সমালোচনার মুখে আসামির স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি আদায়ের প্রক্রিয়া

প্রকাশিত: ১০:২৫, ১৯ জানুয়ারি ২০২১

আপডেট: ১১:০৮, ১৯ জানুয়ারি ২০২১

এজাজুল হক মুকুল: আবারো সমালোচনা ও বিতর্কের মুখে পড়েছে আসামির স্বাীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি আদায়ে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর প্রক্রিয়া। নির্যাতনের পর জোর করে স্বীকারোক্তি আদায়ের অভিযোগ উঠছে অহরহ।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, প্রশাসন ও ম্যাজিস্ট্রেটের তদারকি না থাকায় জোর করে স্বীকারোক্তি আদায়ের ঘটনা বাড়ছে। জবানবন্দি নেয়ার ক্ষেত্রে ডিজিটাল পদ্ধতি ব্যবহারের পরামর্শ দিয়েছেন আপিল বিভাগের প্রাত্তন বিচারপতি শামছুদ্দিন চৌধুরী মানিক।

জিসা মনি পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থী। গত চৌঠা জুলাই নারায়ণগঞ্জ থেকে নিখোঁজ হয়। থানায় অপহরণ মামলা করেন তার বাবা। পুলিশ আব্দুল্লাহ, রকিব এবং খলিল নামে ৩ জনকে গ্রেপ্তার করে। তারাও আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে বলেন, শিশুটিকে ধর্ষণের পর হত্যা করে মরদেহ শীতলক্ষ্যা নদীতে ভাসিয়ে দিয়েছে। কিন্তু ঘটনার ৫১ দিন পর ওই শিশুটি নারায়ণগঞ্জের বন্দর থানায় হাজির হলে তোলপাড় শুরু হয় প্রশাসনে। 

চট্টগ্রামেও মৃত দীলিপ ফিরে এসেছে। সেখানেও আদালতে জবানবন্দিতে দীলিপকে হত্যার কথা স্বীকার করে আসামিরা। এরকম আরো কয়েকটি ঘটনার জবানবন্দিও উচ্চ আদালতে মিথ্যা প্রমাণিত হয়। এসব ঘটনার জেরে আবারো আলোচনায় জবানবন্দি গ্রহণের প্রক্রিয়া। 

প্রকৃত ঘটনা উদঘাটনের ব্যর্থতা লুকাতে তদন্তকারীরা নিরীহ মানুষের কাছ থেকে জোর করে স্বীকারোক্তি আদায় করছেন বলে মনে করেন, অ্যাটর্নি জেনারেল। 

তবে পুলিশ কিংবা তদন্তকারী সংস্থার আইনের পরিপন্থী কোন কিছু করার সুযোগ নেই বলে মনে করেন সাবেক মহা-পুলিশ পরিদর্শক। 

এমন ঘটনা এড়াতে আসামীকে জিজ্ঞাসাবাদের ক্ষেত্রে ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় উল্লেখিত বিষয়গুলো ম্যাজিস্ট্রেটদের মেনে চালার পরামর্শ দিয়েছেন আপিল বিভাগের প্রাক্তন এই বিচারপতি। 

উন্নত-বিশ্বের মত বিচার ব্যবস্থা ডিজিটাল করা গেলে এক্ষেত্রে স্বচ্ছতা আসবে বলেও মত তাঁর। 

স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি নেওয়ার সময় ম্যাজিস্ট্রেট এবং আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে আরো সতর্ক হওয়ারও আহ্বান জানান তিনি।
 

এই বিভাগের আরো খবর

নির্যাতিত কিশোরীর দুশ্চিন্তা

রাজবাড়ি সংবাদদাতা: রাজবাড়ীর...

বিস্তারিত
বেনাপোল দিয়ে দেশত্যাগ করেন পিকে হালদার

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রায় সাড়ে তিন...

বিস্তারিত
কার্টুনিস্ট কিশোরের জামিন বিষয়ে আদেশ ৩ মার্চ

নিজস্ব সংবাদদাতা: ডিজিটাল নিরাপত্তা...

বিস্তারিত
মাদক মামলায় ইরফান সেলিমকে অব্যাহতি

নিজস্ব সংবাদদাতা: এবার মাদক আইনে করা...

বিস্তারিত
সহপাঠিকে হত্যার দায়ে মৃত্যুদণ্ড

মানিকগঞ্জ সংবাদদাতা: মানিকগঞ্জে...

বিস্তারিত
পাকস্থলীতে ১৪শ পিস ইয়াবা! 

রাজবাড়ী সংবাদদাতা: রাজবাড়ীতে ১৪শ পিস...

বিস্তারিত
খুলনায় হত্যা মামলায় ৫ জনের যাবজ্জীবন

খুলনা সংবাদদাতা: খুলনার কয়রায় একটি...

বিস্তারিত
আজিজ কো-অপারেটিভের চেয়ারম্যানের জামিন খারিজ

নিজস্ব প্রতিবেদক: পাঁচ হাজারেরও বেশি...

বিস্তারিত
পাচার হওয়া অর্থ ফেরত আনতে হাইকোর্টের রুল

নিজস্ব প্রতিবেদক: বাংলাদেশ থেকে সুইস...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *