ইইউ-যুক্তরাজ্যের নিষেধাজ্ঞায় ইরানের প্রতিক্রিয়া

প্রকাশিত: ২৪-০১-২০২৩ ২২:৪৯

আপডেট: ২৪-০১-২০২৩ ২২:৪৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইরানে সরকারবিরোধী বিক্ষোভে কঠোর দমনপীড়নের প্রতিক্রিয়ায় তেহরানের ওপর যুক্তরাজ্য ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের আরোপ করা নতুন নিষেধাজ্ঞার তীব্র নিন্দা জানিয়েছে ইরান।  এর পাল্টা জবাব দেয়ার হুমকিও দিয়েছে দেশটি।

ইইউ এবার ইরানের ৩০ জনের বেশি কর্মকর্তা ও সংগঠনের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। এর মধ্যে আছে ইরানের প্রভাবশালী রেভল্যুশনারি গার্ডের ইউনিটও। তাদের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ নির্মমভাবে দমন এবং অন্যান্য মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ করা হয়েছে।

সাম্প্রতিক এই নিষেধাজ্ঞা ঘোষণার প্রতিক্রিয়ায় মঙ্গলবার এক বিবৃতি দিয়েছে ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নাসের কানানি। বিবৃতিতে তিনি বলেছেন, “ইসলামিক রিপাবলিক (ইরান) শিগগিরই ইইউ এবং ইংল্যান্ডের মানবাধিকার লঙ্ঘনকারীদের বিরুদ্ধে নতুন নিষেধাজ্ঞার তালিকা ঘোষণা করবে।” 

যুক্তরাজ্য এবং যুক্তরাষ্ট্রও ইরানের ওপর নতুন নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। ইরানের সঙ্গে পশ্চিমা দেশগুলোর সম্পর্ক এমনিতেই ভাল না। এই নিষেধাজ্ঞার মধ্য দিয়ে সেই সম্পর্কে আরও অবনতিরই প্রকাশ ঘটেছে।

ইরানে গতবছর সেপ্টেম্বরে নীতি পুলিশ হেফাজতে কুর্দি নারী মাশা আমিনির মৃত্যুকে কেন্দ্র করে শুরু হওয়া অস্থিরতা দমনে সরকার যে ভয়াবহ দমনপীড়ন চালিয়েছে, তার প্রতিক্রিয়ায় এটিই পশ্চিমা দেশগুলোর সর্বসাম্প্রতিক নিষেধাজ্ঞা।

মাশা আমিনির মৃত্যুকে কেন্দ্র করে ইরান যে সরকারবিরোধী বিক্ষোভ দেখছে, তাকে ১৯৭৯ সালে ইসলামে বিপ্লবের পর দেশটির শাসকগোষ্ঠীর জন্য সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ বলা হচ্ছে। তেহরান এ অস্থিরতা উসকে দেওয়ার জন্য পশ্চিমা শাসকগোষ্ঠীকে দুষছে।

 

shamima/shimul