অ্যাঙ্গেলা মের্কেলের আনুষ্ঠানিক বিদায়

প্রকাশিত: ০৯:৪৯, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১

আপডেট: ০৯:৪৯, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: দীর্ঘ ১৬ বছর সরকার প্রধান থাকার পর আনুষ্ঠানিকভাবে বিদায় নিলেন জার্মানির চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মের্কেল। বার্লিনে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের দফতরে আয়োজিত অনুষ্ঠানে যথাযোগ্য মর্যাদার সঙ্গে কুচকাওয়াজ প্রদর্শন হয়। সেখানে দেয়া ভাষণে মের্কেল গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ রক্ষার পক্ষে কথা বলেন। তিনি জার্মানির মানুষের উদ্দেশে ঘৃণার বিরুদ্ধে রঁ“খে দাঁড়ানোর আহ্বান জানান। অন্যের দৃষ্টিভঙ্গি থেকেও সবসময় জগতকে দেখার পরামর্শ দেন তিনি। কখনোই আশাবাদ ত্যাগ না করারও কথা বলেন মের্কেল। জলবায়ু পরিবর্তন, ডিজিটালাইজেশন, শরণার্থী সংকটের মতো বিশাল চ্যালঞ্জে সামলাতে নিজের অভিজ্ঞতাও তুলে ধরেন তিনি। এ প্রসঙ্গে আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠান ও বহুপাক্ষিক কাঠামোগুলিকে মের্কেল অপরিহার্য বলে উল্লেখ করেন।

ক্ষমতা হস্তান্তরের আগে আনুষ্ঠানিকভাবে বিদায় নিলেন অ্যাঙ্গেলা মের্কেল। আগামী সপ্তাহে নতুন সরকারের কার্যভার নেয়ার কথা রয়েছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বিদায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মের্কেলের সম্ভাব্য উত্তরসূরী ওলাফ শলৎস। মের্কেল তাঁকে ও তাঁর ভবিষ্যৎ প্রশাসনকে আন্তরিক শুভকামনা জানান। অ্যাঙ্গেলা মের্কেলকে বিদায় জানাতে প্রেসিডেন্ট ফ্রাংক-ভাল্টার স্টাইনমায়ারসহ অন্যান্য রাজনৈতিক দলের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। কোনো বেসামরিক ব্যক্তিকে সম্মান জানাতে জার্মান সেনাবাহিনীর সর্বোচ্চ সম্মান এই অনুষ্ঠান। 

ষোড়শ শতাব্দী থেকে সাধারণত চ্যান্সেলর, প্রেসিডেন্ট ও প্রতিরক্ষামন্ত্রীকে বিদায় জানাতে এই কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠিত হয়। আনুষ্ঠানিক বিদায়ের পরেও কয়েকদিন কার্যনির্বাহী চ্যান্সেলর হিসেবে কাজ চালিয়ে যেতে হবে মের্কেলকে।

AAJ/TEJ

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *

loading...
loading...