শুরু হলো শোকাবহ আগস্ট

প্রকাশিত: ০৭:২৭, ০১ আগস্ট ২০২১

আপডেট: ০১:৫৩, ০১ আগস্ট ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক: শুরু হলো রক্তের আখরে লেখা শোকাবহ আগস্ট। বাঙালির ইতিহাসে সবচেয়ে কলঙ্কিত ঘটনা ঘটে এই মাসে। পঁচাত্তরের ১৫ই আগস্ট স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যা করা হয়। আবার ২০০৪ সালে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনাকে হত্যাচেষ্টায় গ্রেনেড হামলাসহ বহু ঘটনায় স্মৃতিকাতর এই মাস। ১৫ই আগষ্ট জাতির পিতাকে হারানোর দিনটি তাই জাতীয় শোক দিবস। শোকের এই মাসে মাসব্যাপী নানা কর্মসূচি নিয়েছে আওয়ামী লীগ।

বাঙালির ইতিহাসে নৃশংসতম হত্যাকান্ডের কালিমালিপ্ত অধ্যায়ের সূচনা হয় আগস্ট মাসে। ১৯৭৫ সালের ১৫ই আগস্ট স্বাধীনতাবিরোধী প্রতিক্রিয়াশীল ঘাতকচক্র বাঙালি জাতির মুক্তি আন্দোলনের মহানায়ক, স্বাধীন বাংলাদেশ রাষ্ট্রের স্থপতি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যা করে।

সেনাবাহিনীর একদল বিপদগামী সদস্যের উচ্চাকাঙ্খা ও দেশি বিদেশি ষড়যন্ত্রে হত্যা করা হয় নির্বাচিত রাষ্ট্রপতি, তার সহধর্মিনী, তিন ছেলে, দুই পুত্রবধুসহ ১৮ জনকে। পঁচাত্তরের এই ঘৃণ্য হত্যাকাণ্ডের পর আইন করে বন্ধ রাখা হয় বিচার প্রক্রিয়াও। কিন্তু ইতিহাস মুছে দেয়া যায় না।

দীর্ঘ ২১ বছর বাঙালি জাতি বিচারহীনতার যে কলঙ্ককের বোঝা বহন করেছে তা ঘোচাতেই ১৯৯৬ সালে সরকার গঠনের পর বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা নিয়মতান্ত্রিক ভাবে বিচারিক প্রক্রিয়া শুরু করেন।

সেসময়ের প্রকৃত ঘটনা জাতির সামনে তুলে ধরার দাবি ইতিহাসবিদদের। শোকের মাস ও জাতির পিতার ৪৬তম শাহাদাত বার্ষিকীতে মাসব্যাপী কর্মসূচি ঘোষণা করেছে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনগুলো।
 

FEJ/MSI

এই বিভাগের আরো খবর

আবারো জিজ্ঞাসাবাদে ইভ্যালির রাসেল

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজধানীর ধানমন্ডি...

বিস্তারিত
‘সরকার জোর করে ক্ষমতা দখল করে আছে’

নিজস্ব প্রতিবেদক: সরকার হটানোর...

বিস্তারিত
বাসের মধ্যেই ফুটফুটে শিশুর জন্ম

চট্টগ্রাম সংবাদদাতা: ঢাকা থেকে...

বিস্তারিত
‘বিএনপির কর্মকাণ্ড গণতন্ত্রের জন্য হুমকি’

নিজস্ব প্রতিবেদক: দু'একটি বিচ্ছিন্ন...

বিস্তারিত
সাত মাস পর করোনা সংক্রমণ ৫ শতাংশের নিচে

নিজস্ব প্রতিবেদক : প্রায় সাত মাস পর ৫...

বিস্তারিত
হাসপাতালে ভর্তি আরো ২৪৬ ডেঙ্গুরোগী

নিজস্ব প্রতিবেদক : গত ২৪ ঘন্টায়...

বিস্তারিত
বাংলাদেশকে এসডিজি অ্যাওয়ার্ড প্রদান

নিজস্ব প্রতিবেদক: এসডিজি অর্জনে...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *