সিলেট অঞ্চলের সাথে যোগাযোগ ব্যবস্থা ভালো।  এই অঞ্চলের অধীবাসীদের অনেকে প্রবাসী, ফলে আর্থিক...

ব্যক্তিগত প্রচারণায় বাড়ছে পর্যটন

অনুসন্ধিৎসু পর্যটকরাই খুঁজে বের করছে নতুন দর্শনীয় স্থান

নিজস্ব প্রতিবেদক : মাত্র কয়েক দশক আগেও যেকানে সিলেট অঞ্চলের অল্প কয়েকটি এলাকা পর্যটন কেন্দ্র হিসেবে পরিচিত ছিল সেখানে এখন একশ এগারোটি...

পর্যটকদের ভিড় বেড়েছে সিলেট অঞ্চলে

এক দশকে পর্যটন কেন্দ্রের সংখ্যা একশ ছাড়িয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক : পর্যটনের জন্য বৃহত্তর সিলেটের বিশেষ সমাদর বহু কালের হলেও বিগত এক দশকে এর বি¯তৃতি নজরকাড়া। চা-বাগান ও হযরত শাহজালালের...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is