মিথ্যে অভিযোগে শিশু নির্যাতন !!  

প্রকাশিত: ০২:০১, ১১ এপ্রিল ২০২১

আপডেট: ০২:০১, ১১ এপ্রিল ২০২১

পটুয়াখালী সংবাদদাতা: চুরির অভিযোগে আবারো শিশু নির্যাতনের ঘটনা ঘটলো। পটুয়াখালী   জেলার গলাচিপায় মোবাইল চুরির অভিযোগে এক শিশুকে গাছের সাথে বেঁধে নির্যাতন করে, কাঁচি দিয়ে মাথার চুল কেটে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এসময় শিশুটির বাবা-মাকেও নির্যাতন করা হয়। সম্পূর্ণ ঘটনাটির ভিডিও ধারণ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে ছড়িয়ে দিয়েছে নির্যাতনকারীরা। এ ঘটনায় গলাচিপা থানায় একটি মামলা দায়ের করা হলে সোহেল মৃধা (৩৮) নামের এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 

মামলার বিবরণ ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গলাচিপা উপজেলার ডাকুয়া ইউনিয়নের (৯নং ওয়ার্ড) ফুলখালী গ্রামের জুয়েল মৃধার মোবাইল চুরির অভিযাগে শুক্রবার সকালে কৃষ্ণপুর গ্রামের (৮নং ওয়ার্ড) মকবুল গাজীর ছেলে রাকিব গাজীকে (১৪) ঘর থেকে ডেকে নিয়ে যাওয়া হয়। এরপর রাকিবকে গরু বাঁধার রশি দিয়ে আম গাছের সাথে হাত পা বেঁধে নির্যাতন করে ফুলখালী গ্রামের জুয়েল মৃধা, রাকিব মৃধা, সোহেল মৃধা, এমাদুল মৃধা ও জাকির মৃধাসহ অজ্ঞাত আরও দুই তিনজন। রাকিবের ওপর তিন ঘণ্টা ধরে নির্যাতন চালায় তারা। পুরো ঘটনার ভিডিও মোবাইল ফোনে ধারণ করে নির্যাতনকারীরা।

এ বিষয় ডাকুয়া ইউনিয়ন পরিষদের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য মোঃ আরিফ মিয়া বলেন, ‘শিশুটির বাড়ি আমার ওয়ার্ডে। আমি ঘটনাস্থলে গিয় ৯ নম্বর ওয়ার্ড মেম্বরকে খবর দিতে বলি। 

নির্যাতনের শিকার শিশু রাকিব বলেন, ‘আমার ঘর থেকে রেজাউল মৃধা ডেকে নেয়। রাস্তায় উঠলে আমার পকেটে তারা একটা মোবাইল ঢুকিয়ে দেয়। এর পর রেজাউল মৃধার বাড়ি নিয়া বলে ‘চোর পাইছি’। এ সময় এমাদুল মৃধা, রাকিব মৃধা, সাহল মৃধাসহ কয়ক জন মিলে একটি গরুর দড়ি দিয়ে আম গাছের সাথে বেঁধে বাঁশের লাঠি দেয়া পিটায়। তারা লোহার রড দিয়ে চোখ তুলে ফেলার ভয় দেখিয়েছে।’

এ বিষয়ে নির্যাতনের শিকার শিশুটির মা মোর্শেদা বেগম বলেন, ‘রেজাউল ও জুয়েল মৃধাসহ ৪-৫ জন আমার ছেলে রাকিবকে ঘর থেকে ডেকে নেয়। রেজাউল মৃধার বাড়িতে নিয়ে আমার ছেলেকে আমগাছের সাথে হাত পা বেঁধে মারে। এর কিছু পরেই আমার স্বামীকে মৃধাবাড়ির জুয়েল মৃধা ও রাকিব মৃধা গলায় গামছা দিয়ে নিয়ে যায়। বাপ-পোলারে একখানে কইররা পোলার সামনেই নির্যাতন করে এবং রাকিবের মাথার চুল কেটে দেয়। আমার স্বামীকে উদ্ধার করতে গেলে আমাকেও মারধর করে।’ এবিষয়ে থানায় মামলা দিতে গেলে বাড়িতে আত্মীয় স্বজনদের কাছে হুমকি দিয়ে আসে নির্যাতনকারীরা।

গলাচিপা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এমআর শওকত আনোয়ার ইসলাম বলেন, “ এ ঘটনায় নির্যাতনের শিকার শিশুটির মা মোর্শেদা বেগম বাদী হয়ে জুেয়ল মৃধা, রাকিব মৃধা ও সোহেল মৃধাকে প্রধান আসামি করে ৫জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত তিনজনের নামে একটি মামলা দায়ের করছে। এর মধ্যে অভিযুক্ত সোহেল মৃধাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্যদের গ্রেফতারের চষ্টা চলছে।’ 
 

MHR/PBC

এই বিভাগের আরো খবর

‘দেশ ও মানুষের কল্যাণে আত্মনিয়োগ করতে হবে’

নিজস্ব প্রতিবেদক: পবিত্র ঈদুল ফিতর...

বিস্তারিত
দেশে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৩১, শনাক্ত ১২৯০

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশে অতিমারি করোনা...

বিস্তারিত
আজ ঈদ, এবারও মসজিদে হবে জামাত

আশিক মাহমুদ: এবারও এক ভিন্ন বাস্তবতায়...

বিস্তারিত
বিধিনিষেধ আরও এক সপ্তাহ বাড়ানোর চিন্তা

শাহনাজ ইয়াসমিন: জীবনযাত্রায় চলমান...

বিস্তারিত
আগামীকাল দেশে পবিত্র ঈদুল ফিতর

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশের আকাশে কোথাও...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *