ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৪ অক্টোবর ২০১৭, ৯ কার্তিক ১৪২৪, ৩ সফর ১৪৩৯

'ষোড়শ সংশোধনী বাতিলে সরকার ক্ষমতায় থাকার অধিকার হারিয়েছে'

প্রকাশিত: ০৩:১৪ , ১২ আগস্ট ২০১৭ আপডেট: ০৩:১৪ , ১২ আগস্ট ২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক: ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের পর সরকার ক্ষমতায় টিকে থাকার নৈতিক অধিকার হারিয়েছে বলে দাবি করেছে বিএনপি নেতারা। ব্যর্থতা ঢাকতে আর জনগণের দৃষ্টি আড়ালের জন্য ক্ষমতাসীনরা নতুন ষড়যন্ত্র করছে বলেও অভিযোগ করেন দলটির সিনিয়র নেতারা। রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক দোয়া মাহফিলে তাঁরা এসব কথা বলেন।

লন্ডনে চিকিৎসাধীন দলের চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় এ দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে জাতীয়তাবাদী যুবদল। এতে অংশ নিয়ে বিএনপি’র সিনিয়র নেতারা বলেন, সরকার প্রত্যেকটি সেক্টরে ব্যর্থ হয়ে এখন বেসামাল হয়ে পড়েছে

জনগণের দৃষ্টি ভিন্ন খাতে নিতেই আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের দেশে ষড়যন্ত্রের আশংকা ব্যক্ত করে বক্তব্য রাখছেন বলে দাবি করেন বিএনপি’র সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

রিজভী বলেন, যখন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কিংবা নেতারা দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের কোনো আশংকা করেন, তখন বুঝতে হবে তাঁরা নিজেরাই নতুন কোনো ষড়যন্ত্র করছেন।

এ সময় দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ষোড়শ সংশোধনী রায়ের পর্যবেক্ষণে পরোক্ষভাবে বলা হয়েছে, এ সংসদের গ্রহণযোগ্যতা নেই। এর পর সরকার ক্ষমতায় থাকার নৈতিক অধিকার হারিয়ে ফেলেছে বলে দাবি করেন মির্জা ফখরুল।

নিরপেক্ষ সরকারের দাবি আদায়ে সংগঠনকে আরো শক্তিশালী করতে নেতা-কর্মীদের নির্দেশ দেন বিএনপি মহাসচিব।
 

এই সম্পর্কিত আরো খবর

বিএনপি নেতা এম কে আনোয়ার আর নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক: সাবেক মন্ত্রী ও বিএনপি’র জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য এম  কে আনোয়ার আর নেই। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।...

সাড়ে তিন মাস পর দলের নীতি নির্ধারনী ফোরামের বৈঠক করলেন খালেদা

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রায় সাড়ে তিন মাস পর দলের নীতি নির্ধারনী ফোরামের সদস্যদের নিয়ে বৈঠকে অংশ নিলেন বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া।...

ইসি’র সঙ্গে নারীনেত্রীদের সংলাপ

৩৩ শতাংশ নারী নেতৃত্ব না থাকলে দলের নিবন্ধন বাতিল দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক: যে সব রাজনৈতিক দলের গঠনতন্ত্রে ৩৩ শতাংশ নারী প্রতিনিধিত্ব নেই তাদের নিবন্ধন বাতিল করার দাবি জানিয়েছেন নারী নেত্রীরা।...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is