মোংলা সমুদ্রবন্দরে রাজস্ব আদায়ের রেকর্ড

প্রকাশিত: ১১-০৬-২০২১ ০৯:০৫

আপডেট: ২৫-০১-২০২২ ১০:০৩

মোংলা সংবাদদাতা: করোনাকালে দেশের ব্যবসা ও শিল্পসহ আর্থিক বিভিন্ন খাতে কিছুটা স্থবিরতা দেখা দিলেও বিপরীত চিত্র মোংলা সমুদ্রবন্দরে। এই সময়ে বন্দরটিতে যেমন জাহাজ আগমনের সংখ্যা বেড়েছে, তেমনি বেড়েছে রাজস্ব আদায়। অতীত রেকর্ড ভেঙে ২০২০-২১ অর্থবছরে মোংলা সমুদ্রবন্দর আয় করেছে এক হাজার ৭ কোটি টাকা।

করোনা অতিমারির এই সময়ে ব্যবসা-বাণিজ্য যখন অনেকটাই স্থবির, মোংলা সমুদ্রবন্দরে তখন আমদানি-রপ্তানি স্বাভাবিক। অতিমারির নেতিবাচক প্রভাব পড়েনি এই সমুদ্রবন্দরে। ২০২০-২১ অর্থবছরে এই সমুদ্রবন্দরে পণ্য খালাস হয়েছে তিন কোটি ৬৩ লাখ মেট্রিক টন। রপ্তানি হয়েছে ৩ লাখ ৪৩ হাজার ৫৪৯ মেট্রিক টন পণ্য। এতে বন্দর কর্তৃপক্ষের আয় হয়েছে এক হাজার ৭ কোটি টাকা, যা অতীতের যে কোন সময়ের চেয়ে বেশি।

মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, করোনার মধ্যেও কার্যক্রম সচল রাখতে কাস্টমস কর্তৃপক্ষ, ব্যাংক, শিপিং এজেন্ট, সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট ও বন্দরের অন্য ব্যবহারকারীদের কাজে সমন্বয় রাখা হয়েছে।

করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় কঠোরভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা হচ্ছে বলেও জানালেন মোংলা উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান মো: ইকবাল হোসেন।

মোংলা বন্দরের এমন সাফল্যের জন্য শ্রমিকসহ সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানালেন বন্দরের চেয়ারম্যান রিয়ার এডমিরাল মোহাম্মদ মুসা। ভবিষ্যতেও মোংলা বন্দরের কার্যক্রমে এমন সাফল্যের দেখা মিলবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

/admiin