বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে ৩ লাখ ৭০ হাজার রোহিঙ্গা: জাতিসংঘ আপডেট: ০৮:৪৩, ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক: বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গার সংখ্যা এখন ৩ লাখ ৭০ হাজার। আজ এ তথ্য জানিয়েছে জাতিসংঘের উদ্বাস্তু বিষয়ক হাইকমিশন। মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে দেশটির সেনাবাহিনীর অভিযান ও নির্যাতনের মুখে প্রাণ বাঁচাতে পালিয়ে বাংলাদেশে আসছে লাখ লাখ রোহিঙ্গা।

জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক হাই কমিশন- ইউএনএইচসিআর জানায়, ২৫ আগস্ট রাখাইনে সেনা অভিযান শুরুর পর মঙ্গলবার পর্যন্ত সীমান্ত পাড়ি দিয়ে বাংলাদেশে ঢুকেছে অন্তত ৩ লাখ ৭০ হাজার রোহিঙ্গা। রয়টার্স জানায়, সোমবারও মংডু জেলায় রোহিঙ্গাদের অন্তত ৫০০ বাড়ি পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।

রাখাইনে মিয়ানমারের নিরাপত্তা বাহিনীর হত্যা, ধর্ষণ ও ঘরবাড়ি পুড়িয়ে দেওয়ার ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। সোমবার হোয়াইট হাউজের এক বিবৃতিতে রোহিঙ্গাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে মিয়ানমার সরকারের প্রতি আহবান জানানো হয়। বিবৃতিতে লাখো রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দেওয়ায় বাংলাদেশ সরকারের প্রশংসা করে ওয়াশিংটন।

হোয়াইট হাউসের বিবৃতির বিষয়ে মিয়ানমার কোন প্রতিক্রিয়া না জানালেও দেশটির রাষ্ট্রীয় উপদেষ্টা অং সান সুচি’র মুখপাত্র জানায়, রাখাইনে আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে সেনাবহিনী কাজ করে যাচ্ছে।

এদিকে, রাখাইনে স্থিতিশীলতা ফিরিয়ে আনতে মিয়ানমার সরকারের নেওয়া পদক্ষেপের প্রতি সমর্থন জানিয়েছে চীন। দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র গেং শুয়াং জানান, রাখাইনে শান্তি ফিরিয়ে আনতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের মিয়ানমারের পাশে দাঁড়ানো উচিত। তবে নিরাপত্তা বাহিনীর সহিংসতার নিন্দাও জানিয়েছে চীন।

রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে আলোচনার জন্য যুক্তরাজ্য ও সুইডেনের আহবানে বুধবার অনুষ্ঠিত হচ্ছে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের জরুরি বৈঠক।

পরিস্থিতি দেখতে বাংলাদেশে এসেছেন ইউএনএইচসিআরের সহকারী কমিশনার জর্জ ওকথ-ওবো। মঙ্গলবার বিকালে ঢাকায় নেমেই অভ্যন্তরীণ ফ্লাইটে কক্সবাজার যান তিনি। রোহিঙ্গাদের সহায়তায় বিশ্ববাসীকে এগিয়ে আসার আহবান জানিয়েছে আই.ও.এম এবং ইউএনএইচসিআর। তাদের জন্য ত্রাণ সামগ্রী নিয়ে মঙ্গলবার ঢাকায় এসেছে ইউএনএইচসিআরের দুটি কার্গো উড়োজাহাজ।