সিসি ক্যামেরার আওতায় পুরো ভৈরব বাজার আপডেট: ১১:২৮, ১৮ আগস্ট ২০১৭

ভৈরব প্রতিনিধি: কিশোরগঞ্জ জেলার ব্যবসায়িক প্রাণকেন্দ্র ভৈরবের পুরো বাজার এলাকাকে নিয়ে আসা হয়েছে  সিসি ক্যামেরার আওতায়। বিশাল এই বাজারের আধুনিকায়ন আর নিরাপত্তা বাড়াতে সরকারি-বেসরকারি উদ্যোগে স্থাপন করা হয়েছে ৫০০’র বেশি সিসি ক্যামেরা। যার মূল উদ্যোক্তা ভৈরব চেম্বার অব কমার্স। সরকারি-বেসরকারি উদ্যোগে গোটা ভৈরব শহরে সবমিলিয়ে অন্তত ৫০০ সিসি ক্যামেরা স্থাপন করা হয়েছে।

কিশোরগঞ্জ জেলার ভৈরব বাজার ব্রিটিশ আমলে গড়ে ওঠা ব্যবসা বাণিজ্যের এক বড় কেন্দ্র। প্রতিদিনই এখানে লেনদেন হচ্ছে কোটি কোটি টাকা। রয়েছে ২২টি বাণিজ্যিক ব্যাংকের শাখা। তবে বড় অংকের অর্থের প্রবাহ ও লেনদেন থাকায় নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগ রয়েছে স্থানীয় ব্যবসায়ীদের। বিভিন্ন সময় ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের তালা ও টিনের চালা কেটে ক্যাশ ও সিন্দুক ভেঙে টাকা লুট করে নিয়েছে ডাকাতরা। প্রকাশ্য দিবালোকে ছুরি মেরে টাকা ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনাও ঘটেছে।

এসব থেকে রেহাই পেতে ভৈরবে বাড়ছে সিসি ক্যামেরার ব্যবহার। প্রাতিষ্ঠানিক ও ব্যক্তিগত উদ্যোগে গোটা ভৈরব বাজার এলাকা নিয়ে আসা হয়েছে সিসি ক্যামেরার আওতায়। এতে চুরি-ডাকাতি ও ছিনতাইসহ বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড অনেকাংশে কমে আসছে বলে জানালেন ব্যবসায়ীরা।

বাজারের গুরুত্বপূর্ণ শতাধিক পয়েন্টে সিসি ক্যমেরা স্থাপন করেছে ভৈরব চেম্বার অব কমার্স। এছাড়া উপজেলা কমপ্লেক্স, রেল স্টেশন, থানাসহ সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি ব্যক্তি উদ্যোগে শপিংমল, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, বাসাবাড়িতেও সিসি ক্যামেরা স্থাপন করা হয়েছে। যা খুব কাজে লাগছে বলেই জানালেন চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি আব্দুল্লাহ আল মামুন।

এভাবে শহরজুড়ে সিসি ক্যামেরা স্থাপনের ফলে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখা সহজ হয়েছে বলে জানালেন ভৈরব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোখলেসুর রহমান।