বিএসটিআই-এর স্টিকার থাকলে পণ্যমানের নিশ্চয়তা পান ক্রেতারা আপডেট: ০৬:২৫, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭

বিশেষ প্রতিবেদন: 'বিএসটিআই অনুমোদিত'-- এমন একটি স্টিকার বা ঘোষণা থাকলে পণ্যটি নিরাপদ ও নির্ভেজাল-- এ ধরনের ধারণা পায় ক্রেতারা।

বহু পণ্যের ক্ষেত্রে এ অনুমোদন বাধ্যতামূলক। আবার বহু পণ্যের ক্ষেত্রে বাধ্যতামূলক নয়। তা সত্ত্বেও বাজারে পণ্যের গ্রহণযোগ্যতা তৈরির জন্য অনেকে এ ধরনের অনুমোদন নিয়ে স্টিকার ব্যবহার করে।

অগণিত উৎস থেকে পণ্য আসে বাজারে। বৃহৎ, মধ্যম ও ক্ষুদ্র বাণিজ্যিক উৎপাদন ও সরবরাহ যেমন থাকে, তেমনি ব্যক্তিগত উদ্যোগেও পণ্য তৈরি, সরবরাহ ও বিক্রি হয়ে থাকে।

এতোসব উৎস থেকে উৎপাদিত বিপুল পরিমাণ বৈচিত্র্যপূর্ণ পণ্যের মান পরীক্ষা করা বিএসটিআ-এর পক্ষে সম্ভব নয়। 

তাই গুরুত্ব বিবেচনা করে সরকার এখন পর্যন্ত দেশে উৎপাদিত ১৫৪টি পণ্যের মান নিশ্চিত করা ও নিয়মিত পর্যবেক্ষণ বাধ্যতামূলক করেছে।

বিএসটিআই-এর সিএম পরিচালক প্রকৌশলী এস. এম. ইসহাক আলী জানান, পণ্যের মধ্যে রয়েছে ফুড আইটেম, বিল্ডিং ম্যাটারিয়ালস, ইলেক্ট্রিক্যাল প্রোডাক্ট, টেক্সটাইল পণ্য ছাড়াও বিভিন্ন প্রকার পণ্য।

কনজ্যুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্যাব)-এর সভাপতি গোলাম রহমান জানান, মানুষের ব্যবহার্য সকল পণ্যকেই বিএসটিআই-এর বাধ্যতামূলক মানের আওতায় আনা প্রয়োজন।

বিএসটিআই-এর মাধ্যমে বাধ্যতামূলকভাবে মান যাচাইয়ের জন্য নির্ধারিত ১৫৪টি পণ্যের একটি হলো ময়দা। অথচ দেশ জুড়ে বহু উৎস থেকে বাজারে, দোকানে ময়দা বিক্রি হয় বিএসটিআই-এর অনুমোদন বা পরীক্ষা ছাড়াই।

শুধুমাত্র বড় কোনো বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান নিজস্ব ফ্যাক্টরিতে ময়দা তৈরি করে তা প্যাকেটজাত করে বাজারজাত করলে সেগুলোতেই বিএসটিআই-এর অনুমোদন নেয়া অয়ে থাকে।

বিএসটিআই-এর মান নির্ণয় বিভাগের পরিচালক আ. ন. ম. আসাদুজ্জামান বলেন, "ইনগ্রেডিয়েন্ট (উপকরণ) থেকে শুরু করে প্যাকেজ কমোডিটিজ রুল অনুযায়ী যদি কোনো পণ্য  মোড়কজাত হয়ে যায়, তবে পণ্যটি বিএসটিআই-এর অনুমোদনের আওতায় চলে আসবে। কিন্তু পণ্যটি, যেমন- কেক বা বিস্কিট যদি খোলা অবস্থায় বিক্রি হয়, তা হলে এটি বিএসটিআই-এর অধীনে নয়।"

দেশীয় পণ্য ছাড়াও আমদানিকৃত ৫৫টি পণ্যের মান পরীক্ষা বাধ্যতামূলক। এসকল পণ্যও বাজারে টিনে  বা প্যাকেটে করে বিক্রি হয়ে থাকে।

বিএসটিআই-এর সিএম পরিচালক আরো জানান, "আমরা যখন ছাড়পত্র দিই তখন বলে দিই যে, পণ্যের গায়ে আমদানিকারকের নাম-ঠিকানা, উৎপাদন তারিখ, মেয়াদ উত্তীর্ণের তারিখ, পণ্যের পরিমাণ, মূল্য এবং বিএসটিআই-এর মনোগ্রামসহ উৎপাদক প্রতিষ্ঠানকে পণ্যটি বাজারজাত করতে হবে।

সরকারের নির্ধারিত বাধ্যতামূলক পণ্যগুলো ছাড়াও এ পর্যন্ত চার হাজারের বেশি পণ্যের মান পরীক্ষা করেছে বিএসটিআই। বাজারে নিজেদের পণ্যের গ্রহণযোগ্যতা তৈরির জন্য বাধ্যতামূলক না হলেও ব্যবসায়ীরা এ ধরনের অনুমোদন নেয়াটা লাভজনক মনে করেন।

এ ব্যাপারে বিএসটিআই-এর মান নির্ণয় বিভাগের পরিচালক আ. ন. ম. আসাদুজ্জামান বলেন, "উৎপাদন প্রতিষ্ঠান যখন পণ্যের গায়ে বিএসটিআই-এর মান চিহ্ন ব্যবহার করে, তখন স্বাভাবিকভাবেই জনমনে নিশ্চয়তা কাজ করে যে পণ্যটি মানসম্মত।"

মান পরীক্ষা ও নিশ্চিত করার জন্য বাধ্যতামূলক পণ্যের তালিকায় যেগুলো রয়েছে, সেগুলো একবার বাজারজাতকরণের সনদ পেলেও তার মেয়াদ তিন বছর। প্রতি তিন বছর পর পর বিএসটিআই-এর এ সনদ নবায়ন করতে  হয়।