বিজিএমইএ'র বিশ্ববিদ্যালয় কয়েক ব্যক্তির দখলে!

প্রকাশিত: ১০:০৮, ১৬ এপ্রিল ২০২১

আপডেট: ১১:১৭, ১৬ এপ্রিল ২০২১

ইউসুফ রানা: ইউনিভার্সিটি অব ফ্যাশন অ্যান্ড টেকনোলজি-বিইউএফটি, বিজিএমইএর এর সম্পদ হলেও তা ব্যক্তি মালিকানা সম্পদ হয়ে গেছে। বিজিএমইএ পরিচালনা পর্ষদ এই বিশ্ববিদ্যালয় এর পরিচালনার কথা থাকলেও তা নিয়ন্ত্রণ করছেন ট্রাস্টি বোর্ডের কয়েকজন সদস্য। বিষয়টি নিয়ে ক্ষুব্ধ সংগঠনের সদস্যরা। নিয়ন্ত্রক সংস্থা ইউজিসির কর্মকর্তরা জানান, অভিযোগ পেলে ক্ষতিয়ে দেখবেন তারা।

তৈরি পোশাক শিল্প খাতে দক্ষ জনশক্তি তৈরির জন্য ১৯৯৯ সালে রাজধানীর উত্তরায় বিজিএমইএ ইনস্টিটিউট অব ফ্যাশন অ্যান্ড টেকনোলজি, বিআইএফটি প্রতিষ্ঠা করা হয়। সদস্যদের চাঁদার টাকায় গড়ে তোলা এই প্রতিষ্ঠানের সব খরচ বহন করে-বিজিএমইএ।

পরবর্তীতে বিআইএফটি বিশ্ববিদ্যালয়ে উন্নীত হয় এবং এর নতুন নাম হয় বিজিএমইএ ইউনিভার্সিটি অব ফ্যাশন অ্যান্ড টেকনোলজি-বিইউএফটি।

সিদ্ধান্ত অনুযায়ি, বিজিএমইএ পরিচালনা পর্ষদে যখন যারা থাকবেন, তারা বিইউএফটির পরিচালনা ও তত্ত্বাবধানের দায়িত্বে থাকবেন।

কিন্তু নিয়ম ভেঙ্গে টাস্ট্রি বোর্ডের ২১ জন সদস্য এই বিশ্ববিদ্যালয়ের মালিক বনে গেছেন বলে দাবি করেছেন বিজিএমইএর সদস্যরা।

বিজিএমইএর সদস্য সংখ্যা ২ হাজার ৩১৪। মান অনুসারে প্রতি কারখানা বিজিএমইএকে বছরে ৫ থেকে ১২ হাজার টাকা চাঁদা দেয়। মূলত এ চাঁদার টাকা দিয়েই বিইউএফটি প্রতিষ্ঠা হয়েছিল বলেও জানান তিনি।

তবে, অভিযোগ অস্বীকার করে ট্রাস্টিবোর্ডের এই সদস্য বলেন, নিয়ম অনুযায়ি বিশ্ববিদ্যালয়টি পরিচালনা করছেন তারা।

নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের কর্মকর্তারা জানান, বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে।

অনিয়ম পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান এই কর্মকর্তা।

YA/BDB

এই বিভাগের আরো খবর

বাঁধ নির্মাণে অনিয়মের অভিযোগ 

গাইবান্ধা সংবাদদাতা: গাইবান্ধার...

বিস্তারিত
পিকে হালদারের দুই সহযোগী জিজ্ঞাসাবাদে

তাসলিমুল আলম: অর্থ পাচারের দায়ে...

বিস্তারিত
গোপালগঞ্জে মেডিকেলের নির্মাণ কাজে অনিয়ম

গোপালগঞ্জ সংবাদদাতা: গোপালগঞ্জে...

বিস্তারিত
২৭ জনের নামে দুদকের মামলা

মাগুরা সংবাদদাতা: সরকারি তহবিল থেকে...

বিস্তারিত
এস কে সুর চৌধুরী ও তার স্ত্রীর ব্যাংক হিসাব জব্দ

নিজস্ব প্রতিবেদক: বাংলাদেশ ব্যাংকের...

বিস্তারিত
সাঈদ খোকনের ৮টি ব্যাংক হিসাব জব্দের নির্দেশ 

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকা দক্ষিণ সিটি...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *