দেশের সংস্কৃতিকে তুলে ধরে চলচ্চিত্র নির্মাণের আহবান প্রধানমন্ত্রীর আপডেট: ১০:৩৮, ২৪ জুলাই ২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশের ইতিহাস, ঐতিহ্য আর সংস্কৃতিকে ধারণ করে চলচ্চিত্র নির্মাণের আহবান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার-২০১৫ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী একথা বলেন। তিনি আরও বলেন, সিনেমা শিল্পের বিকাশে এরই মধ্যে ট্যাক্স হলিডে সুবিধা দেওয়া হয়েছে। সিনেপ্লেক্স  ও আধুনিক প্রেক্ষাগৃহ নির্মাণে আর্থিক সুবিধা প্রদানের ঘোষণাও দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০১৫ প্রদানে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে এই বর্ণাঢ্য আয়োজন। সোমবার ২৫টি ক্যটাগরিতে ৩১ শিল্পী ও কলাকুশলীকে পুরস্কার প্রদান করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এসময় চলচ্চিত্র শিল্পে অসামান্য অবদানের জন্য গায়িকা ফেরদৌসি রহমান ও অভিনেত্রী শাবানাকে আজীবন সম্মাননা প্রদান করা হয়।

গুণী শিল্পীদের হাতে পুরস্কার তুলে দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, সত্যিকারের শিল্পীদের যেন মূল্যায়ন হয় সেদিকে সবাইকে লক্ষ্য রাখতে হবে।

তিনি বলেন, ‘‘যখন এই শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র বা শ্রেষ্ঠ পুরস্কার দেওয়া হয়, আমি আশা করবো,  এখানে কেউ কারো প্রভাব খাটানোর চেষ্টা করবেন না। সত্যিকার শিল্পীর যেন মূল্যায়ন হয়। সত্যিকার কলা কৌশলের যেন মূল্যায়ন হয়। সেদিকে বিশেষ ভাবে দৃষ্টি দেবেন।’’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, সকল ক্ষেত্রে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু বিশ্বমানের চলচ্চিত্র নির্মাণে খুব একটা অগ্রগতি হয়নি। তাই এখাতের উন্নয়নে চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্টদের প্রশিক্ষণ এবং মানোন্নয়নে বহুমুখী উদ্যোগ নিয়েছে সরকার।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘চলচ্চিত্রের মান উন্নয়নে চলচ্চিত্র নির্মাণ, চলচ্চিত্র বিষয়ে অধ্যয়ন, প্রশিক্ষণ এবং গবেষণা সহায়ক পরিবেশ সৃষ্টির লক্ষ্যেই এই পদক্ষেপ আমরা নিয়েছি।’

এসময় দেশের ইতিহাস, ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি ধারণ করে চলচ্চিত্র নির্মাণের আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, ‘যে স্ক্রিপটা সেটা কতটা দক্ষতার সাথে প্রস্তুত করা হলো,যা একটা সিনেমা দেখার পর তার রেশটা নিয়ে যেন ঘরে ফেরা যায়।’

সবশেষে ছিলো চলচ্চিত্র শিল্পীদের পরিবেশনায় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

 

Publisher : .