ঢাকা, শুক্রবার, ২০ অক্টোবর ২০১৭, ৫ কার্তিক ১৪২৪, ২৯ মহাররম ১৪৩৯
শিরোনামঃ
উজাড় হচ্ছে কক্সবাজার ও বান্দরবানের বনাঞ্চল পণ্য ও সেবা বাণিজ্যে আমদানি ব্যয় বাড়লেও বাড়েনি রপ্তানি আয় নকলা উপজেলা চেয়ারম্যানের লাশ উদ্ধার হারিয়ে যাচ্ছে ঠাকুরগাঁওয়ের ঐতিহ্যবাহী ‘ধামের গান’ সারাদেশে বৃষ্টি হচ্ছে, বেড়েছে জনদুর্ভোগ মেহেরপুরের ১৪৫ স্কুলের নলকূপে মাত্রাতিরিক্ত আর্সেনিক তরুণদের কাজে লাগাতে সৃজনশীল কর্মসূচি হাতে নিয়েছে যুবলীগ বগুড়ায় ছোট ভাইয়ের ছুরিকাঘাতে ভাই-ভাবি খুন জলাবদ্ধতামুক্ত চট্টগ্রাম নগরী তৈরিতে সবার সহযোগিতা চাই: নাছির এশিয়া কাপ হকিতে বিকেলে জাপানের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ সীতাকুন্ডে বাস-ট্রাক সংঘর্ষ, নিহত ২ আফগানিস্তানে ড্রোন হামলায় পাকিস্তানের জঙ্গি নেতা নিহত

আগামীকাল রাজশাহী যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত: ০১:১২ , ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭ আপডেট: ০১:১২ , ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক: আগামীকাল বৃহস্পতিবার রাজশাহী সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেদিন সকালে তিনি রাজশাহীর সারদায় অবস্থিত বাংলাদেশ পুলিশ একাডেমিতে শিক্ষানবিশ সহকারী পুলিশ সুপারদের প্রশিক্ষণ সমাপনী অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন।

এর পর তিনি নগরের উপকণ্ঠ হরিয়ান সুগার মিল মাঠে আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় ভাষণ দেবেন।

তাতে আওয়ামী লীগ ও ব্যবসায়ীদের সংগঠন রাজশাহী চেম্বারের পক্ষ থেকে বিভিন্ন দাবি তোলার কথা। রাজশাহীবাসীর প্রত্যাশা পূরণে প্রধানমন্ত্রীর তরফ থেকে প্রতিশ্রুতিও আসতে পারে ওই জনসভায়।

এর আগে ২০১১ সালের ২৪ নভেম্বর রাজশাহীর মাদ্রাসা মাঠে প্রধানমন্ত্রী বরাবর ১৪ দফা দাবি জানায় রাজশাহী আওয়ামী লীগ। এর অর্ধেক বাস্তবায়নের পথে। এবারো নতুন করে দাবি তুলে ধরবেন দলটির নেতারা।

জানা গেছে, ওদিনই প্রধানমন্ত্রী রাজশাহীর ১৬টি উন্নয়ন প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন। এ ছাড়া উদ্বোধন করবেন বাস্তবায়ন শেষ হওয়া ছয় প্রকল্পের। রাজশাহীর নেজারত ডেপুটি কালেক্টর শরীফ আসিফ রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, প্রধানমন্ত্রী তাঁর সফরে প্রায় ৭০০ কোটি টাকার মোট ২২টি প্রকল্পের উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন। এরই মধ্যে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে এসব প্রকল্পের বিস্তারিত বিবরণ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে।

জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রী যে ১৬টি প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন তার মধ্যে সবচেয়ে বড় প্রকল্প বঙ্গবন্ধু হাই-টেক পার্ক।

রাজশাহী মহানগরীর নবীনগর এলাকায় ৩১ দশমিক ৬৩ একর জমিতে ২৩৮ কোটি ২৪ লাখ টাকা ব্যয়ে পার্কটির নির্মাণকাজ চলমান।এর কাজ শেষ হবে ২০১৯ সালের জুনে। ডিজিটাল ইকনোমিক হাব হিসেবে নির্মিতব্য এ পার্কে প্রায় ১৪ হাজার নতুন কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হবে। এখানেই তৈরি হবে বিশ্বমানের সফটওয়্যার।
 

এই সম্পর্কিত আরো খবর

জলাবদ্ধতামুক্ত চট্টগ্রাম নগরী তৈরিতে সবার সহযোগিতা চাই: নাছির

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি: চট্টগ্রাম নগরীকে জলাবদ্ধতামুক্ত, পরিচ্ছন্ন ও সবুজ নগরীতে পরিণত করতে সিটি কর্পোরেশনের পাশাপাশি নাগরিকদের...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is