ঢাকা, সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৮ আশ্বিন ১৪২৬

2019-09-23

, ২৩ মহররম ১৪৪১

ফিরতে রাজি নয় কেউ, হচ্ছে না রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন

প্রকাশিত: ০২:১৫ , ২২ আগস্ট ২০১৯ আপডেট: ১০:২৭ , ২২ আগস্ট ২০১৯

কক্সবাজার প্রতিনিধি: প্রত্যাবাসন শুরুর জন্য সাক্ষাতকার নেয়া ২৯৫ রোহিঙ্গা পরিবারের কেউই মিয়ানমারে ফিরতে রাজি নয় বলে জানিয়েছেন শরণার্থী, ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার মো. আবুল কালাম।

দীর্ঘ আলোচনা, আন্তর্জাতিক হস্তক্ষেপের পর বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরু হওয়ার কথা থাকলেও এখন পর্যন্ত মিয়ানমারে ফিরতে কোনো রোহিঙ্গা রাজি হয়নি বলে জানিয়েছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) দুপুরে টেকনাফের শালবাগান রোহিঙ্গা শিবিরে তিনি বলেন, ‘আমরা সব ধরনের প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছি। যদি বিকাল ৪টা পর্যন্ত কেউ স্বেচ্ছায় রাজি হয়, তাকে মিয়ানমারে ফেরত পাঠানো হবে। তবে এখন পর্যন্ত কেউ যেতে রাজি হয়নি।’

রোহিঙ্গারা রাজি না হওয়ায় প্রত্যাবাসন শুরু হবে কিনা তা নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না বলেও জানান কালাম। এজন্য বিকাল ৫টা পর্যন্ত অপেক্ষা করবেন বলেও জানান শরণার্থী, ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার আবুল কালাম।

এর আগে বুধবার শরণার্থী, ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার জানান, বৃহস্পতিবার থেকে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরুর জন্য সব ধরনের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। মঙ্গল ও বুধবার তারা মোট ২৩৫টি পরিবারের প্রধানদের সঙ্গে কথা বলেছেন। তাদের অনেকেই মিয়ানমারে ফেরত যাওয়ার বিষয়ে আশ্বস্ত করেছেন। তাই পাঁচটি বাস ও তিনটি ট্রাক প্রস্তুত রাখা হয়েছে। তবে যারা স্বেচ্ছায় গাড়িতে উঠবে মূলত তাদেরই প্রত্যাবাসন করা হবে, কাউকে জোর করা হবে না।

এদিকে, প্রত্যাবাসনের প্রস্তুতি হিসেবে টেকনাফের কেরণতলী থেকে উখিয়া হয়ে নাইক্ষ্যংছড়ি ঘুমধুম এলাকা পর্যন্ত নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়। সেখানে পুলিশ, র‍্যাবসহ অন্যান্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

২০১৭ সালের আগস্টে রাখাইনের কয়েকটি নিরাপত্তা চৌকিতে হামলার ঘটনার পর পূর্বপরিকল্পিত ও কাঠামোগত সহিংসতা জোরালো করে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী। হত্যা-ধর্ষণসহ বিভিন্ন ধরনের সহিংসতা ও নিপীড়ন থেকে বাঁচতে নতুন করে বাংলাদেশে পালিয়ে আসে সাত লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা। তাদের সঙ্গে রয়েছেন ১৯৮২ থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত নানা অজুহাতে নির্যাতনের হাত থেকে বাঁচার জন্যে বাংলাদেশে পালিয়ে আশ্রয় নেওয়া আরও অন্তত সাড়ে তিন লাখ রোহিঙ্গা। সব মিলে বাংলাদেশে ১১ লাখের বেশি রোহিঙ্গা অবস্থান করছে।

এই বিভাগের আরো খবর

চট্টগ্রামে যুবলীগ নেতা আটক

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি: চট্টগ্রামে যুবলীগ নেতা নুর মোস্তফা টিনুকে অস্ত্রসহ আটক করেছে র‌্যাব। টিনু সন্ত্রাস-চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন অপরাধের...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is