দেশ গড়ায় আরও ভূমিকা রাখুন: সশস্ত্রবাহিনীকে প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত: ০৮:১২, ২১ নভেম্বর ২০২০

আপডেট: ১০:১৫, ২১ নভেম্বর ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক: করোনা অতিমারির মধ্যেও বাংলাদেশের অগ্রগতি থেমে থাকেনি উলে­খ করে দেশ গড়ায় সশস্ত্রবাহিনীর সদস্যদের আরো ভূমিকা রাখার আহবান জানালেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সশস্ত্র বাহিনী দিবস উপলক্ষে শনিবার সন্ধ্যায় টেলিভিশনে দেওয়া এক ভাষণে তিনি এ প্রত্যাশার কথা তুলে ধরেন। 

প্রধানমন্ত্রী বলেন, “সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যগণ সততা, নিষ্ঠা, দেশপ্রেম এবং পেশাগত দক্ষতায় বলীয়ান হয়ে দেশের প্রতিরক্ষা এবং দেশ গড়ার কাজে আরও বেশি অবদান রাখবেন, পরম করুণাময় আল­াহতায়ালার কাছে এই প্রার্থনা করি।”

তিনি বলেন, “করোনাভাইরাসের মহামারির কারণে স্বাস্থ্যঝুঁকি বিবেচনায় অন্যান্য বছরের ন্যায় এ বছর সেনাকুঞ্জে সংবর্ধনা অনুষ্ঠান আয়োজন করা সম্ভব হয়নি। তবে ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে বাহিনীগুলি নিজেদের মত করে অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে।”

মহান স্বাধীনতা যুদ্ধের ইতিহাসে আজকের এই দিনটি এক বিশেষ গৌরবময় স্থান দখল করে আছে উলে­খ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যদের মহান আত্মত্যাগ ও বীরত্বগাথা জাতি চিরদিন গভীর শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করবে। 

সশস্ত্র বাহিনী দিবস-২০২০ উপলক্ষে তিন বাহিনীর প্রতিটি সদস্যসহ দেশবাসীকে আন্তরিক শুভেচ্ছা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “আজকের এই মহৎ দিনে আমি শ্রদ্ধা জানাচ্ছি সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে, যাঁর আহŸানে সাড়া দিয়ে বাঙালি জাতি প্রাণপণ যুদ্ধ করে স্বাধীনতা ছিনিয়ে এনেছিল। শ্রদ্ধাভরে স¥রণ করছি জাতীয় চার নেতাকে। স¥রণ করছি মুক্তিযুদ্ধের ৩০ লাখ শহিদ এবং ২ লাখ নির্যাতিত মা-বোনকে। মুক্তিযোদ্ধাদের আমার সালাম।”

প্রধানমন্ত্রী বলেন, “মহান মুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে ক্ষুদ্র পরিসরে যে সশস্ত্র বাহিনীর জন্ম হয়েছিল, তা আজ মহীরূহ হয়ে বিশাল প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে। স্বাধীনতার পর পরই জাতির পিতা একটি উন্নত ও পেশাদার সশস্ত্র বাহিনীর প্রয়োজনীয়তা উপলব্ধি করেছিলেন। সে লক্ষ্যে তিনি ১৯৭৪ সালে প্রণয়ন করেছিলেন প্রতিরক্ষা নীতি।”

তিনি বলেন, “যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশে সীমিত সম্পদ নিয়ে বঙ্গবন্ধু ১৯৭২ সালেই গড়ে তোলেন বাংলাদেশ মিলিটারি একাডেমি, কম্বাইন্ড আর্মস স্কুল এবং সেনাবাহিনীর প্রতিটি কোরের জন্য স্বতন্ত্র ট্রেনিং সেন্টার। বঙ্গবন্ধু একইসঙ্গে ঢাকা, চট্টগ্রাম ও খুলনায় বাংলাদেশ নৌবাহিনীর তিনটি ঘাঁটি উদ্বোধন করেন। ভারত ও যুগোশ্লভিয়া থেকে নৌবাহিনীর জন্য যুদ্ধ জাহাজ সংগ্রহ করেন। ১৯৭৩ সালে সে সময়ের সুপারসনিক মিগ-২১ যুদ্ধবিমানসহ হেলিকপ্টার ও পরিবহন বিমান এবং এয়ার ডিফেন্স রাডারের মত অত্যাধুনিক সরঞ্জাম বিমান বাহিনীতে সংযোজন করেন।

বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীর বিভিন্ন কর্মকাণ্ডের কথা উলে­খ করে শেখ হাসিনা বলেন, “আজ স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর লগ্নে জাতির পিতা প্রণীত জাতীয় প্রতিরক্ষা নীতির শক্ত ভিতের উপর দাঁড়িয়ে থাকা বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীর পেশাদারিত্ব এবং কর্মদক্ষতা দেশের গণ্ডি পেরিয়ে সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে। ”

প্রধানমন্ত্রী বলেন, “বাংলাদেশের সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যগণ জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে দক্ষতা ও নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করে বহির্বিশ্বে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করেছেন। এ বছর জাতিসংঘের ৭৫তম বছরপূর্তিতে বিশ্বশান্তি প্রতিষ্ঠায় আমরা আবারও সর্বোচ্চ শান্তিরক্ষী প্রদানকারী দেশ হওয়ার গৌরব অর্জন করেছি। ইতোমধ্যে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর একজন মেজর জেনারেল পদবীর অফিসার জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে ডেপুটি ফোর্স কমান্ডার হিসেবে মনোনীত হয়েছেন এবং ফোর্স কমান্ডার হিসেবে একজন মেজর জেনারেল বা লেফটেন্যান্ট জেনারেল পদবীর অফিসার নিয়োগের কার্যক্রম বর্তমানে চলমান রয়েছে।”

শেখ হাসিনা আরও বলেন, “আর্থ-সামজিক উন্নয়নের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ আজ একটি সুপরিচিত নাম। করোনাভাইরাসের মহামারির মধ্যে অনেক উন্নত এবং উদীয়মান অর্থনীতির দেশ যখন ঋণাত্মক প্রবৃদ্ধির মুখে পড়েছে, তখনও আমাদের প্রবৃদ্ধি ৫.২৪ শতাংশ হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। আমাদের প্রবাসী আয়, কৃষি উৎপাদন এবং রপ্তানি বাণিজ্য ঘুরে দাঁড়িয়েছে। বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ৪১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার ছাড়িয়ে গেছে। এমতাবস্থায়, স্বাস্থ্যবিধি মেনে আমাদের অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড এগিয়ে নিতে হবে। ইনশাআল­াহ, আমরা জাতির পিতার স্বপ্নের ক্ষুধা-দারিদ্র্য-নিরক্ষরতামুক্ত অসা¤প্রদায়িক সোনার বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা করবোই। ”

প্রধানমন্ত্রী বলেন, “সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যগণ সততা, নিষ্ঠা, দেশপ্রেম এবং পেশাগত দক্ষতায় বলীয়ান হয়ে দেশের প্রতিরক্ষা এবং দেশ গড়ার কাজে আরও বেশি অবদান রাখবেন, পরম করুণাময় আল­াহতায়ালার কাছে এই প্রার্থনা করি। সশস্ত্র বাহিনীর সকল সদস্য ও তাঁদের পরিবারবর্গের সুখ, শান্তি ও কল্যাণ কামনা করছি। ”

এই বিভাগের আরো খবর

রাজধানীতে এক নারীকে পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজধানীর কাফরুলে...

বিস্তারিত
দেশে ফিরল ৪ বাংলাদেশি তরুণী

যশোর সংবাদদাতা: ভারতে পাচার হওয়া ৪...

বিস্তারিত
ভাস্কর্য আর মূর্তি এক নয়: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক: মূর্তি আর ভাস্কর্য...

বিস্তারিত
অযোগ্যদের দিয়ে কমিটি করা যাবে না: কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক: নিজস্ব বলয় তৈরি...

বিস্তারিত
গতি ফিরেছে দেশের পুঁজিবাজারে: শিল্পমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশের অর্থনীতিতে...

বিস্তারিত
কাল শেষ হচ্ছে রিটার্ন দাখিলের সময়

নিজস্ব প্রতিবেদক: আয়কর রিটার্ন...

বিস্তারিত
ওস্তাদ শাহাদাৎ হোসেনের দাফন সম্পন্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশের সঙ্গীত জগতের...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *