লক্ষ্মীপুরে গৃহবধূকে নির্যাতন, মূলহোতা গ্রেফতার

প্রকাশিত: ০৮:১০, ০২ ডিসেম্বর ২০২১

আপডেট: ০৮:১০, ০২ ডিসেম্বর ২০২১

লক্ষ্মীপুর সংবাদদাতা: লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে গভীর রাতে গৃহবধূকে তুলে নিয়ে নির্যাতনের ঘটনার মূলহোতা লোকমান হোসেন কালুকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আজ বৃহস্পতিবার (দোসরা ডিসেম্বর) দুপুরে গ্রেফতারকৃত কালুকে আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে। 

এর আগে (১লা ডিসেম্বর) বুধবার ভিকটিম ওই গৃহবধূ বাদী হয়ে মামলা করলে রাতেই অভিযান চালিয়ে উপজেলার চরলরেঞ্চ ইউনিয়নের চৌধুরীবাজারস্থ জসিমের দোকান সংলগ্ন এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃত লোকমান হোসেন ওরফে কালু ভোলা জেলার মাইজচর এলাকার মৃত রফিক মাঝির ছেলে। মেঘনা নদীতে বাড়ি-ঘর ভেঙ্গে যাওয়ায় ওই গৃহবধূর পাশের বাড়িতে ভাড়াটিয়া হিসেবে থাকতো সে। 

কমলনগর থানার ওসি জানান, জিজ্ঞাসাবাদে গৃহবধূকে তুলে নিয়ে ধানক্ষেতে বিবস্ত্র করে নির্মম নির্যাতনের বর্ণনা দিয়ে দায় স্বীকার করেছে গ্রেফতারকৃত কালু। অভিযুক্ত কালু ভিকটিম গৃহবধূর স্বামী জসিমের সাথে মাঝে মধ্যে মাছ শিকারে নদীতে যেতো। সেই সুবাধে কোন এক সময় বাড়িতে কথা বলার অজুহাতে জসিমের মোবাইল নিয়ে গোপনে গৃহবধুর নাম্বার সংগ্রহ করে। ঘটনার দিন মঙ্গলবার বিকেলেও কণ্ঠ নকল করে নিজেকে (স্বামী) জসিম পরিচয়ে ভুক্তভোগী ওই গৃহবধূকে ফোন দিয়ে রাতে বাড়িতে আসার কথা জানায় কালু। পরে রাত তিনটার দিকে জসিমের (স্বামী) কণ্ঠ নকল করেই দরজা খুলতে বলে সে। এসময় দরজা খুলে বাহিরে স্বামীকে দেখতে না পেয়ে দরজা বন্ধ করতে গেলে গৃহবধুর মুখ চেপে ধরে কাপড় ও রশি দিয়ে বেঁধে ফেলে। পরে টানা হেঁচড়া করে বাড়ি থেকে ৩শ গজ দূরে ধানক্ষেতে নিয়ে গৃহবধুর উপর পাশবিক নির্যাতন চালায় কালু। এসময় গৃহবধূ জ্ঞান হারিয়ে ফেললে মৃত ভেবে চলে যায় বলে পুলিশী জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছে কালু। 

তিনি আরো জানান, ঘটনাস্থল থেকে মোবাইল ফোনসহ নির্যাতনের বেশ কিছু আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে। তবে মোবাইল ফোনের সূত্র থেকে কালুকে শনাক্ত করা হয়। তার বিরুদ্ধে এর আগেও এ ধরণের ঘটনা ঘটানোর অভিযোগ রয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে তাকে আদালতে হাজির করা হলে বিচারক তাকে  জেলা কারাগারে প্রেরণ করেন বলে জানান তিনি।

MBK/MSI

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *

loading...
loading...