ছাড়পত্র দেখাতে না পারায় হজে যেতে পারলেন না ১০৫ হজযাত্রী  আপডেট: ০৯:৪২, ২৯ জুলাই ২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক: নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে প্রয়োজনীয় ছাড়পত্র বিমাবন্দর কর্তৃপক্ষকে দেখাতে না পারায় হজে যেতে পারলেন না ১০৫ জন হজযাত্রী। গতকাল শুক্রবার বিকেলে তিনটি এজেন্সির ওই যাত্রীদের ছাড়াই ঢাকা ছাড়ে সৌদিয়া এয়ারলাইন্সের দুইটি হজ ফ্লাইট।

যাত্রীদের অভিযোগ-- এজেন্সিগুলোর গাফিলতির কারণেই এমন বিড়ম্বনায় পড়েছেন তাঁরা। তবে এজেন্সিগুলো বলছে, সময়মতো বিমানবন্দরে পৌঁছাতে না পারার কারণেই এমন অবস্থায় পড়েছেন তাঁরা। তবে এই যাত্রীদের দ্রুত জেদ্দায় পাঠানোর ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন হজ পরিচালক।

পবিত্র হজ পালনের জন্য সৌদি আরবের উদ্দেশে যাওয়ার সব প্রস্তুতিই সম্পন্ন করেছিলেন এই হজযাত্রীরা। তবে শেষ সময়ে এজেন্সি থেকে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র না পাওয়ায় বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষকে সময়মতো তা দেখাতে পারেননি তাঁরা। ফলে শুক্রবার বিকেলে এই ১০৫ জন হজযাত্রীকে ছাড়াই ঢাকা ছাড়ে সৌদিয়া এয়ারলাইন্সের দুটি হজ ফ্লাইট। হয়রানির শিকার হওয়া যাত্রীদের আবার ফেরত পাঠানো হয় হজ ক্যাম্পে।

যাত্রীদের অভিযোগ, কে. আই. ট্রাভেলস, জাজিরাতুল আরব ও সিটি এয়ার নামে তিনটি এজেন্সির গাফিলতির কারণেই ফ্লাইট ধরতে পারেননি তাঁরা। এ ছাড়া অব্যবস্থাপনা ও অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের অভিযোগও করেন তাঁরা।

তবে এ অভিযোগ অস্বীকার করে এজেন্সি কর্তৃপক্ষ জানায়, নির্দিষ্ট সময়ে বিমানবন্দরে পৌঁছাতে না পারায় নির্ধারিত ফ্লাইটে যেতে পারেননি তাঁরা।

এদিকে, হয়রানির শিকার হওয়া এই যাত্রীদের পরবর্তী একদিনের মধ্যে পুনরায় ফ্লাইট নির্ধারণ করে জেদ্দা পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে হজ কর্তৃপক্ষ। অন্যথায় এজেন্সিগুলোর বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান হজ পরিচালক।

হজযাত্রীদের এমন হয়রানি কাম্য নয় বলে উল্লেখ করে ভবিষ্যতে এমন অবস্থার পুনরাবৃত্তি যাতে না হয়, সে-নির্দেশনাও দিয়েছে হজ কর্তৃপক্ষ।
 

 

Publisher : .