দেশে বেড়েছে ঠান্ডাজনিত রোগ ও ডায়রিয়া

প্রকাশিত: ০২:৩৩, ১৮ নভেম্বর ২০২১

আপডেট: ০২:৪২, ১৮ নভেম্বর ২০২১

লাবণী গুহ : দেশের বিভিন্ন জেলায় শীত নামতে শুরু করেছে। হঠাৎ ঠান্ডা পড়ায় অসুস্থ হয়ে পড়ছেন অনেকেই। বিশেষ করে শিশু ও বৃদ্ধরা ঠান্ডাজনিত রোগের পাশাপাশি আক্রান্ত হচ্ছেন ডায়রিয়ায়। ভৈরব, ঝিনাইদহ,  মেহেরপুর, যশোর, দিনাজপুর,পঞ্চগড়, নীলফামারীসহ বিভিন্ন জেলার হাসপাতালগুলোতে ধারণ ক্ষমতার বেশি রোগি পাওয়া যাচ্ছে।

আইসিডিডিআর’বির তথ্য বলছে, প্রতিদিন প্রায় ৫ শতাধিক ডায়রিয়ার রোগি হাসপাতালে ভর্তি হয়। আর স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্যমতে, চলতি মাসের শুরু থেকেই সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ঠান্ডাজনিত রোগ নিয়ে অনেক রোগি আসছেন। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ঋতু পরিবর্তনের ফলে ডায়রিয়া ও নিউমোনিয়া বাড়ছে। 

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্যে দেখা যায়, চলতি বছর অক্টোবর পর্যন্ত শুধুমাত্র ডায়রিয়ায় মারা গেছেন ৮১ জন। এরমধ্যে চট্টগ্রাম বিভাগে ১৪ জন। খুলনা বিভাগে ৪ জন, বরিশাল বিভাগে ২২ জন,এবং সিলেট বিভাগে ৪১ জন। বৈশাখী টিভির ভৈরব সংবাদদাতা জানান, ঠান্ডাজনিত রোগে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রতিদিন গড়ে সাড়ে-চারশ রোগি চিকিৎসা নিতে আসেন।

মেহেরপুর সংবাদদাতা জানিয়েছেন, গত এক সপ্তাহে জেলার হাসপাতালে শুধুমাত্র শিশু ওয়ার্ডেই চিকিৎসা নিয়েছে ১ হাজার ৫৪৬ জন। 

চিকিৎসকরা বলছেন, মূলত দুই ধরণের ভাইরাসে এখন ডায়রিয়া হচ্ছে। নিয়ম মেনে স্যালাইন খাওয়াতে হবে আক্রান্তদের। 

করোনারও একটা লক্ষণ ডায়রিয়া। তাই এ বিষয়েও খেয়াল রাখার পরামর্শ দেন চিকিৎসকরা।

এছাড়া, পরিচ্ছন্ন থাকা, গরম কাপড় পরা এবং ঠান্ডা দীর্ঘস্থায়ী হওয়ার আগেই চিকিৎসকের কাছে যাওয়ার পরামর্শ দেন তারা।
 


 

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *

loading...
loading...